বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ১১:০০ অপরাহ্ন

Notice :

সুনামগঞ্জ থেকে নেত্রকোণা পর্যন্ত ফ্লাইওভার নির্মাণ হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা হাওরের মানুষের দুঃখ-কষ্ট উপলব্ধি করে হাওর অঞ্চলের উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে নানামুখী কাজ করছেন। তার নির্দেশেই সুনামগঞ্জ থেকে নেত্রকোণা আসতে ফ্লাইওভার নির্মাণ করার পরিকল্পনা করছে সরকার। বর্তমান সরকারের সময়েই তা বাস্তবায়ন করা হবে।
শুক্রবার নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে ‘উকিল মুন্সি স্মরণে বাউল উৎসব’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ধান উৎপাদনের ভান্ডার। বোরো ধানের ভান্ডার। চাইলেই আমরা এখানে একটি এগ্রিকালচার ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (এটিআই) স্থাপন করে ফেলবো। ভালো জিনিস করতে কোনও আপত্তি নেই। যত বেশি হবে ততোই ভালো।
মন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকার, আমাদের প্রধানমন্ত্রী, আমাদের দল এবং আমরা গোটা বাঙালি জাতিকে নিয়েই আমাদের সাংস্কৃতিক পরিবার। বাঙালিরা পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুক না কেন সবাইকে নিয়েই আমাদের সাংস্কৃতিক পরিবার। সারাদেশে যেখানে যেটা করা প্রয়োজন সেখানে সেটা করা হবে। এটাই আমাদের নীতি।
প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নেত্রকোণা-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেবেকা মমিন। প্রধান আলোচক ছিলেন, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত প্রখ্যাত লেখক ও প্রাবন্ধিক অধ্যাপক যতীন সরকার। পরে সেখানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা বাউল শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।
অপরদিকে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান শুক্রবার দুপুরে ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।
এ সময় তিনি বলেন, আমাদের বাপ-দাদার আমলে ভাটি এলাকা ও হাওরাঞ্চলের গ্রামগুলোতে বিদ্যুতের দেখা পাওয়া ছিল অনেকটা দুঃস্বপ্নের মতো। কখনো কেউ ভাবেনি যে সেখানকার মানুষজন বিদ্যুৎ সুবিধা ভোগ করবে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই এদেশের উন্নয়ন হয়। তাই আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসায় অবহেলিত ভাটি ও হাওর এলাকার গ্রামে গ্রামে বিদ্যুতের আলোসহ নানা সুবিধা পৌঁছে গেছে। খুব সহজেই এখন গ্রামের মাঠে ঘাটে বসে মানুষজন শহর ও বিশ্বের খবরাখবর জানতে পারেন। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছানো ছিল আওয়ামী লীগ সরকারের একটি বড় চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আওয়ামী লীগ বিজয়ী হয়েছে। অবহেলিত ভাটি ও হাওর অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে। আর সেই কাজগুলো গুরুত্ব দিয়ে করা হবে। আর সারাদেশের মানুষ যাতে সুস্থ, শিক্ষিত, শান্তিপূর্ণ ও নিরাপদ জীবন যাপন করতে পারে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, গেল বন্যায় হাওরবাসীর বোরো ফসল পানিতে তলিয়ে যায়। তাই কৃষকদের হাওরের সোনার ফসলরক্ষার কথা বিবেচনা করে বোরো ফসলরক্ষায় প্রধানমন্ত্রী বাঁধ নির্মাণকাজে বিশেষ নজর দিয়েছেন। সুনামগঞ্জ জেলার মধ্যনগর থানাটি উপজেলা হিসেবে বাস্তবায়ন করার দাবিটি এখানকার মানুষজনের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি। এই দাবি পূরণের বিষয়ে খুব শিগগিরই আমি এখানকার সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবো। এই থানাটি উপজেলা হিসেবে বাস্তবায়ন করার জন্য যা যা দরকার তাই করা হবে।
সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিসের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলমগীর কবীর, ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, নবনির্বাচিত ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক প্রবীর বিজয় তালুকদার, মধ্যনগর থানা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ প্রমুখ।
মন্ত্রী ওইদিন বিকেল সোয়া চারটার দিকে উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনের একটি কক্ষে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ, ধর্মপাশা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুজন চন্দ্র সরকার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, জয়শ্রী ইউপি চেয়ারম্যান সঞ্জয় রায় চৌধুরী, সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ, সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান আমানুর রাজা চৌধুরী, বংশীকু-া উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসাইন, বংশীকুন্ডা দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান আজিম মাহমুদ প্রমুখ।
অপরদিকে শুক্রবার বিকেলে তাহিরপুর উপজেলার বালিজুরী হাজী বক্স উচ্চ বিদ্যালয়ের পুনর্মিলনী উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) মিজানুর রহমান, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ, সুনামগঞ্জের সহকারি পরিচালক ডা. ননী ভূষণ তালুকদার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী