সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

Notice :

অনাবিল আবাসিক এলাকা : দুর্গন্ধে টেকা দায়


শহীদনুর আহমেদ ::

সুনামগঞ্জ শহরের উকিলপাড়ার অনাবিল আবাসিক এলাকায় ময়লা-আবর্জনার দুর্গন্ধে পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। দুর্গন্ধে স্থানীয়দের টেকা দায় হয়ে পড়েছে।
শুক্রবার সরেজমিনে ওই এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, শহীদ ক্যাডেট একাডেমির সামনে প্রায় ১০০ মিটার ড্রেনের স্ল্যাব নেই। স্ল্যাব না থাকায় এই ড্রেনেই ময়লা-আবর্জনা ফেলেন অনেকে। ড্রেনের পাশে রয়েছে কয়েকটি কসাই ঘর। পশু জবাইয়ের পরে রক্ত, নাড়িভুঁড়ি, মলমূত্র এই ড্রেনেই ফেলে রাখেন মাংস বিক্রির দোকানীরা। পাশে একটি ডাস্টবিন থাকলেও ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার না করায় দিন দিন ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে ওই স্থানটি। ড্রেনের পচাগলা ময়লা ও পাশের আবর্জনার স্তূপে তৈরি হচ্ছে উৎকট দুর্গন্ধ। দীর্ঘদিন ধরে এমন অবস্থা চলতে থাকলেও এই সমস্যা সমাধানে পৌর কর্তৃপক্ষ কোনো উদ্যোগ না নেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে জরুরি ভিত্তিতে ড্রেনের উপর স্ল্যাব স্থাপন ও আবর্জনা পরিষ্কারের উদ্যোগ নিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা।
স্থানীয় বাসিন্দা নুরুল হাসান আতাহের বলেন, দুর্গন্ধের জন্যে টেকা দায় হয়ে পড়েছে আমাদের। নাকমুখ বন্ধ করে চলাচল করতে হয়। ময়লা আবর্জনার সৃষ্ট দুর্গন্ধ বাসা পর্যন্ত যায়। আমরা এই অবস্থা থেকে মুক্তি চাই।
স্থানীয় বাসিন্দা লন্ডন প্রবাসী লিটন আহমদ বলেন, আবর্জনার কারণে বাসাবাড়িতে মশা-মাছির উপদ্রব বেড়েছে। ময়লার দুর্গন্ধে বাসাবাড়িতে টেকা দায়।
এ ব্যাপারে পৌর কাউন্সিলর চঞ্চল কুমার লোহ বলেন, স্থানীয়রা আমাকে বিষয়টি অবগত করেছেন। আমি সরেজমিনে ওই এলাকা দেখে এসেছি। আমিও দুর্গন্ধের কারণে টিকতে পারিনি। আগামী মিটিংয়ে এ বিষয়ে কথা বলবো। জরুরিভিত্তিতে ড্রেনে স্ল্যাব তৈরি ও কসাইখানা স্থানান্তরের উদ্যোগ নেয়ার প্রস্তাব করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী