1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

তাহিরপুর সীমান্তে বন্য হাতির উৎপাত

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

বিশেষ প্রতিনিধি ::
তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের চানপুর-রজনী লাইন-রাজাই সীমান্তে (ভারতীয় অংশে) হঠাৎ ভারতীয় বন্য হাতির উপদ্রব দেখা গেছে। কয়েকদিন দিন ধরে কালাপাহাড় থেকে চানপুর সীমান্তে দল বেঁধে বন্য হাতির দল ঘুরে বেড়াচ্ছে। বাংলাদেশ সীমান্তে নেমে এসব হাতি তাণ্ডব শুরু করতে পারে বলে সীমান্তে বসবাসকারী লোকজন আশঙ্কা করছেন।
সীমান্তে বসবাসকারী লোকজন জানান, গত একমাস ধরে কালাপাহাড় সীমান্তে ভারতের অংশে একদল বন্য হাতি উপদ্রব শুরু করে। এতে ভারতীয় অংশের রাজাই গ্রামের আদিবাসী এবং কালাপাহাড়ে গারো আদিবাসীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। গত ১০ অক্টোবর চানপুর সীমান্তের কালাপাহাড়ে ভারতীয় অংশে গারো আদিবাসীদের ৫টি ঘর গুড়িয়ে দিয়েছে বন্য হাতির দল। যে কোন সময় বাংলাদেশ সীমান্তে নেমে তাণ্ডব শুরু করতে পারে বলে সীমান্তবাসী আতঙ্ক প্রকাশ করেছেন। চানপুর গ্রামবাসী এসব হাতির তাণ্ডব দেখছেন বলেও জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।
জানা গেছে, বন্য হাতির উৎপাতে ভারতীয় অংশের রাজাই গ্রামবাসী বিএসএফ, ভারতীয় পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনকে অবগত করার পর তাদেরকে পটকা দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। তাছাড়া ভারতীয় পুলিশ বন্যহাতি তাড়াতে ফাঁকা ফায়ারিংও করেছে। এই ফায়ারিংয়ের পর বন্যহাতির দল আরও বেশি উৎপাত শুরু করেছে। বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া কালা পাহাড়ে গারো আদিবাসীদের ৫টি বসতবাড়ি গুড়িয়ে দিয়েছে। বাংলাদেশ সীমান্তঘেঁষা ভারতীয় অংশে রোববার সন্ধ্যায় একদল বন্য হাতি তাণ্ডব চালিয়েছে বলে সীমান্তে বসবাসকারী লোকজন জানিয়েছেন। তারা হাতির বিকট হুঙ্কারে আতঙ্কিতও। সীমান্তে বসবাসকারী লোকজন বিষয়টি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেমকে অবগত করেছেন।
রাজাই গ্রামের আদিবাসী নেতা এন্ড্রু সলোমার বলেন, আমি ভারতের রাজাই গ্রামের পরিচিতদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি গত ২০ দিন ধরে বন্য হাতির উৎপাত চলছে। আমরা সীমান্ত থেকেও উন্মাদ বন্যহাতিদের তাণ্ডব দেখছি। গতকাল ভারতের কালাপাহাড়ে (বাংলাদেশের চানপুর সংলগ্ন) গারো আদিবাসীদের কয়েকটি বসতঘর গুড়িয়ে দিয়েছে। ভারতীয় বিএসএফ এসব বন্য হাতি তাড়াতে ফায়ারিংও করেছে যা আমরা শুনেছি। তিনি বলেন, যে কোন সময় বাংলাদেশ সীমান্তে নেমে আসতে পারে এসব বন্যহাতির দল। তখন বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই আমরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে বিষয়টি অবগত করেছি।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, সীমান্তে বসবাসকারীরা ভারতীয় বন্য হাতির আতঙ্কের কথা জানিয়েছেন। আমি এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com