,

Notice :

পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের ডাবর সেতুর পূর্ব পাশে ঢাকা থেকে আসা যাত্রীবাহী লিমন পরিবহন নামের একটি চলন্ত বাস রাস্তা থেকে নিচে ছিটকে পড়ে উল্টে গিয়ে এক যাত্রী মারা গেছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৭ টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ডাবর সেতুর কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে বুধবার রাত সাড়ে ১১ টায় সুনামগঞ্জের গোবিন্দপুর মোড়ে একটি বেপরোয়া ট্রাক মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ায় মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে এর চালক মারা গেছেন। অপরদিকে বৃহস্পতিবার রাতে শহরতলির ইকবাল নগর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লরি খাদে পড়ে একজন নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জগামী লিমন পরিবহন ছাদের উপরে নানা জাতের মাল বোঝাই করে অল্প সংখ্যক যাত্রী নিয়ে সুনামগঞ্জ আসছিল। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৭টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ডাবর সেতুর পূর্ব পাশে এসে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হাওরে পড়ে উল্টে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই দিরাই উপজেলার জগদল গ্রামের আবু বকর (৫০) নামের এক যাত্রী মারা যান। আহত হন অন্তত ১০ জন। দুর্ঘটনার পর গাড়িটির ইঞ্জিন, ছাদ, দরোজা, জানালাসহ বিভিন্ন যন্ত্র খুলে পড়ে গেছে। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ট্রাফিক পুলিশ ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। আহত যাত্রীদের কৈতক ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় সদর উপজেলার জয়নগর বাজার থেকে সুনামগঞ্জ শহরে আসার পথে গোবিন্দপুর এলাকায় একটি বেপরোয়া ট্রাক মোহনপুর গ্রামের মানিক মিয়া (৩০) নামের এক মোটর সাইকেল চালককে ধাক্কা দেয়। মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে তিনি গুরুতর আহত হন। আহত হন তার সঙ্গের যাত্রী। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত ডাক্তার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সিলেটে যাওয়ার পথে মারা যান মানিক। মানিক সদর উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা শাখাদ আলীর ছেলে
সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ মোটর সাইকেল চালকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ঢাকা থেকে ছুটে আসা লিমন পরিবহন উল্টে হাওরে পড়ে এক যাত্রীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান দুর্ঘটনায় আরো বেশ কয়েকজন যাত্রী আহত হয়েছেন।
অপরদিকে, সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের ইকবাল নগর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লরি খাদে পড়ে একজন নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছে। বৃহ¯পতিবার রাত ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ভানু দাস (৩৫) সদর উপজেলার মোল্লাপাড়া ইউনিয়নের ইছাগড়ি গ্রামের সুরঞ্জিত দাসের পুত্র। আহতদের সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।
সদর থানার ওসি মো. শহিদুউল্লাহ জানান, পল্লী বিদ্যুতের বৈদ্যুতিক খুঁটিবাহী একটি লরি সদর উপজেলার নীলপুর থেকে শহরতলির জলিলপুর খেয়াঘাটে আসছিল। ইকবালনগর এলাকায় লরিটি আসা মাত্র নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়ক পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক জন নিহত হয়। আহত হয় আরো সাত জন আহত হয়। খবর পেয়ে সুনামগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালায়।
তিনি জানান, নিহতের লাশ গ্রহণ করার জন্য পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী