1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

শান্তিগঞ্জে গরু ও ধান নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০২৪

শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি ::
শান্তিগঞ্জ উপজেলার সিচনী গ্রামে হত্যাকা-ের ঘটনায় প্রতিপক্ষের তালাবদ্ধ বাড়ি থেকে রাতের আঁধারে গরু ও ধান নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার (৯ জুলাই) রাতে। তবে সিচনী গ্রামের সুফি মিয়া গোষ্ঠীর প্রতিপক্ষের লোকজন এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার।
স্থানীয় ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (২১ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পাগলা-জগন্নাথপুর সড়কের সিচনী পয়েন্টের ব্রিজের পূর্ব পাড়ে সিচনী গ্রামের সুফি মিয়ার গোষ্ঠীর লোকজনদের অতর্কিত হামলা ও ছুরিকাঘাতে সিচনী গ্রামের আজিজুর রহমানের গোষ্ঠীর হুসমত আলীর ছেলে মো. নোমান মাহমুদ প্রকাশ রুমান মিয়া (৩৫) নামের এক যুবক খুন হন। মো. নোমান মাহমুদ খুন হওয়ার পর থেকে গ্রেফতার আতঙ্কে সুফি মিয়া গোষ্ঠীর লোকজন আত্মগোপনে চলে যান। ইতিপূর্বে শান্তিগঞ্জ থানা পুলিশ সুফি মিয়া গোষ্ঠীর সিচনী গ্রামের পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা মৃত ইয়াছিন মুন্সীর ছেলে আব্দুল কাহার (৫৫) সহ তাদের পক্ষের আরো ৭/৮জনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে।
সিচনী গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত আব্দুল কাহারের মেয়ে হ্যাপী বেগম জানান, আমার পিতা আব্দুল কাহার জেলে রয়েছেন। আমার ভাইয়েরা পুলিশে গ্রেফতারের ভয়ে বাড়ির বাইরে আছেন। আমিসহ আমাদের পরিবারের মহিলা ও শিশু সন্তানেরা প্রতিপক্ষের ভয়ে অন্য বাড়িতে বসবাস করি। দিনের বেলা বাড়িতে এসে গৃহপালিত গরু, হাঁস, মোরগ দেখাশোনা করি। সন্ধ্যা হলে নিরাপত্তার ভয়ে আমরা বসতবাড়ি তালাবদ্ধ করে প্রতিবেশীর বসতবাড়িতে আশ্রয় নিই। গত মঙ্গলবার (৯ জুলাই) রাতে আমাদের গ্রামের আজিজুর রহমানের গোষ্ঠীর লোকজন আমাদের তালাবদ্ধ বসতঘরের স্টিলের দরজার তালা ভেঙে প্রায় ৭০ মণ ধান ও গোয়াল ঘরের দরজা ভেঙে সত্তর হাজার টাকা মূল্যের একটি গাভী গরু, ফ্রিজসহ বসতঘর থেকে মূল্যবান মালামাল নিয়ে গেছে। আমাদের মূল্যবান স¤পদ দিনের বেলায় অন্যত্র সরিয়ে নিতে বাধা দিচ্ছে প্রতিপক্ষের লোকজন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আফতাবুজ্জামান রিগ্যান বলেন, শান্তিগঞ্জ থানা পুলিশ হত্যাকা-ের ঘটনার পর থেকে অদ্যাবধি রাত-বিরাতে গাড়িতে ও নৌকাযোগে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নিয়মিত ডিউটি পালন করে আসছেন। কারো বাড়িতে এ ধরনের কোন ঘটনার সংবাদ পাই নাই। কেউ অবগত করে নাই।
শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মুক্তাদির হোসেন বলেন, সিচনী গ্রামের পরিবেশ শান্ত রয়েছে। কারো বাড়িতে গরু ও ধান নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে আমাদেরকে অবগত করে নাই। অভিযোগ পেলে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com