1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৯:৪১ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

ছাগলে খেল মতিউরের কোটি টাকার সম্পদ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
‘মরি হায়রে হায় দুঃখে পরাণ যায়; হাজার টাকার বাগান খাইলো পাঁচ সিকার ছাগলে।’ তবে এবার আর পাঁচ সিকার ছাগল নয়; সাবেক রাজস্ব কর্মকর্তা মতিউর রহমানের হাজার কোটি টাকার স¤পদ খেল ১৫ লাখ টাকার ছাগলে। চাকরি জীবনের প্রায় শেষ পর্যায়ে এসে ছাগলকা-ে ফেঁসে গেছেন প্রভাবশালী এই সরকারি কর্মকর্তা। কোরবানির জন্য ১৫ লাখ টাকায় ছেলের কেনা ছাগল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে বাবার পরিচয়ে টান পড়ে। আর তখনই বেরিয়ে আসে মতিউরের নামে-বেনামে গড়া স¤পদের পাহাড়।
কর ফাঁকির সুবিধা দিয়ে দেশের নামি-দামি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্ণধারদের সঙ্গে ব্যবসায়িক কানেকশন গড়ে তোলেন তিনি। ট্রেড ক্যাডারের কর্মকর্তা হয়েও সুকৌশলে কাস্টমস ক্যাডারে প্রবেশ, এলসি জালিয়াতি, বন্ড সুবিধায় আনা পণ্য খোলা বাজারে বিক্রিসহ নানা অপকীর্তির বিস্তর অভিযোগ তার বিরুদ্ধে। সব সরকারের আমলেই অবৈধ অর্থের প্রভাবে পেয়েছেন রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয়। বাগিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ পদে পোস্টিং। রাজস্ব আয় বাড়ানোর গুরুদায়িত্বে থেকে সরকারকে রাজস্ববঞ্চিত করে গুছিয়েছেন নিজের আখের।
কয়েক হাজার কোটি টাকার স¤পদের প্রায় সবই গড়েছেন স্ত্রী-সন্তান ও আত্মীয়-স্বজনদের নামে। সব মিলে স¤পদের পাহাড় গড়ে তুলেছেন। কিনেছেন দামি গাড়ি, বাড়ি। এ কর্মকর্তা হাতে পরেন ৩১ লাখ টাকার বেশি দামের রোলেক্স ঘড়ি। এরই মধ্যে মতিউর রহমানের প্রায় ৫০০ কোটি টাকার স্থাবর স¤পদের হদিস মিলেছে। এর মধ্যে ঢাকাতেই অন্তত দুই ডজন বিলাসবহুল ফ্ল্যাট রয়েছে মতিউর রহমানের স্ত্রী-সন্তান ও ঘনিষ্ঠদের নামে।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, সাহাবুদ্দিন পার্কের পাশে ৮৩ নম্বর রোডের ১১ নম্বর প্লটে আনোয়ার ল্যান্ডমার্কের বেগ পার্ক ভিউতে রয়েছে চারটি ফ্ল্যাট। সেখানেই প্রথম স্ত্রী নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার চেয়ারম্যান লায়লা কানিজকে নিয়ে সপরিবারে বাস করতেন। দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মী আখতার থাকেন লালমাটিয়ার ৮ নম্বর রোডের ৪১/২ ই¤েপরিয়াল ভবনে। কাকরাইলেও একটি ফ্ল্যাট রয়েছে ছোট স্ত্রীর নামে। এ ছাড়া ধানম-ি ২৭ নম্বরে একাধিক ফ্ল্যাটের হদিস পাওয়া গেছে।
বিলাসবহুল ফ্ল্যাট ডেভেলপার কো¤পানি শান্তা ডেভেলপারের করা বিভিন্ন ভবনে তার আটটি ফ্ল্যাট রয়েছে বলে জানা গেছে। এসব ফ্ল্যাট প্রথম স্ত্রীর সন্তান ফারজানা রহমান ঈপ্সিতা ও ছেলে আহমেদ তৌফিকুর রহমান অর্ণবের নামে কেনা হয়েছে। এ ছাড়া গাজীপুর, সাভার, নরসিংদী, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বাড়ি, জমি, ফ্ল্যাট-প্লট, রিসোর্ট রয়েছে। মতিউর সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকে নিজের এবং পরিবারের সদস্যদের নামে এফডিআর ও শেয়ারবাজারে নিজ নামে অর্ধশত কোটি টাকার বিনিয়োগ আছে বলেও জানা গেছে।
অনুসন্ধানে আরো জানা গেছে, ছাগলকা-ে আলোচিত পুত্রকেও কিনে দিয়েছিলেন প্রাডো, প্রিমিও ও ক্রাউনের মতো চারটি বিলাসবহুল গাড়ি। এসব গাড়ি তার বিভিন্ন ক¤পানির নামে রেজিস্ট্রেশন করা। কিনে দিয়েছেন দামি পাখিও। তার পরিচিত কাস্টমস কর্মকর্তারা বলছেন, বেনামে এনবিআর সদস্য মতিউর রহমানের হাজার হাজার কোটি টাকার স¤পদ রয়েছে।
টঙ্গীতে ৪০ হাজার বর্গফুটের এসকে ট্রিমস নামের ব্যাগ ম্যানুফ্যাকচারিং ও অ্যাকসেসরিজ কারখানা রয়েছে তার। যদিও কাগজে-কলমে কারখানার মালিক তার ভাই এম এ কাইয়ুম হাওলাদার।
ময়মনসিংহের ভালুকায় ৩০০ বিঘা জমিতে গ্লোবাল সুজ নামের দুটি জুতা তৈরির কারখানা রয়েছে। নরসিংদীর রায়পুরায় ওয়ান্ডার পার্ক অ্যান্ড ইকো রিসোর্ট রয়েছে। এসব রিসোর্টের মালিকানায় আছেন তার ছেলে ও মেয়ে। এ ছাড়া পূর্বাচলে আপন ভুবন পিকনিক অ্যান্ড শুটিং ¯পটের মালিকও তিনি।
গাজীপুর সদর এলাকায় ৭টি জায়গায় তার জমির খোঁজ মিলেছে। এ ছাড়া সাভার থানার বিলামালিয়া মৌজায় ১২.৫৮ শতাংশ জমির খোঁজ পাওয়া গেছে। এই আট জায়গায় রয়েছে তার ৬০ শতাংশ জমি। স্ত্রী লায়লা কানিজের নামে সাভার থানার বিলামালিয়া মৌজায় ১৪.০৩ শতাংশ, গাজীপুরে ৪৮.১৬ ও ১৪.৫০ শতাংশ এবং ছেলে আহমেদ তৌফিকুর রহমান অর্ণব ও স্ত্রী লায়লা কানিজের নামে ০.৪৫১৬২৫ একর জমি রয়েছে।
আর এসব ঘটনা সামনে আসতেই গত রবিবার তিনি এনবিআর ও সোনালী ব্যাংকের পদ হারান। আর সোমবার মতিউর রহমান, তার স্ত্রী লায়লা কানিজ ও ছেলে আহম্মেদ তৌফিকুর রহমান অর্নবের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন আদালত। এদিকে, গত বুধবার (১৯ জুন) মতিউরের দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মী আখতার শিভলী, ছেলে মুশফিকুর রহমান ইফাত ও ইরফান দেশত্যাগ করে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান। আর এই সবকিছুর পেছনে প্রধান ভূমিকা এই ১৫ লাখ টাকার ছাগলের।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com