1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:০৭ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

দেড় বছরে সড়কে ঝরেছে ৩৯ প্রাণ

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৬ মে, ২০২৪

শহীদনূর আহমেদ ::
সুনামগঞ্জ-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে দুর্ঘটনা। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো স্থানে দুর্ঘটনায় মানুষ হতাহত হচ্ছেন। কেউ নিহত হচ্ছেন। আবার কেউ আহত হয়ে সারা জীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ করে পরিবারের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। অদক্ষ, অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালক, লাইসেন্স ও ফিটনেসবিহীন যানবাহন, ব্যাটারিচালিত অটোরিকসা, সিএনজি, লেগুনা এবং যত্রতত্র পার্কিং, বেপরোয়া গতি, ট্রাফিক আইন না মানা ইত্যাদিকে সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা।
এদিকে, সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে এই মৃত্যুর মিছিল বাড়তে থাকলেও এটি প্রতিরোধে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন গতানুগতিক অভিযান আর লোকদেখানো সচেতনতামূলক কার্যক্রমের মধ্যে সীমাবদ্ধ বলে অভিযোগ সচেতনমহলের।
সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে জানাযায়, গত বছরের জানুয়ারি থেকে চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে ৪৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৯ জন নিহত ও ২৮ জন আহত হয়েছেন। সড়ক দুর্ঘটনা সংক্রান্ত বিভিন্ন থানায় মামলা হয়েছে ৪৩টি। সড়ক দুর্ঘটনায় ভিকটিম যাত্রীদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা বেশি। বেশিরভাগ দুর্ঘটনা বেপরোয়া গতিতে নিয়ন্ত্রণ হারানো আর যানবাহন ওভার ট্র্যাকিংয়ের কারণে হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিগত সময়ের চেয়ে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে দুর্ঘটনা বেড়েছে। আঞ্চলিক মহাসড়কে যে হারে দুর্ঘটনা ঘটছে, তেমনি জেলার অভ্যন্তরীণ সড়কে সমান হারে ঘটছে দুর্ঘটনা। তবে বেশিরভাগ দুর্ঘটনায় সরকারি হিসাবে আসে না বলে জানাগেছে।
সচেতন ব্যক্তিবর্গের সাথে আলাপ করে জানাযায়, সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক ও অভ্যন্তরীণ সড়কে ফিটনেসবিহীন যানবাহন চলাচল করে থাকে। ফিটনেসবিহীন সিএনজি, লেগুনা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকসার বেশিরভাগ চালক অদক্ষ, অপ্রাপ্ত বয়স্ক ও লাইসেন্সবিহীন। তারা ট্রাফিক আইন না মেনে যানবাহন নিয়ে সড়কে দাপিয়ে বেড়ায়। গতি নিয়ন্ত্রণ না করতে পেরে তারা প্রায়ই ঘটায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা। অদক্ষ, অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালক ও ফিটনেসবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন সচেতনমহল।
গণমাধ্যমকর্মী দিলাল আহমদ বলেন, সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে আশঙ্কজনক হারে দুর্ঘটনা বেড়েছে। এই সড়কে যেসব যানবাহন চলাচল করে থাকে তার বেশিরভাগই ফিটনেসবিহীন। অদক্ষ চালকদের বেপরোয়া গতি দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। সড়কে ফিটনেসবিহীন যান চলাচল বন্ধ করতে হবে। পাশাপাশি লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। সর্বোপরি সড়ক আইন কার্যকর করতেই হবে। তিনি বলেন, অনেক সময় ট্রাফিক বিভাগ সড়কে লোকদেখানো অভিযান পরিচালনা করে থাকে। আমি মনে করি, ট্রাফিক বিভাগকে নিয়মিত অভিযান পরিচালনার পাশাপাশি সড়কে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।
সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে অদক্ষ, অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালক ও ফিটনেসবিহীন গাড়ির কারণেই দুর্ঘটনা বেড়েছে জানিয়ে ‘নিরাপদ সড়ক চাই’-এর সুনামগঞ্জ সভাপতি মহিম তালুকদার বলেন, সুনামগঞ্জ শহর ও আশপাশের এলাকার যে দুর্ঘটনা ঘটছে তার জন্য দায়ি অদক্ষ চালক। বেশিরভাগই ট্রাফিক আইন মানে না। আমাদের সংগঠন সড়কপথে যাত্রা নিরাপদ করতে চালক ও যাত্রীদের সচেতন করে থাকে। এক্ষেত্রে আমরা ট্রাফিক বিভাগের সাহায্য নিয়ে থাকি। ট্রাফিক বিভাগ সচেষ্ট হওয়ার পাশাপাশি জনসচেতনতা বৃদ্ধি পেলে দুর্ঘটনার হার কমবে।
অদক্ষ, অপ্রাপ্ত বয়স্ক চালকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়াসহ ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) রাজন কুমার দাশ বলেন, অবৈধ যানবাহন ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান রয়েছে। দুর্ঘটনা প্রতিরোধে চালকদের পাশাপাশি যাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com