1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

ভারতে গিয়ে এমপি আনোয়ারুল আজীম ‘নিখোঁজ’

  • আপডেট সময় সোমবার, ২০ মে, ২০২৪

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনার। বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তার স্বজনরা। রবিবার (১৯ মে) ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন এমপি আনারের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আব্দুর রউফ।
আব্দুর রউফ বলেন, ১১ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে যান সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। এরপর দুদিন পরিবার ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল। ১৪ মে থেকে তার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে আমাদের। তার ব্যবহৃত হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে। তিনি কোথায় আছেন, কীভাবে আছেন- সেটা জানতে না পেরে আমরা উদ্বিগ্ন। ইতোমধ্যে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়েছে। এ ছাড়া সরকারের উচ্চপর্যায়ের বিভিন্ন দফতরে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
এমপি আনারের ছোট মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বলেন, কয়েক দিন ধরে বাবার সঙ্গে কোনও যোগাযোগ নেই। এজন্য আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। আমরা সব উপায়ে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও খোঁজ পাইনি।
জানা যায়, গত ১২ মে পশ্চিমবঙ্গের বরানগর থানার গোপাল বিশ্বাস নামে পরিচিত এক ব্যক্তির বাড়িতে ওঠেন এমপি আনার। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপালের সঙ্গে তার প্রায় পঁচিশ বছরের স¤পর্ক।
গোপাল বরানগর থানায় জানিয়েছেন, পরদিন অর্থাৎ ১৩ মে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন এমপি। চিকিৎসকের কাছে যাবেন বলে নিজেই গাড়ি ঠিক করেন। গোপালের পরিবারের গাড়ি তিনি ব্যবহার করেননি। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে হদিস মিলছে না আনারের।
পুলিশকে গোপাল বিশ্বাস আরও জানিয়েছেন, তার কাছে একটি মেসেজ এসেছিল যে, তিনি দিল্লি পৌঁছে গেছেন। কিন্তু ওদিকে আনারের পরিবার গোপালকে জানিয়েছে, এমপির সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। বিষয়টি প্রাথমিকভাবে গুরুত্ব না দিলেও শেষ পর্যন্ত সাধারণ ডায়েরি করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।
ডায়েরিতে গোপাল বিশ্বাস বলেছেন, গত ১২ মে সন্ধ্যা ৭টার সময় আমার বাড়িতে এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার ডাক্তার দেখানোর উদ্দেশ্যে আসেন। পরের দিন দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে ডাক্তার দেখানোর উদ্দেশ্যে আমার বাড়ি থেকে রওনা হয়ে যান। যাওয়ার সময় বলে যান, “আমি দুপুরে খাব না, সন্ধ্যায় ফিরে আসবো”। তারপর উনি সন্ধ্যাবেলা না ফিরে, হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ করে জানান, “আমি বিশেষ কাজে দিল্লিতে চলে যাচ্ছি। ফোন করবো, তোমাদের ফোন করার দরকার নেই।” এরপর ১৫ মে বেলা ১১টা ২১ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ করে জানান, “আমি দিল্লিতে পৌঁছেছি। আমার সাথে ভিআইপিরা আছেন। ফোন করার দরকার নেই।” এই একই মেসেজ নিজের বাড়িতে এবং নিজের পিএকে ফরওয়ার্ড করেছিলেনে এমপি।
থানার ওই ডায়েরিতে গোপাল আরও বলেন, গত ১৬ মে সকালবেলা এমপির পিএ ফোনকল করলেও তা রিসিভ করেননি তিনি। পরে কলব্যাকও করেননি। এরপর ১৭ মে এমপির মেয়ে আমাকে ফোন করে বলেন, “আমার বাবার সাথে কোনোভাবে যোগাযোগ করতে পারছি না।” এরপরই আমি ওনার যাবতীয় পরিচিতদের সঙ্গে যোগাযোগ করি এবং সবাই তারপর থেকে ওনাকে ফোনকল করেও সাড়া পাচ্ছেন না। সে কারণেই আমি বরানগর থানায় মিসিং ডায়েরি করছি।
এ বিষয়ে ব্যারাকপুর পুলিশের ডেপুটি কমিশনার অনুপম সিং বলেন, সাধারণত মিসিং ডায়েরিতে প্রাথমিকভাবে যেভাবে তদন্ত শুরু হয়, সেভাবেই শুরু হয়েছে। যেহেতু তিনি ফরেনার (বিদেশি) এবং একজন এমপি, সে কারণে আমরা স¤পূর্ণ বিষয়টি কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসকে জানিয়েছি। তবে এর চেয়ে বিশেষ কিছু বলা যাবে না।
অন্যদিকে ঢাকায় এমপি আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন তার বাবার খোঁজ পেতে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) দ্বারস্থ হয়েছেন। রোববার (১৯ মে) বিকেলের দিকে তিনি মিন্টো রোডে অবস্থিত ডিবি কার্যালয়ে যান।
ডিবির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বাবার নিখোঁজের বিষয়ে অবহিত করতে ডিবি কার্যালয়ে এসেছেন মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।
উল্লেখ্য, আনোয়ারুল আজীম আনার ঝিনাইদহ-৪ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য। তিনি ২০১৪, ২০১৮ ও ২০২৪ সালে টানা তিনবার আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com