1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সড়কের গর্ত যেন ছোট ছোট পুকুর

  • আপডেট সময় রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪

জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া ::
প্রতিদিন সড়কটি দিয়ে সাধারণ মানুষসহ পর্যটকদের পরিবহনে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলাচল করছে। কিন্তু গত এক যুগ ধরে সড়কটি মেরামতের কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় সড়কের গর্তগুলো যেন ছোট ছোট পুকুরে পরিণত হয়েছে।
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়নের শক্তিয়ারখলা বাজারের সড়কটিতে এমনই অবস্থা বিরাজ করছে।
বাজারের ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর-তাহিরপুর সড়কে প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলাচল করছে। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার শেষ অংশে শক্তিয়ারখলা বাজার। এরপর তাহিরপুর উপজেলা শুরু। এই বাজারটিতে ছোট বড় দুই শতাধিক বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। প্রতিদিন এই বাজারের আশপাশের ১০টি গ্রামের কৃষকগণ তাদের উৎপাদিত বিভিন্ন কৃষিপণ্য বিক্রি করতে নিয়ে আসেন। সেই পণ্য জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলায় যানবাহনে করে পাঠানোহয়। এছাড়াও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরাও এই সড়ক দিয়ে চলাচল করেন। কিন্তু প্রায় এক যুগ ধরে বাজারটির প্রধান সড়কটি মেরামত না করায় ছোট ছোট গর্তে পানি জমে থাকার পর এখন বড় আকার ধারণ করেছে। এ কারণে সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল করার সময় দুই পাশে দোকানে ময়লা পানি ও কাদা ছিটে গিয়ে পড়ছে। যার ফলে বাজারের ব্যবসায়ীরাও নির্বিঘেœ ব্যবসা করতে পারছেন না। এছাড়া অনেক সময় দুর্ঘটনাও ঘটছে।
পর্যটক বহনকারী লাইটেস চালক জামিল আহমেদ জানান, তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওর, শিমুল বাগান, শহীদ সিরাজলেকসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পটে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের পর্যটকদের নিয়ে চলাচল করতে গিয়ে শক্তিয়ারখলার বাজারে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছি।
অটোরিকসা চালক আমিনুল ইসলাম জানান, সড়কের মধ্যে বড় বড় গর্তে বৃষ্টির পানি জমে ছোট ছোট পুকুরে পরিণত হয়েছে। আমরা যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে গিয়ে অনেক সময় দুর্ঘটনার শিকার হই। যাত্রীরা কষ্টে করেন এই ভাঙাচুরা সড়কের কারণে।
বাজারের ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন জানান, এই সড়কের জন্য আমরা ব্যবসায়ীরা আছি চরম দুর্ভোগের মধ্যে। ব্যবসা করা এখন কঠিন হয়ে পড়েছে। এই বেহাল সড়ক দিয়ে সরকারের বড় বড় কর্মকর্তারা চলাচল করলেও সড়কটি মেরামত কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি।
বাজার কমিটির সভাপতি আব্দুল বাছিত জানান, দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে শক্তিয়ারখলা বাজারের শেষ পর্যন্ত এই সড়কটি বাজারের ব্যবসায়ীদের জন্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহন ও পর্যটকদের জন্যেও। কিন্তু মেরামত না করায় সড়কটিতে প্রায় প্রতিদিনই দুর্ঘটনা ঘটছে।
এ ব্যাপারে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা প্রকৌশলী একরামুল হোসেন জানান, বিশ্বম্ভরপুর বাজার থেকে আনোয়ারপুর ভায়া শক্তিয়ারখলা বাজারের মধ্যে বাঘমরা এলাকায় ২টি ব্রিজসহ ১৭ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে নতুনপাড়া এলাকায় কাজ শুরু হয়েছে। খুব দ্রুত বাকি অংশের কাজও শুরু হবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com