1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

কমরেড অমরচাঁন দাসকে নির্যাতনকারী ডাক্তার-নার্সদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি

  • আপডেট সময় শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার ::
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক কমরেড অমরচাঁন দাসকে নির্যাতনকারী ডাক্তার ও নার্সদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শাল্লার সচেতন নাগরিক সমাজ। শুক্রবার সকালে উপজেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা থেকে এই দাবি জানানো হয়।
বীর মুক্তিযোদ্ধা অধীর রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে ও শাল্লা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জয়ন্ত সেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা সিপিবি’র সাবেক সভাপতি অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন তালুকদার। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী শাল্লা শাখার সভাপতি অধ্যাপক তরুণ কান্তি দাস, খেলাঘর আসরের সভাপতি শিক্ষক কাননবালা সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা বলরাম দাস, সুধীর রঞ্জন দাস, অনিল চন্দ্র দাস, বাহাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান বিধান চন্দ্র চৌধুরী, ঘুঙ্গিয়ারগাঁও বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সভাপতি মহীতোষ দাস, উদীচীর সাংগঠনিক স¤পাদক জ্যোতির্ময় চৌধুরী, প্রতাপপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুব্রত কুমার দাস, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শাল্লা শাখার সাংগঠনিক স¤পাদক তাপস রঞ্জন তালুকদার, উদীচীর উপজেলা শাখার অর্থ স¤পাদক শর্বরী মজুমদার, বাউলশিল্পী হারুন মিয়া প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, কমরেড অমরচাঁন দাস একজন ত্যাগী পরোপকারী মানুষ। তিনি সারাজীবন মানুষের সেবা করেছেন নানাভাবে। মানুষের সেবার জন্যই লোকটি সংসার করেননি। ১৯৭১ সালে তরুণ-যুবকদের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের প্রেরণা দিয়েছেন অমরচাঁন দাস। তাঁর নিজের দেহ, চক্ষু দান করেছেন ওই ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই। কর্তৃপক্ষ অমরচাঁন দাসের এই ত্যাগের জন্য তাকে সংবর্ধনাও দিয়েছে। আবার তারাই তাকে নির্যাতনও করেছে। এমন একজন মানুষের ওপর যদি তারা হামলা করতে পারে – তাহলে হাসপাতালে সেবাপ্রাপ্তি সাধারণ মানুষকে তারা কী করতে পারবে স্পষ্ট বুঝা যায়। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ হাসপাতাল যে অনিয়ম-অব্যবস্থাপনার মধ্যদিয়ে চলছে তা খুবই দুঃখজনক। অমরচাঁন দাসের মোবাইল ফোনের সব নাম্বার তারা ডিলিট করে দিয়েছে। আমরা এই অমানবিক নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পাশাপাশি ঘটনার সঠিক তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাই।
মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা, সংস্কৃতিমনা, গণমাধ্যমকর্মীসহ সমাজের নানাপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য, গত ১৩ মার্চ হার্নিয়া রোগের সমস্যা নিয়ে কমরেড অমরচাঁন দাস ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি হন। ১৬ মার্চ তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়। ১৭ মার্চ থেকে প্র¯্রাব সংক্রান্ত জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি। কিন্তু নতুন সেবিকারা তাকে কোনো সহযোগিতা করছিল না। মনে কষ্ট নিয়ে সেবিকাদের সাথে নাতনী সম্বোধন করে একটু মানবিক হতে বলেছিলেন। তাতেই ক্ষেপে উঠে চিকিৎসক সেবিকারা। পুলিশ নিয়ে এসে শাসান তাকে। পরে ১৫ জনের মতো দল সন্ত্রাসী কায়দায় তাঁর ওপর হামলা চালায়। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতিও নিচ্ছিল তারা। এর প্রতিবাদে সিলেট-সুনামগঞ্জে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় শাল্লায়ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হলো।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com