1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

জাতিকে জাগরণমূলক সাংস্কৃতিক আন্দোলনে অনুশীলিত হতে হবে

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ, ২০২৪

গণমাধ্যমান্তরে শিরোনাম করা হয়েছে, ‘নববর্ষ নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালালেই ব্যবস্থা’। বলা হয়েছে, ‘নববর্ষ নিয়ে যারা ফেসবুকে অপপ্রচার চালাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া নববর্ষের দিন সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে শেষ করতে হবে সব অনুষ্ঠান, নিষিদ্ধ থাকবে ভুভুজেলা বাঁশি বাজানো ও ফানুস। বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় এসব সিদ্ধান্ত হয়েছে।’
বাঙালি হয়ে উঠার পক্ষে খুব ভালো কথা। কিন্তু আমরা অর্থাৎ আমাদের বাঙালিদের কেউ কেউ বদলাবো না। মধ্যযুগের কবি আব্দুল হাকিমের মতো কোটি বাঙালির সম্মিলিত সমাজের মধ্যে অন্তর্ঘাতক (সাবোতাজকারি) হয়ে দুয়েকজন সর্বকালের মির জাফর (বিশ্বাসঘাতক) থেকেই যাবো। যে-কেউ একজন গো. আজম হতেই পারে। অর্থাৎ আমরা কেউ কেউ বাংরেজ (বাংলা+ইংরেজ), বাংরব (বাংলা+আরব) কিংবা বাংরকি (বাংলা+তুরকি) হবো। পয়লা বৈশাখের প্রতি অপ্রীতি যতোটা বাড়বে ‘নওরোজ’ কিংবা ‘ভ্যালেন্টাইন ডে’প্রীতি আমাদের বাড়তেই থাকবে। আমরা দেশের ঠাকুর পায়ে ঠেলে বিদেশের কুকুরকে ধরে চুমো খাবো। আর সরকার এমনি করে ‘নববর্ষ নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালালেই ব্যবস্থা’র মতো অপকর্মের জন্যে মাঝেমাঝেই সতর্কতবাণী উচ্চারণ করবেন এবং বরং রাজনীতিক ক্ষমতার ছত্রছায়াতেই অপকর্ম চলতেই থাকবে, একদা বাংলাকে বাঁয়ে ঠেলে উর্দুপ্রীতিতে মজে থাকা যেমন চলেছিল এবং বলতে গেলে এখনও বিভিন্ন রকমফেরে চলছে পুরোদমেই। অভিজ্ঞমহলের কেউ কেউ মনে করেন, সমাজটা সাধারণ মানুষের কল্যাণকামী হয়ে ধনবৈষম্যের অবসানে উত্তীর্ণ না হলে এইসব ইঁদুর বিড়ালের খেলা চলতেই থাকবে, এসপার ওসপার কীছুই হবে না, আর ফাঁকতালে রক্তপিপাসু টাকার কুমিরেরা মানুষের পায়ে দাঁতনখ বসিয়ে দেবেই। তাছাড়া ‘নববর্ষ নিয়ে অপপ্রচার চালানো’র মতো অনেক কীছুই হচ্ছে এই দেশে, বাঙালি জাতিসত্তার অন্তর্গত সংস্কৃতির বিরুদ্ধে এইসব অপকর্মের ফিরিস্তি অনেক লম্বা। বাপের নাম ভুলানোর কাজে ভীষণ পারঙ্গম সে-কর্মের ফিরিস্তির কথা এখানে কহতব্য নয়। এইসব বিজাতীয় বিতিকিচ্ছিরি কা-কারখানার পীড়ন থেকে রক্ষা পেতে হলে জাতিকে জাগরণমূলক সাংস্কৃতিক আন্দোলনের ভেতর দিয়ে অনুশীলিত হয়ে ঔপনিবেশিক বিচ্ছিন্নতার জগৎ থেকে স্বদেশে প্রত্যাবর্তনের প্রত্যয়ে দীপ্ত কার্যক্রম হাতে নিতে হবে, সকল প্রকার অপকর্ম হতে মুক্ত হতে গেলে এর কোনও বিকল্প নেই।

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com