1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

৭০ শতাংশ স্থাপনা বিধ্বস্ত, বাস্তুহারা গাজাবাসীদের বিপদ বাড়ছেই

  • আপডেট সময় সোমবার, ১ জানুয়ারী, ২০২৪

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
গাজার অনেক বাস্তুচ্যুত নাগরিকই এখন খোলা আকাশের নিচে, পার্কে দিন কাটাচ্ছেন। ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য জাতিসংঘের ত্রাণ বিষয়ক সংস্থা ইউএনআরডব্লিউএ-এর প্রধান জুলিয়েট তৌমা এ তথ্য জানিয়েছেন।
জাতিসংঘের মানবিক কার্যালয়ের (ওসিএইচএ) তথ্য অনুসারে, সা¤প্রতিক সময়ে মিশরের সীমান্তবর্তী গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফা শহরে কমপক্ষে এক লাখ মানুষ পালিয়ে গেছে।
মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল গত শনিবার জানায়, চলমান নির্বিচার হামলায় এখন পর্যন্ত উপত্যকাটির ৭০ শতাংশ ঘরবাড়ি ধ্বংস করেছে ইসরায়েল। স্যাটেলাইটে তোলা গাজা উপত্যকার ছবি বিশ্লেষণ এবং রিমোট সেন্সিং পদ্ধতি ব্যবহার করে এই তথ্য প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যমটি। যুদ্ধ চলমান থাকায় গাজার আশ্রয়হীন মানুষদের ত্রাণ দিতেও হিমশিম খাচ্ছে জাতিসংঘ।
ইউএনআরডব্লিউএ জানিয়েছে, জাতিসংঘকে সীমিত সহায়তা সরবরাহ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। জুলিয়েট তৌমা বলছেন, গাজায় দিন দিন মানবিক সহায়তার প্রয়োজনীয়তা আরও বাড়ছে। তিনি বলেন, গাজা উপত্যকায় যেসব এলাকায় আমাদের প্রবেশ করা উচিত সেখানে প্রবেশের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। তবে ইসরায়েলের দাবি, তারা মানবিক সহায়তা প্রবেশের ক্ষেত্রে কোনো সীমাবদ্ধতা আরোপ করেনি। বরং, এটি সংস্থাটির বিতরণের সমস্যা।
যুদ্ধ শুরুর পর ইসরায়েলি সেনাবাহিনী গাজায় ২৯ হাজার বোমা ফেলেছে বলে জানিয়েছে ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল। গাজার ঘরবাড়ি, কারখানা, ধর্মীয় উপসানলয়, স্কুল, শপিং মল এবং হোটেলসহ সব ধরনের ভবনে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। তবে কেবল সামরিক স্থাপনাতেই হামলা চালানোর দাবি করেছে ইসরায়েল।
এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) আবারও গাজার বাস্তুচ্যুত মানুষের মধ্যে সংক্রামক রোগের বিস্তারের বিষয়ে সতর্ক করেছে। ডব্লিউএইচওর প্রধান তেদ্রোস আধানম গেব্রেয়াসুস জানিয়েছেন, অক্টোবরের মাঝামাঝি থেকে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে গাজাজুড়ে রোগের সংখ্যা বেড়েছে। তিনি বলেন, জাতিসংঘের আশ্রয়কেন্দ্রেগুলোতে প্রায় ১ লাখ ৩৬ হাজার ৪০০ জনের ডায়রিয়ায়, ৫৫ হাজার ৪০০ জনের উকুন ও স্ক্যাবিসের এবং ১২৬ জনের মেনিনজাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে প্রবেশ করে আকস্মিক হামলা চালায় ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। ইসরায়েল দাবি করে এ হামলায় তাদের ১২০০ জন নিহত হয় এবং আরও ২৪০ জনকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপরেই গাজায় নির্বিচারে হামলা শুরু করে ইসরায়েল। হামাস-নিয়ন্ত্রিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দখলদার ইসরায়েলি বাহিনীর হামলায় গাজায় ২১ হাজার ৬৭২ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও ৫৬ হাজার ১৬৫ জন।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com