1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১০:৫০ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

বিশ্ব পরিসরে যদি শান্তি প্রতিষ্ঠিত করতে হয়…

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২৩

গত সোমবার (১১ ডিসেম্বর ২০২৩) দৈনিক সুনামকণ্ঠের একটি উদ্ধৃত সংবাদপ্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, “গুটি কয়েক রাষ্ট্রের ভেটো ক্ষমতায় মানবতা পদে পদে লাঞ্ছিত হচ্ছে : আখতারুজ্জামান”। শিরোনামের নিচে লেখা হয়েছে, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, গুটি কয়েক রাষ্ট্রের ভেটো ক্ষমতা বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাধা দেয়। এসব বৃহৎ শক্তিগুলোর কারণে মানবতা পদে পদে লাঞ্ছিত হচ্ছে। প্যালেস্টাইনে শান্তি প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপিত প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রসহ কয়েকটি দেশের ভেটো প্রয়োগের নিন্দা জানিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। রবিবার (১০ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে ৭৫তম বিশ্ব মানবাধিকার দিবস ২০২৩ উপলক্ষ্যে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।”
ফিলিস্তিনের গাজা এলাকায় ইজরাইলের মানবতাবিরোধী আক্রমণের ভয়াবহতায় সমগ্রবিশে^র সঙ্গে বাংলাদেশও বিশেষভাবে উদ্বিগ্ন। এই উদ্বিগ্নতা থেকে আমাদের সম্পাদকীয় দপ্তর রেহাই পেয়ে যায় এমন নয়, এখনেও যথারীতি তার আঁচ এসে লাগে। আমরাও ভাবিত হই। আমরা ড. মো. আখতারুজ্জামানের নিন্দা প্রকাশের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করছি, কিন্তু তার মতামতের সঙ্গে সঙ্গত বিবেচনায় একমত পোষণ করছি না।
ফিলিস্তিন কেন বিশে^র যে-কোনও স্থানে শান্তিপ্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে মার্কিন কিংবা কোনও ধনীদেশের অবস্থান কিংবা আচরণ বিশে^ বিশেষ দেশের বিশেষ ক্ষমতাপ্রাপ্তি অর্থাৎ ভেটো শক্তিধারিত্ব থেকে নিয়ন্ত্রিত হয় না, বরং সেটার নিয়ন্ত্রণ সমগ্র বিশে^ কোন ধরনের আর্থসামাজিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত আছে তার উপর নির্ভর করে। বর্তমান বিশে^ সমাজসাংস্থিতিক এই ব্যবস্থাকে বলে পুঁজিবাদ কিংবা আরও মূর্তনির্দিষ্ট করে বললে বলতে হয়, পুঁজিবাদের সর্বোচ্চ পর্যায় সা¤্রাজ্যবাদ। এই সা¤্রাজ্যবাদী অর্থনীতি যতোদিন পৃথিবীতে বর্তমান থাকবে ততোদিন পর্যন্ত বিশে^র কোথাও শান্তি প্রতিষ্ঠিত হতে পারে না, কিংবা হবে না। ইসরাইল ফিলিস্তিনের উপর আক্রমণ অব্যাহত রাখবেই এবং আমেরিকাসহ তার সহযোগী রাষ্ট্রসমূহ ইসরাইলকে সমর্থন করে যাবেই, তাতে ন্যায়-অন্যায়ের বা মানবিকতা অমানবিকতার কোনও বোধ কাজ করবে না, কাজ করবে কেবল মুনাফার বোধ, অর্থাৎ যাবতীয় সম্পদ আত্মসাতের প্রেরণা। কাজেই বিশে^ শান্তি প্রতিষ্ঠত করতে চাইলে বিশ^ নেতাদেরকে একমত হয়ে পুঁজিবাদকে পাল্টে দিতে হবে। পুঁজির শোষণক্ষমতা-স্বভাবকে নিঃশেষ করে দিয়ে সেখানে শোষণহীন সমাজসাংস্থিতিকতাকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। এর কোনও বিকল্প নেই। কেউ সমাজতন্ত্র না চাইতে পারেন কিন্তু তাঁকে সমাজতন্ত্রের একটি বিকল্প চাইতেই হবে, যদি শান্তি চান।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com