1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০২:৩৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

শতবর্ষী পুকুরটি এখন আবর্জনার ভাগাড়

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২৩

নির্মল চন্দ্র সরকার ::
প্রয়োজনীয় সংস্কার ও খনন না করায় মধ্যনগর উপজেলার মধ্যনগর বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন শতবর্ষী প্রাচীন সরকারি পুকুরটি এখন ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে এই পুকুরটির বেশির ভাগ স্থানই ভরাট হয়ে গেছে। দ্রুত সংস্কার ও খনন করে পুকুরটিকে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে এনে এটির সৌন্দর্য্য বর্ধনের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
মধ্যনগর উপজেলা প্রশাসন, এলাকাবাসী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চারটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মধ্যনগর থানাটি আগে ধর্মপাশা উপজেলার অধীনে ছিল। এটি উপজেলায় উন্নীত হওয়ায় গত বছরের ২৪ জুলাই থেকে নবগঠিত মধ্যনগর উপজেলায় প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু হয়। এখানে লক্ষাধিক মানুষের বসবাস। মধ্যনগর উপজেলার মধ্যনগর ইউনিয়নের মধ্যনগর বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়- সংলগ্ন এলাকায় শতবর্ষী প্রাচীন এই পুকুরটির অবস্থান। এর আয়তন ১
একর ৯৬ শতক। মধ্যনগর এলাকাটি তৎকালীন গৌরীপুরের জমিদার বীরেন্দ্র কিশোর রায় চৌধুরীর অধীনে ছিল। ১৯১৫ সালের দিকে এলাকাবাসীর পানীয় জলের চাহিদা মেটাতে এটি খনন করা হয়।
মধ্যনগর বাজার উন্নয়ন কমিটির পক্ষ থেকে এই পুকুরটি দু-তিনবার সংস্কার করা হয়। মধ্যনগর বাজারের ছোটখাটো অগ্নিকা-ের ঘটনাগুলো এই পুকুরের পানি দিয়েই নিবারণ করা হতো। কিন্তু ৩০ থেকে ৩৫ বছর ধরে পুকুরটি সংরক্ষণে আর কারও নজর নেই। পুকুরটির বেশকিছু জায়গা স্থানীয় লোকজনদের অবৈধ দখলে ছিল। তিন বছর আগে ধর্মপাশা উপজেলা প্রশাসন এই পুকুরটি থেকে অবৈধ দখলদারদের সেখান থেকে উচ্ছেদ করেন।
সরেজমিনে গতকাল বৃহ¯পতিবার বিকেল তিনটার দিকে গিয়ে দেখা যায়, পুকুরটির উত্তরপাশে ময়লা আবর্জনার স্তূপ। চারদিকে বসতবাড়িসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে। দীর্ঘবছর ধরে এটি সংস্কার না করায় পুকুরটিতে আগাছায় ভরে গেছে।
মধ্যনগর ইউনিয়নের মধ্যনগর বাজারের বাসিন্দা ব্যবসায়ী শম্ভু রায় বলেন, ধর্মপাশা উপজেলা প্রশাসন তিন বছর আগে এই পুকুরটি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করলেও এটিকে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা ও সৌন্দর্য বর্ধনকরণের জন্য কর্তৃপক্ষ কোনো উদ্যোগ নেয়নি। দ্রুত এটি খনন ও সংস্কার করার জোর দাবি জানাচ্ছি।
মধ্যনগর বাজারের বাসিন্দা কলেজ শিক্ষার্থী আবীর হাসান বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানের সঙ্গে মধ্যনগর বাজারটির নৌ যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো থাকায় এই বাজারটি সুনামগঞ্জ জেলার মধ্যে ব্যবসায়িক প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। শুষ্ক মৌসুমে নদীতে পানি থাকে না। তাই যেকোনো ধরনের অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটলে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষায় পানীয় জলের কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই দ্রুত এই পুকুরটি খনন করার জোর দাবি জানাচ্ছি।
মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সঞ্জিব রঞ্জন তালুকদার টিটো বলেন, মধ্যনগর বাজারের সরকারি এই পুকুর এখানকার নানা ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সাক্ষী। শতবর্ষী এই প্রাচীন পুকুরটি রক্ষায় এটি সংস্কার ও খনন একান্ত প্রয়োজন। উপজেলা মাসিক সমন্বয় সভায় একাধিকবার বিষয়টি আমি উত্থাপন করেছি।
মধ্যনগর উপজেলার বংশীকুন্ডা দক্ষিণ ইউনিয়নের রৌহা গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা নূরুল ইসলাম বলেন, পুকুরটি বয়স শত বছর পেরিয়ে গেছে। এই পুকুরটি পানি এক সময় এলাকাবাসী পান করতো। কিন্তু ৩০ থেকে ৩৫ বছর ধরে এটি সংস্কার ও খনন না করায় বেশির ভাগ স্থানই এখন ভরাট হয়ে গেছে। এই প্রাচীন পুকুরটি খনন ও সংস্কার করা অতীব জরুরি।
মধ্যনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অতীশ দর্শী চাকমা বলেন, আমি এখানে নতুন এসেছি। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে লিখিত আবেদন পেলে প্রাচীন এই শতবর্ষী পুকুরটি রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com