1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602
সংবাদ শিরোনাম

মাঠে স্বতন্ত্র, চ্যালেঞ্জে নৌকা

  • আপডেট সময় শনিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২৩

বিশেষ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জের ৫টি সংসদীয় আসনের ৪টিতেই আওয়ামী লীগের ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’রা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ভোটের মাঠে নৌকার প্রার্থীকে ছাড় দিতে নারাজ তারা। দলীয় হাইকমান্ডের ‘নো অ্যাকশন’ সিগন্যাল না থাকায় মনোনয়নবঞ্চিতরা কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন। স্বতন্ত্রের মোড়কে নৌকার প্রার্থীদের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হিসাবে তারা আবির্ভূত হয়েছেন। তবে, সুনামগঞ্জ-৩ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের বিপরীতে কোনো দলীয় নেতা ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে দাঁড়াননি।
সুনামগঞ্জ-১ :
সুনামগঞ্জ-১ (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা, মধ্যনগর) আসনে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক স¤পাদক ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাড. রনজিত চন্দ্র সরকার। তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা আ.লীগের সদস্য ও জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সেলিম আহমদ। তারা দু’জনই আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।
সুনামগঞ্জ-২ :
সুনামগঞ্জ-২ (দিরাই-শাল্লা) আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন নতুন মুখ চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ (আল-আমিন চৌধুরী)। তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ড. জয়া সেনগুপ্তা। এছাড়াও নির্বাচনী লড়াইয়ে মাঠে রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা যুক্তরাজ্য প্রবাসী ড. শামসুল হক চৌধুরী। তারা দুজনই নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন।
সুনামগঞ্জ-৪ :
সুনামগঞ্জ-৪ (সুনামগঞ্জ সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক। এই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহ-সভাপতি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন এবং সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোবারক হোসেন।
সুনামগঞ্জ-৫ :
সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারাবাজার) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক। এই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ চৌধুরী। তিনি সুনামগঞ্জ-৫ আসনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।
স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জানান, যেহেতু দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নির্বাচনটি অংশগ্রহণমূলক করার জন্য ঘোষণা দিয়েছেন। সেখানে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে বাধা নেই। তাছাড়া দলীয় নেতাকর্মীদের দাবির কারণে এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি নিশ্চিতের জন্য তারা স্বতন্ত্র প্রার্থিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
এদিকে, সুনামগঞ্জ-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে জাতীয় নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ওই আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী রনজিত সরকার। তবে মোয়াজ্জেম হোসেন রতন তাঁর আহ্বানে সাড়া দেননি।
আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী রনজিত সরকার বলেন, আমাদের আওয়ামী লীগের পক্ষে থাকতে হবে। যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন, যদি সাবেক এমপিও হয়ে থাকেন, তাহলে আমি উনাকে আহ্বান জানাতে চাই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন সেটির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে তারা যে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। আমরা সবাই মিলে নৌকাকে জয়ী করতে চাই।
এ ব্যাপারে বর্তমান সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমি নির্বাচনে নেমেছি। আমি নির্বাচনের প্রচার প্রচারণায় নামবো। প্রার্থিতা প্রত্যাহার করবো না। কারণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবার জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। সেজন্য আমি
আগামী নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি।
সুনামগঞ্জের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থীরাই নৌকার বিজয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবেন। সুনামগঞ্জ-১ আসনে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এবং সেলিম আহমেদ দু’জনই শক্তিশালী প্রার্থী। এক্ষেত্রে আ.লীগ প্রার্থী রনজিত সরকারকে কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। এছাড়া সুনামগঞ্জ-২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য ড. জয়াসেন গুপ্তার রয়েছে নিজস্ব ভোট ব্যাংক। এ জন্য নৌকার মাঝি আল-আমিন চৌধুরীকেও তীব প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখোমুখি হতে হবে।
রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা জানান, সুনামগঞ্জ-৪ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছেন। এর মধ্যে দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমন এবং সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেন। এই অবস্থায় ভোটের সমীকরণে সুনামগঞ্জ-৪ আসনে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী ড. মোহাম্মদ সাদিক পড়বেন বড় চ্যালেঞ্জের মুখে। আ.লীগের ভোট ভাগাভাগি হলে এই ক্ষেত্রে জাতীয় পার্টির প্রার্থীর বিজয়ের বন্দরে পৌঁছা অনেকটাই সহজ হবে। তাছাড়া সুনামগঞ্জ-৫ আসনে নৌকার প্রার্থী মুহিবুর রহমান মানিকও রয়েছেন চ্যালেঞ্জের মুখে। কারণ স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ চৌধুরীও শক্তিশালী প্রার্থী। তার রয়েছে নিজস্ব ভোট ব্যাংক। এই আসনে আ.লীগ প্রার্থী মুহিবুর রহমান মানিক এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম আহমদ চৌধুরীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com