1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৩২ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602
সংবাদ শিরোনাম

মৃত্যুপথযাত্রী পৃথিবীকে রক্ষা করতে হবে

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২৩

গণমাধ্যমে (দৈনিক সুনামকণ্ঠ ॥ শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০২৩) একটি প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে। বলা হয়েছে যে, হাওরবেষ্টিত ভাটির জনপদ তাহিরপুর উপজেলায় রয়েছে বেশকটি নান্দনিক পর্যটন ¯পট। এর মধ্যে অন্যতম দেশের দ্বিতীয় মিঠাপানির জলাভূমি ওয়ার্ল্ড রামসার হেরিটেজ সাইট টাঙ্গুয়ার হাওর, শহীদ সিরাজ লেকসহ (নিলাদ্রীলেক) বেশকটি পর্যটন ¯পট। সব শেষে বলা হয়েছে, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুপ্রভাত চাকমা বলেন, বিকিবিলের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়া হবে।
এমনি প্রতিশ্রুতি সম্পন্ন প্রতিবেদন ছাপা হচ্ছে বিগত কয়েকে দশক যাবৎ এবং বলা বাহুল্য যে, কোনওই কার্যকর উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে না। অর্থাৎ প্রতিবেশের কিংবা প্রাকৃতিক পরিবেশের অবক্ষয় ঠেকানো যাচ্ছে না, বরং অবক্ষয় ক্রমাগত নিয়তি নির্ধারিত নিয়মের মতো অনিবার্যতায় পর্যবসিত হচ্ছে। এই অনিবার্যতার প্রকৃষ্ট উদাহরণ হলো একদা চিরযৌবনা টাঙ্গুয়ার হাওরের বিগত যৌবনায় পর্যবসিত হওয়া, এখন যাকে ‘জলের মরুভূমি’ বলে অভিহিত করা হচ্ছে। চিরযৌবনা এই জন্য যে, টাঙ্গুয়ার হাওরের সমৃদ্ধ জীববৈচিত্র্যটি প্রায় দেড় কোটি বছরের পুরনো। চিরযৌবনা অথচ পুরনো টাঙ্গুয়ার হাওর বর্তমানে বিগত যৌবনা হয়ে পড়ার বিষয়টি সম্পন্ন হয়েছে বিগত দশক কয়েক যাবৎ মনুষ্য কর্তৃক টাঙ্গুয়া হাওরের জীববৈচিত্র্য রক্ষার সচেতন প্রয়াসের ভেতর দিয়ে। এমনি অবক্ষয় ঘটেছে সারাদেশের প্রাকৃতিকসম্পদে সমৃদ্ধ স্থানগলোতে, সেটা জলে-জঙ্গলের সর্বত্র। বিল-ঝিল, খাল-বিল, হাওর-বাঁওড়, নদী-নালা, পাহাড়-পর্বতের সবখানে কার্যকর রয়েছে অতিরিক্ত লোকসংখ্যার চাপে সৃষ্ট একই অবক্ষয়ের কর্মক্রিয়া।
বিকিবিলের মতো সারা বাংলাদেশটাই বিশেষ করে গারোপাহাড়ের পাদদেশ লগ্ন নি¤œাঞ্চল সুনামগঞ্জের পূর্ণ পরিসীমা কিংবা সমগ্র ভাটিবাংলা অতুলনীয় জলজঙ্গলের সৌন্দর্যে একদা রূপবতী যুবতী ছিল, তার এক অঙ্গভঙ্গের কানায় কানায় ছিল বিশ^ব্রহ্মা-বিরল শতকোটি রূপের সমাহার। অর্থাৎ মাছ-গাছ-গুল্ম-লতা আর জলের তলের জঙ্গলে ছিল সমৃদ্ধ। এখন বলতে গেলে তার ৯৮ শতাংশ বিলুপ্ত হয়ে গেছে, আগেই বলেছি, অতিরিক্ত জনমানুষের জীবননির্বাহের প্রয়োজনীয় চাপে। প্রকৃতি তার নিজের সমস্ত মৌলিক বৈশিষ্ট্য বজায় রেখে যখন মানব সভ্যতাকে আর লালন করতে পারে না তখনই তার অবক্ষয় দেখা দেয়। এই অবক্ষয় প্রতিরোধে মানব সভ্যতাকেই এগিয়ে আসতে হবে। আর যদি প্রকৃতির অবক্ষয়বিরোধী মানবপ্রচেষ্টা ব্যর্থ হয় তবে প্রকৃতি বিনাশের সঙ্গে মানবসভ্যতার বিনাশ অনিবার্য হয়ে উঠবে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। ভুলে গেলে চলবে না যে, মানবসভ্যতাও প্রকৃতির সঙ্গে অনিবার্যভাবে অবিচ্ছেদ্য ও প্রকৃতির উপর নির্ভরশীল একটি অংশ। একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুপ্রভাত চাকমার আন্তরিক প্রচেষ্টায় একটি বিকিবিলের অবশিষ্ট সৌন্দর্য রক্ষায় জয় লাভ করে কীছু আসবে যাবে না, বরং সেটা সমুদ্রের সঙ্গে একবিন্দু শিশির কণা যোগ করার সামিল হবে মাত্র। এমতাবস্থায় যে-বিশাল পুনরুদ্ধার কাজে নামতে হবে তা কেবল বাংলাদেশের একার ব্যাপার নয়, পৃথিবী নামক সমগ্র বিশে^রই এটি একটি অবশ্য করণীয় কর্তব্য। মৃত্যুপথযাত্রী পৃথিবীকে রক্ষা করতে হলে সমগ্র বিশ^কেই একযোগে কাজে নামতে হবে। স্বল্প পরিসরের সম্পাদকীয়তে এর বেশি কীছু আপাতত বিধৃত করা সম্ভব নয়।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com