1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৮:১৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সুনামগঞ্জের সড়ক যোগাযোগে আসবে বৈপ্লবিক পরিবর্তন : একনেকে ১৭৪২ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

 

বিশেষ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়ক, পাগলা আউশকান্দি সড়ক, ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ সড়ক, সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর সড়কসহ সুনামগঞ্জের সড়কপথের উন্নয়নে ১ হাজার ৭৪২ কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন হয়েছে। সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের সুনামগঞ্জের বিভিন্ন অংশ ফোর লেনসহ ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ অংশও ফোর লেন হবে। পাশাপাশি পাগলা আউশকান্দি সড়ক ও ছাতক-দোয়ারাবাজার সড়কও প্রশস্ত হবে। সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর সড়কে একাধিক সেতু নির্মাণ এবং জগন্নাথপুরের কাটাগাঙ নদীতেও সেতু নির্মিত হবে।
মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এই প্রকল্পসহ দেশের ১৯টি প্রকল্প অনুমোদন করেন জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ সড়ক বিভাগের আওতায় প্রকল্পগুলো অনুমোদন লাভ করায় খুশি সুনামগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ। এই সড়ক উন্নয়নের ফলে জেলাবাসীর যাতায়াত আরো সুগম হবে বলে মনে করেন সুধীজন। এদিকে সড়ক বিভাগের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন আগামী অক্টোবর মাসে টেন্ডার প্রক্রিয়ার কাজ সম্পন্ন করে চলতি বছরের শেষ দিকেই কাজের উদ্বোধন করা যাবে।
সুনামগঞ্জ সড়ক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের শহরাংশে ৪ কিলোমিটার সড়ক আরসিসি ফোর লেন করা হবে। এই সড়কের শান্তিগঞ্জ উপজেলায় আরো ২ কিলোমিটার আরসিসি ফোরলেন এবং ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ সড়ক প্রশস্তসহ এই সড়কের সাড়ে তিন কিলোমিটার আরসিসি ফোরলেন করা হবে। এছাড়া ডাবর থেকে জগন্নাথপুর-আউশকান্দি সড়ক পুরোটাই ১৮ ফুট থেকে ৩৪ ফুট প্রশস্ত করা হবে যাতে সহজে রাজধানী ঢাকায় যোগাযোগ করা যায়। এই সড়কের জগন্নাথপুরের ঝুঁকিপূর্ণ কাটাখাল বেইলি সেতু দৃষ্টিনন্দন করে নির্মিত হবে। এই নদীতে ৩০০ মিটার দৈর্ঘ্যরে সেতু নির্মিত হবে। এছাড়াও সিলেট-সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর-আউশকান্দি, ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ সড়কের যেসব এলাকা বন্যায় তলিয়ে যায় সেসব এলাকাও উঁচু করা হবে। এই প্রকল্পে বারুংকা, চালবন্দসহ সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর সড়কের একাধিক বেইলি সেতু ভেঙে নতুন করে আরসিসি সেতু নির্মাণ করা হবে। এছাড়াও ছাতক ও দোয়ারাবাজার সড়কের এক কিলোমিটার সড়ক নদী ভাঙ্গন রোধ থেকে রক্ষায় বিশেষ কাজ করা হবে।
এদিকে এই প্রকল্পগুলো অনুমোদনে নেপথ্যে থেকে কাজ করায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সুধীজন। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।
সুনামগঞ্জের সড়ক বিভাগের উন্নয়নের এই প্রকল্পে সুনামগঞ্জ অংশে ব্যয় হবে ১ হাজার ৭৪২ কোটি টাকা এবং হবিগঞ্জের অংশে ব্যয় হবে ৯৩৯ কোটি টাকা। সড়কের উন্নয়নে বৃহৎ এই কাজ সম্পন্ন হলে সুনামগঞ্জ জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে বলে মনে করেন সুধীজন।
মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মঈনুল হক বলেন, আমাদের সড়কগুলোর অবস্থা বেহাল। জাতীয়ভাবে আমরা এ কারণে পিছিয়ে আছি। আমাদের পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে আমাদের অবহেলিত অঞ্চলের উন্নয়নে নিয়মিত প্রকল্প পাস করিয়ে আমাদেরকে জাতীয় উন্নয়ন সমতায় পৌঁছে দিচ্ছেন। সর্বশেষ একনেকে যে প্রকল্প পাস হয়েছে তা বাস্তবায়িত হলে আমাদের যোগাযোগ উন্নয়নে আমূল পরিবর্তন আসবে।
সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম প্রাং বলেন, একনেকে সুনামগঞ্জের সড়ক বিভাগের জনগুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। এই কাজ বাস্তবায়িত হলে সড়কপথে বিশাল উন্নয়ন হবে। সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট ও রাজধানী ঢাকায় সহজে ও কম সময়ে যাতায়াত করতে পারবেন জেলাবাসী। আমরা আগামী অক্টোবর মাসেই দরপত্রের কাজ শেষ করে চলতি বছরই কাজ শুরু করতে পারবো।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জের উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিক। একনেকে প্রকল্পগুলো অনুমোদনের আগেও তিনি সুনামগঞ্জের প্রকল্প আছে কি না হাসিমুখে জানতে চেয়েছিলেন। আমি নেত্রীকে জনদাবির কথা অবগত করেছি। তিনি সুনামগঞ্জসহ দেশের উন্নয়ন সমতায় পিছিয়ে থাকা এলাকার উন্নয়নে বরাবরই আন্তরিক।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com