1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

দেশের উন্নয়ন চাইলে আ.লীগকে ভোট দিতে হবে

  • আপডেট সময় সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
দেশের উন্নয়ন চাইলে আওয়ামী লীগকে ভোট দিতে হবে – মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে উন্নয়ন আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। প্রতিটি শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্য একমাত্র আওয়ামী লীগই কাজ করেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি রবিবার (৬ আগস্ট) গণভবনে আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এ মন্তব্য করেন।
বিএনপিকে খুনিদের দল আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এদের হাতে দেশ ও দেশের মানুষ নিরাপদ না। সরকারপ্রধান বলেন, অর্থ স¤পদের দিকে না তাকিয়ে মানুষের সেবা করে তাদের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। এর আগে, সকালে শত সংগ্রামে অজ¯্র গৌরবে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে স্লোগানে শুরু হয় আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অংশ নেন প্রায় তিন হাজার নেতাকর্মী। নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবেই অনুষ্ঠিত হয় সভাটি।
আওয়ামী লীগের বিদেশে কোনো প্রভু নেই উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণই দলটির প্রভু। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশের জনগণই হচ্ছে আওয়ামী লীগের শক্তি। আওয়ামী লীগের বিদেশে কোনো প্রভু নাই। জনগণই আওয়ামী লীগের প্রভু। তিনি আরও বলেন, জনগণই ভোটের মালিক। জনগণের ভোটের অধিকার সুরক্ষিত করতে শুধু আওয়ামী লীগই সংগ্রাম করেছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার পরে দেশে চক্রান্ত শুরু হয়। সেই চক্রান্তে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মী ও জনপ্রতিনিধিদের হত্যা করা হয়। ২১ বছর আমাদের শুধু আহতদের চিকিৎসা ও মরদেহ টানতে হয়েছে। বিএনপির সীমাহীন দুর্নীতি ও দুঃশাসনের ফলে এ দেশে সামরিক শাসন জারি হয়েছিল। এক-এগারোর সরকার এসেছিল, কিন্তু আওয়ামী লীগ দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনেছে।
তিনি আরও বলেন, উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে ২০২৬ সালে বাংলাদেশ যাত্রা শুরু করবে। জনগণ চাইলে দেশ এগিয়ে যাবে। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ভোট দিতে হবে।
দলের সভাপতি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, সবাই একযোগে কাজ করে বাংলাদেশের উন্নয়নের গতিধারাটা যাতে অব্যাহত থাকে, আপনারা সেই প্রচেষ্টা চালাবেন। জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়ন করে তার প্রিয় জনগণের ভাগ্য পরিবর্তন করে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলব, এটাই আমাদের প্রতিজ্ঞা।
এ সময় তিনি উপস্থিত নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনাদের পদচারণায় গণভবন প্রাঙ্গণ আজ ধন্য। অনেকদিন পর আপনাদের সঙ্গে কথা বলার একটা সুযোগ হলো।
আগামী দিনে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের এই উন্নয়নের কথাগুলো সাধারণ মানুষের কাছে আপনাদের বলতে হবে। কারণ বারবার না বললে মানুষের মনে থাকে না। দুঃখ কষ্টের দিনগুলি মানুষ তো সুখ পেলে ভুলে যায় আগে কি অবস্থায় ছিল?
সরকারপ্রধান বলেন, আজকে মানুষ শান্তিতে ঘুমাতে পারে, কাজ করতে পারে, কাজ পায়। আমরা বেকার যুবকদের জন্য কর্মসংস্থান ব্যাংক করে দিয়েছি। বিনা জামানতে দুই লাখ টাকা তারা লোন নিতে পারে। ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারে। এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বিশেষ ছাড় দিয়ে টাকা পয়সা দেয়া হচ্ছে যাতে ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারে।
তিনি আরও বলেন, আমরা স্টার্ট আপ প্রোগ্রাম করেছি। যেন নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে। প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে প্রতিটি শ্রেণি-পেশার মানুষ তাদের জন্য আওয়ামী লীগই কাজ করেছে। আগে অন্য কেউ কোনোদিন এই মানুষগুলোর কথা ভাবেওনি, কাজ করেওনি। তাই সেই কথাগুলো মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। এ কথাটা মাথায় রাখবেন এবং সবাই মিলেমিশে কাজ করবেন।
বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন, এই দেশের কামার, কুমার, জেলে, তাঁতী কোনো শ্রেণি পেশার মানুষ নেই যাদের ভাগ্য পরিবর্তনে আওয়ামী লীগ কাজ করে নাই। আমরা সবার জন্য কাজ করেছি, কাজ করব। এটাই আমাদের প্রতিজ্ঞা।
জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের উন্নয়নের ধারায় সে পরিবর্তনটা এনেছি।
তিনি আরও বলেন, জনগণের কাছে আমরা দায়বদ্ধ। জনগণের কল্যাণে কাজ করি। কতটুকু করতে পেরেছি আর ভবিষ্যতে কি করব সেইটুকুই আমরা জনগণকে জানাই। এ ছাড়া আর কাউকে না।
তিনি উল্লেখ করেন, ডিজিটাল যুগ আছেই সমানে আমাকে এসএমএস পাঠাতে থাকেন। আমিও পরে দেখি যেটা প্রয়োজন উত্তরও দেই। এইজন্য ফোনও অনেক সময় লক হয়ে যায়। সেটা তো হয়ই। তবু ভাল লাগে অন্তত তথ্যগুলি জানতে পারি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com