1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

জামায়াত নেতা ও তার অনুসারীদের গ্রেপ্তারে আল্টিমেটাম

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার ::
মসজিদে সাম্প্রদায়িক-রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদ করায় জামায়াত-শিবিরের হামলায় আহত হন আওয়ামী লীগ নেতা কাউসার আহমদ। এর প্রতিবাদে ছাতক উপজেলা আ.লীগ বিক্ষোভ সমাবেশে করেছে। এ সময় হামলাকারীদের এক সপ্তাহের মধ্যে গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দেন ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।
বুধবার বিকেলে ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।
গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দেয় ছাতক উপজেলার সৈদেরগাও গোবিন্দগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মখলিছুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. ফজলুর রহমান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত লাহিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কদর আলী, আব্দুল মোছাব্বির, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সামাদ, আব্দুল করিম, আফজাল হোসেন, ফারুক সরকুম, খালেদ হাসান, ছমরু মিয়া, আনসার আলী, আবুল কাশেম, রইছ আলী, পরেশ চন্দ, পারভেজ হোসেন, মোহাম্মদ আলী মুজিব, সুজন মিয়া, শাহাবুদ্দিন, আব্দুর রশিদ, আকমল হোসেন, মাসুদ পারভেজ, রিপন চন্দ্র দাস, মোস্তাকিম রায়হান, আব্দুল হান্নান আঙ্গুর প্রমুখ।
প্রতিবাদ কর্মসূচিতে গোবিন্দগঞ্জ সৈদেরগাও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক বলেন, সম্প্রতি গোবিন্দগঞ্জ জামে মসজিদের খতিব জামায়াতের সিলেট মহানগর কমিটির সদস্য আব্দুস সালাম আল মাদানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকবাল হলের নাম আওয়ামী লীগ সরকার হিন্দুর নামে নামকরণ করেছেসহ রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্য দেন। এর প্রতিবাদ করেন গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও গোবিন্দগঞ্জ সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাউসার আহমদ। তিনি তাকে মসজিদের মিম্বরে দাঁড়িয়ে মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর ও রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্য না দিতে অনুরোধ করেন। তিনি প্রতিবাদ করায় আব্দুস সালাম মাদানীর নির্দেশে জামায়াত শিবিরের নেতারা কাউসার আহমদের উপর মসজিদের ভিতর হামলা করে। তিনি গুরুতর আহত হন। এই ঘটনায় পরবর্তীতে মামলা হলেও কোন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। আমরা অবিলম্বে মসজিদের ভিতর মুসল্লির উপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এবং তাদের কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছি। এক সপ্তাহের মধ্যে আমাদের দাবি মানা না হলে আমরা আরো কঠোর কর্মসূচি দেব।
প্রতিবাদী কর্মসূচির প্রধান অতিথি ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ফজলুর রহমান বলেন, জামায়াত-শিবিরের কাছে মসজিদ মাদরাসা কোথাও নিরাপদ নয়। তারা রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্যই নয়, মসজিদের ভিতরেও ধর্মীয় উস্কানিমূলক ও বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দিয়ে সহজ সরল ধর্মপ্রাণ মানুষদের বিভ্রান্ত করছে। এর প্রতিবাদ করায় আমাদের এক নেতাকে মসজিদের ভিতরে পিটিয়েছে। সাধারণ মুসল্লিরা এগিয়ে না গেলে তারা তাকে মসজিদের ভিতরই মেরে ফেলতো। এ ঘটনায় গত ১ ফেব্রুয়ারি মামলা হলেও আব্দুস সালাম মাদানীসহ তার অনুসারী হামলাকারী কেউই গ্রেপ্তার হয়নি। আমরা তাদেরকে গ্রেপ্তার ও এলাকায় তাদের কার্যক্রম ও ধর্মীয় উস্কানীমূলক কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছি। আমাদের আল্টিমেটাম এক সপ্তাহের। মাদানীসহ তার অনুসারীদের গ্রেপ্তার করা না হলে আমরা আবারও রাজপথে নেমে কঠোর কর্মসূচি দেব।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com