1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

এদের খোঁজে বের করুন এবং শাস্তি দিন

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

‘তাহিরপুরে বিলবোর্ড কেটে ফেলার অভিযোগ’ দারুণ একটি শিরোনাম। গত বুধবার (০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩) একটি দৈনিকের পাতায় এমন শিরোনাম ছাপা হয়েছে দেখে মোটেও বিস্মিত হওয়ার কীছু আছে বলে মনে হয় না। কারণ, বোধকরি পৃথিবীতে বাংলাদেশ ছাড়া অন্য কোনও এমন দেশ নেই, সে-দেশ যতই পশ্চাৎপদ হোক না কেন, যে-দেশের মানুষরা মানুষ হিসেবে এতোটা নিকৃষ্ট পর্যায়ে ছিল বা রয়ে গেছে। সমাজ সংস্থিতির আর্থনীতিক ভিত যতোটাই উন্নত হোক না কেন, দেশের গরিবি যতোটাই হটানো যাক না কেন, চিত্তোৎকর্ষের দিক থেকে এই দেশের মানুষ, সংখ্যায় তারা স্বল্প হলেও, গরিবই রয়ে গেছে। এরাই এই দেশের সমাজ পরিসরে সংঘটিত সকল সামাজিক রাজনীতিক অস্থিরতা, পশ্চাৎপদতা, অসামাজিক কার্যক্রম, সর্বপ্রকার দুর্নীতিও সর্বোপরি আস্ত আর্থব্যবস্থাকে আত্মসাৎপ্রবণ করে তোলার জন্য দায়ি। এখানে তারা সম্পদ লুণ্ঠনের রাজত্ব কায়েম করে রেখছে এবং সেটা অব্যাহত রাখতে চায়। সমাজের সামষ্টিক স্বার্থের চেয়ে ব্যক্তি স্বার্থ তাদের কাছে বড়। তা-না হলে বিল বোর্ডগুলো এইভাবে কেটে ফেলার মানসিক শক্তি তারা কোথায় পেল? সহজেই বোধোদয় হয় যে মনের দিক থেকে তারা অত্যন্ত ছোট ও নিকৃষ্ট। সামাজের অগ্রগতিকে প্রতিহত করে আত্মস্বার্থের উন্নতি ছাড়া আর কীছু তাদের কাম্য নয় – তারা এতোটাই নিচ। এই কারণে ‘আমার বাড়ি আমার খামার, আশ্রয়ণ, ডিজিটাল বাংলাদেশ, শিক্ষা সহায়তা কার্যক্রম, নারীর ক্ষমতায়ন কার্যক্রম সমূহ, সবার জন্য বিদ্যুৎ, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি, কমিউনিটি ক্লিনিক ও শিশুবিকাশ, বিনিয়োগ বিকাশ ও পরিবেশ সুরক্ষা। এছাড়াও ছিল টাঙ্গুয়ার হাওরের সরাসরি রোপণ করা বিশাল হিজল করচ বাগানের দৃশ্য, শহীদ সিরাজ লেক, বারিক্যার টিলা ও শিমুল বাগানের ছবি’-এর প্রচার সহায়ক এইসব বিলবোর্ড তাদের পছন্দ নয়, ‘যে ছবিগুলো টাঙ্গুয়ার হাওরে আগত পর্যটকদের স্বাগত জানাতো।’ এরা প্রকৃতপ্রস্তাবেই ঘৃণা করার উপযুক্ত। কোনও সরকার কারও পছন্দ না হতে পারে, সেটা তার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়। কিন্তু না-পছন্দের সে-সরকার যে-সব জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম গ্রহণ করবে সে-সব কার্যক্রম কেন সরকারের দোষে না – পছন্দের হয়ে যাবে? এটা তখনই না-পছন্দের হয়, আর তার কারণ একটাই, যখন সরকার নয়, বরং সরকার গৃহীত কাজটাই তার পছন্দ নয়। অর্থাৎ জনকল্যাণমূলক কাজ তারা চায় না। এই কাজগুলো তাদের স্বার্থকে রক্ষা করেনা, জনসাধারণের স্বার্থকে সুরক্ষা দেয়। এরা আসলে কোনও সরকারবিরোধী নয়, এদের কোনও সরকার নেই, এরা কেবল জনবিরোধী। এটাই এদের রাজনীতি। এদেরকে খোঁজে বের করুন এবং শাস্তি দিন।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com