1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:১৮ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

ছোটভাইকে হত্যার অভিযোগে বড়ভাই গ্রেপ্তার

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার ::
দোয়ারাবাজার উপজেলার কাঠালবাড়ি গ্রামে পারিবারিক জমি নিয়ে কলহের জেরে মারামারির সময় বড় ভাইয়ের লোহার শাবলের আঘাতে ছোট ভাইয়ের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯ এর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন প্রধান অভিযুক্ত রিপন মিয়া। গত রোববার (২৭ নভেম্বর) রাতে দোয়ারাবাজার থানার কাঠালবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে (র‌্যাব)। রিপন কাঠালবাড়ী এলাকার বাসিন্দা সুরুজ আলীর ছেলে।
গত ২৫ নভেম্বর সকালে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে মারামারির এক পর্যায়ে রিপন তার ছোট ভাই হিরন মিয়াকে শাবল দিয়ে পেটে আঘাত করলে ওই দিন রাতে তিনি ওসমানী হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সুরুজ আলীর ৩ ছেলের মধ্যে পারিবারিক জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। শুক্রবার সকালে বাড়ির পাশে পুকুরে তাদের মেজো ভাই নূর মোহাম্মদ মিল্টন মাছ ধরতে গেলে বড় ভাই রিপন মিয়া ও তার স্ত্রী রোকসানা বেগম বাধা দেন। এসময় ৩ ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ছোট ভাই হিরন মিয়া তার বড় ভাইর স্ত্রী রোকসানা বেগমকে কাঠ দিয়ে মাথায় আঘাত মারলে মাথা ফেটে যায়। পরে ৩ ভাই ও তাদের স্ত্রীরা মারামারিত জড়িয়ে পড়েন। এসময় বড় ভাই রিপন মিয়া লোহার শাবল দিয়ে ছোট ভাই হিরন মিয়ার পেটে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে শুক্রবার রাত ২টার দিকে তিনি মারা যান।
র‌্যাব-৯ এর মিডিয়া অফিসার সিনিয়র এএসপি আফসান-আল-আলম জানান, এ ঘটনায় হিরন মিয়ার স্ত্রী বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে দোয়ারাবাজার থানায় গত ২৭ নভেম্বর হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি রিপন মিয়াকে গ্রেপ্তার করে।

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com