1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

আওয়ামী লীগ ভয় পাওয়ার দল নয় : পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আপডেট সময় রবিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২২
জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে দৈনিক সুনামকণ্ঠ’র সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. জিয়াউল হককে সম্মাননা প্রদান করা হয় - সুনামকণ্ঠ

স্টাফ রিপোর্টার ::
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভয় পাওয়ার দল নয়। ভয় দেখিয়ে কোনো ফায়দা হবে না। কেন না ন্যায়ের পক্ষে আওয়ামী লীগ কোনো ডাকাতি করার জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ডাকে দেশ স্বাধীন করেনি। আওয়ামী লীগ এই দেশের মানুষকে মুক্ত করার জন্য ত্যাগ স্বীকার করে দেশ স্বাধীন করেছে।
শনিবার সকালে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও জেলা সমবায় কার্যালয়ের উদ্যোগে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতীয় সমবায় দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন এই প্রতিপাদ্যে এবারের সমবায় দিবস উদযাপন হয়।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান আরও বলেছেন, বঙ্গবন্ধু বিশ্বাস করতেন দরিদ্র দেশটাকে যদি সামনে নিয়ে যেতে হয় তবে অন্যতম কৌশল হতে হবে সমবায়। সমবায়ের জন্য তাঁরা কাজও করে গেছেন। তারপর নানা কারণে বিশ্ব আবহাওয়া পরিবর্তন হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। দেশকে দখল করা হয়েছে। তাও ভোটে নয়, বন্দুক দিয়ে দেশ দখল করে অন্য মতবাদ নিয়ে এসেছে। এখন আবার সময় পাল্টেছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করা হয়েছে। আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই মুহূর্তে সারা বিশ্ব মনে করে দারিদ্র্য দূর করতে হলে স¤পদ সৃষ্টি করতে হবে। আমরাও এটাকে মডেল হিসেবে গ্রহণ করেছি। দারিদ্র্য দূর করতে হলে স¤পদ সৃষ্টি করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষার প্রসার, বিদ্যুতের প্রসার, স্বাস্থ্যসেবা ও টেকনিক্যাল দক্ষতা বাড়ানো, ক্ষেতখামারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ জনগোষ্ঠী তৈরি করে দেশ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।
বিএনপির একদফা সরকার পতন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন বিষয়ে এমএ মান্নান এমপি বলেন, স্বাধীন দেশ, সংবিধান, পতাকা, জনগণ এবং নির্বাচন কমিশন, এগুলো হলো সীমারেখা। এর বাহিরে গিয়ে কিছু করা মানে হটকারিতা। বিএনপি যদি হটকারী সিদ্ধান্ত নিয়ে আল্টিমেটাম দেয়, তাহলে সেটা আইনানুগভাবে মোকাবিলা করা হবে। মন্ত্রী বলেন, বিএনপির দাবি যদি যৌক্তিক হয়, দেশের জনগণ তা বিচার করবেন। কারা দেশের মানুষের উন্নয়ন করছে, মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। জনগণের রায়ই শেষ রায় মনে করে আওয়ামী লীগ।
জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল হুদা মুকুট, পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মো. আবু সাঈদ, এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান, জেলা সমবায় অফিসার বশির আহমদ, দৈনিক সুনামকণ্ঠ’র সম্পাদকম-লীর সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. জিয়াউল হক, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক অমল কান্তি কর। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিক্ষিকা তামান্না আক্তার।
আলোচনা সভার আগে শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। এর পূর্বে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেন, কে ক্ষমতায় থাকবে সেই রায় দেশের জনগণ দেবে। আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ হবে না। আওয়ামী লীগ আন্দোলনের ভয় করে না। আওয়ামী লীগের সাথে বাংলাদেশের জনগণ আছে। তারা দেখছে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থেকে কি করছে। তারাই বিচারক। শুধু তাই নয়, দেশের মানুষ দেখছে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন সব কিছু এই সরকার করছে।
রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য মিয়ানমারের সাথে আলোচনা চলছে। তারা একেক সময় একেক কথা বলে।
মন্ত্রী আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের আমরা বোঝা মনে করছি না। তারা বিপদে পড়ে আমাদের দেশে চলে এসেছে। আমরা তাদের জায়গা দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষ যখন খেতে পারছে আরোও হয়তো কয়েক লাখ খাবে। আমরা চাই বিশ্বের যে সকল রাষ্ট্র আছে তারাসহ, জাতিসংঘহ দেখুক রোহিঙ্গারা কি অবস্থায় আছে। আমরা বিশ্বাস করি, মিয়ানমার যারা পরিচালনা করে তারা ন্যায়ের পথ দেখবে। তারা সমঝোতার পথে আসবে এবং রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরে যেতে পারব।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, নিত্যপণ্যের দাম সরকারের কারণে বাড়েনি। বিদেশিদের নিয়ন্ত্রণে ডলার, গ্যাস ও তেল। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। আমরা খেটে খাওয়া মানুষ। গতবার মূল্যস্ফীতি কিছুটা কমে এসেছিল। দেশবাসীর জন্য ভালো খবর আছে। আগামী মঙ্গলবার একনেকের সভা হবে, সেখানে আমি সরকারিভাবে সবকিছু বলব এবং সবশেষ মূল্যস্ফীতি পরিস্থিতি তুলে ধরব। মানুষ বিনা পয়সায় সবকিছু পেতে চায়, সেটা আমিও চাই; কিন্তু সেটা সম্ভব হবে না। প্রত্যেক জিনিসের ন্যায্যমূল্য দিতে হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com