1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

ইউপি চেয়ারম্যানরা ৪০, মেম্বাররা ২০ হাজার টাকা সম্মানী চান

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসিক সম্মানী ৪০ ও মেম্বারদের ২০ হাজার টাকা করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতি। পাশাপাশি ইউনিয়ন এলাকায় অবস্থিত সব ধরনের হাট-বাজার, বালুমহল, পাথরমহল, ফেরিঘাটের ইজারা প্রদানের ক্ষমতা প্রদান করাসহ ১২ দফা দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।
সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে সংগঠনটির আয়োজনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয় সংগঠনটির পক্ষ থেকে।
ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষমতাকে দুর্বল রেখে কোনোভাবেই স্থানীয় কাক্সিক্ষত উন্নয়ন সম্ভব নয় জানিয়ে সমিতির সভাপতি মো. বেলায়েত হোসেন বিল্লাল বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের আর্থিক ও প্রশাসনিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। সেই লক্ষ্যে বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১২ দফা দাবি নিয়ে এসেছি আমরা। সে সঙ্গে এসব দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।
বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতির ১২ দাবি-
১. প্রশাসনিক ইউনিট আইনের পূর্ণ বাস্তবায়ন চাই। ২. চেয়ারম্যানদের সম্মানী বৃদ্ধি করে ৪০ হাজার ও মেম্বারদের ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা। ৩. ইউনিয়ন পরিষদ সমূহের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইউনিয়ন এলাকায় অবস্থিত সকল ধরনের হাট-বাজার, জলমহল, বালুমহল, পাথরমহল, সাইরাতমহল, ফেরিঘাটসমূহ ইজারা প্রদানের ক্ষমতা ও ইজারা লব্ধ আয়সমূহ ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব আয় হিসাবে প্রদান করা। ৪. ভূমি উন্নয়ন কর ১ শতাংশ হতে ২ শতাংশ এ উন্নীত করে সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদের তহবিলের জমা প্রদান করা। ৫. জন্ম নিবন্ধনের আয় এবং বিবাহ নিবন্ধনের ফি ইউনিয়ন পরিষদে হস্তান্তর করা। ৬. ইউনিয়ন পরিষদের অভ্যন্তরীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের সকল বরাদ্দ মন্ত্রণালয় থেকে সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদের তহবিলে প্রদান করতে হবে। ৭. চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে মামলা হলে আদালত কর্তৃক দোষী সাব্যস্ত না হওয়া পর্যন্ত চেয়ারম্যানদের গ্রেপ্তার ও সাময়িক বরখাস্ত না করা। ৮. ক. গ্রাম আদালতের বিচারিক ক্ষমতা বৃদ্ধি করে দেওয়ানি ও ফৌজদারি উভয় মোকদ্দমায় পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা/ক্ষতিপূরণ আদায়ে ক্ষমতা প্রদান করা। খ. প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ গ্রাম আদালতে একজন বেঞ্চ সহকারী ও একজন পিয়ন নিয়োগ প্রদান করা। ৯. ইউনিয়ন আইনশৃঙ্খলা কমিটিতে একজন সহকারী পুলিশ পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তাকে সদস্যসচিব হিসেবে নিয়োগ দান করা। ১০. ইউনিয়ন পরিষদের ওপর ঊর্ধ্বতন মহলের সকল ধরনের অযাচিত হস্তক্ষেপ বন্ধ করা। ১১. ইউনিয়ন পরিষদকে গ্রাম পুলিশ নিয়োগের এবং অপসারণের পূর্ণ ক্ষমতা প্রদান করা। ১২. ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও মেম্বার কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে একটি অত্যাধুনিক পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল নির্মাণের জন্য ঢাকা মহানগর এলাকায় প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দ দেওয়া।
সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান-মেম্বাররা।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com