1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সড়কে পাশে আবর্জনার স্তূপ, দুর্গন্ধে দুর্ভোগ

  • আপডেট সময় রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১

বিশেষ প্রতিনিধি ::
তাহিরপুরে দুটি বিদ্যালয়ের তিন হাজারের অধিক কোমলমতি শিক্ষার্থী, ৩০জন শিক্ষককে মলমূত্র ও ময়লা-আবর্জনার স্তূপের উপর দিয়ে প্রতিনিয়ত আসা-যাওয়া করতে হচ্ছে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে গত কয়েক বছর ধরেই। এরপরও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও নজর দিচ্ছেন না। ফলে আবর্জনার স্তূপ ও দুর্গন্ধের মাত্রা দিনদিন বাড়ছেই। যেন দেখার কেউ নেই।
স্কুল দুটি হল- তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় ও বাদাঘাট সরকারি প্রাথমিক প্রাথমিক বিদ্যালয়।
সরজমিনে দেখা যায়, বাদাঘাট বাজার হোন্ডা স্ট্যান্ড থেকে উত্তর দিকে ২০ফুট সামনেই কলেজ রোডে যাওয়ার পথের বাপাশেই বিদ্যালয় দুটির প্রবেশের সড়ক। এসড়কের গলির ৬ফুট ভেতরেই একটি টিউবওয়েল। এর চারপাশজুড়ে সবসময় ময়লা-আবর্জনার স্তূপ। আর সেই স্তূপের ওপর লোকজন প্রাকৃতিক কাজ সারেন। অনেকে টিউবওয়েলের পাশেই মলমূত্র ত্যাগ করেন। আর সড়কের পাশে দোকান ও বাসা বাড়ির ময়লা ফেলায় তা ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। এরপাশ দিয়েই বাধ্য হয়ে দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৩হাজার শিক্ষার্থী ও ৩০জন শিক্ষক বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া প্রতিদিন করতে গিয়ে দুর্গন্ধে দম বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। এছাড়াও স্কুল সংলগ্ন মাঠে ক্রীড়ামোদী মানুষ, খেলোয়াড়গণ বিকেলে ও আশপাশের ২০টি বাড়ির মানুষজন দুর্ভোগ নিয়ে চলাচল করছেন বাধ্য হয়ে।
শরিফ মিয়া, রফিক মিয়াসহ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকগন জানান, দুটি বিদ্যালয় শিক্ষাক্ষেত্রে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখলেও চলাচলের সড়কটিতে যাওয়ার সময় ছাত্র-ছাত্রীরা উদ্ভট পরিস্থিতির শিকার হয় প্রতিদিন। তাছাড়া বিষয়টি চরম স্বাস্থ্য বিপর্যয়ের হুমকি। কবে এই দুর্ভোগ, দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পাবে আমাদের সন্তানরা?
বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়ুয়া শামীম জানান, বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে টিউবওয়েলের সামনে এলে গত কয়েক বছর ধরে সবাই নাক চেপে ময়লা আবর্জনা পায়ে মাড়িয়ে দুর্গন্ধ সহ্য করে চলাচল করছি। বৃষ্টির দিনে তো আরও বেহাল অবস্থা হয়।
বাদাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র জাহিদ আলমসহ অন্যান্য শিক্ষার্থীরা বলেন, দ্রুত সড়কের পাশ থেকে ময়লা আবর্জনা সরিয়ে ফেলা উচিত। পাশাপাশি সড়কটি মেরামত করা প্রয়োজন।
বাদাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান বলেন, আমাদেরকে বছরে যে পরিমাণ সরকারি বরাদ্দ দেওয়া তাতে এ সড়ক ঠিক করাসহ পরিষ্কার করার মতো সামর্থ্য হয় না।
বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ধানু জানান, এই সড়কটি পাকা করার জন্য আমি অনেকের কাছেই আবেদন জানিয়েও কোন লাভ হয় নি। আর এই সড়কের পাশে কেউ ময়লা ফেলতে ও প্রস্রাব করতে না পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, আবর্জনা পরিষ্কার করে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সড়কটি নতুন করে নির্মাণ করার এজন্য উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com