1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সংখ্যালঘু সুরক্ষায় ৫ দফা দাবি

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
সংখ্যালঘু জনগণকে দেশে দেশে জাতীয় রাজনীতির নানা হিসেব-নিকাশের কারণে কঠিন সংকট মোকাবিলা করে বেঁচে থাকতে হয়। এই সব সংকট মোকাবেলায় অতিদ্রুত সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করাসহ পাঁচ দফা দাবি জানিয়েছে ধর্মীয়-জাতিগত সংখ্যালঘু সংগঠনসমূহের ঐক্যমোর্চা।
বৃহ¯পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ঐক্যমোর্চা আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব দাবি জানান ঐক্যমোর্চার প্রধান সমন্বয়ক রানা দাশগুপ্ত।
তাদের দাবিগুলো হচ্ছে- অনতিবিলম্বে জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠন ও বৈষম্য বিলোপ আইন প্রণয়ন করা, অনতিবিলম্বে অর্পিত স¤পত্তি প্রত্যর্পণ আইন বাস্তবায়ন করা, পার্বত্য শান্তিচুক্তি ও পার্বত্য ভূমি-বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনের যথাযথ বাস্তবায়ন করতে হবে এবং সমতলের সংখ্যালঘু জাতিসত্তাসমূহের ভূমি রক্ষায় স্বতন্ত্র ভূমি কমিশন গঠন এবং রাষ্ট্রীয় প্রজাসত্ত্ব আইনের ৯৭ ধারা কার্যকরভাবে বাস্তবায়নের নির্দেশ জারি করতে হবে।
বক্তব্যে রানা দাশগুপ্ত বলেন, সংখ্যালঘু জনজীবনে সংকট থেকে উত্তরণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ইশতেহারে বেশ কয়েকটি অঙ্গীকার করা হয়েছিল। ইশতেহারের ৬৬ পৃষ্ঠায় বলা হয়েছিল- অর্পিত স¤পত্তি সংশোধনী আইন দ্বারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকৃত স্বত্বাধিকারীদের অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা হবে। জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠন করা হবে। সংখ্যালঘু বিশেষ সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করা হবে। সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জমি, জলাধার ও বন এলাকায় অধিকার সংরক্ষণের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণসহ ভূমি কমিশনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। অনগ্রসর ও অনুন্নতক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী, দলিত ও চা বাগান শ্রমিকদের সন্তানদের শিক্ষা ও চাকরির ক্ষেত্রে বিশেষ কোটা এবং সুযোগ-সুবিধা অব্যাহত থাকবে। সংখ্যালঘু ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর প্রতি বৈষম্যমূলক সকল প্রকার আইন ও অন্যান্য অন্যায় ব্যবস্থার অবসান করা হবে। এবং ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের অধিকারের স্বীকৃতি এবং তাদের ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও জীবনধারার স্বাতন্ত্র সংরক্ষণ ও তাদের সুষম উন্নয়নের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিক কর্মসূচিগ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হবে।
রানা দাশগুপ্ত আরও বলেন, জাতিসংঘ এসডিজির মূল সুর নির্ধারণ করেছে, কাউকে পেছনে ফেলে রাখা যাবে না। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে এসেও আমরা এ দেশের ধর্মীয়-জাতিগত আদিবাসী সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠী আজও একটি অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও মানবিক রাষ্ট্রের জন্য সংগ্রাম করছি।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com