1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:০৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

হাওরের ক্ষতি হয় এমন প্রকল্প নেয়া হবে না : পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শহীদনূর আহমেদ ::
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে সুনামগঞ্জে নির্মিত কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ। রোববার সকালে এই প্রশিক্ষণকেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়।
প্রায় ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রশিক্ষণকেন্দ্র নির্মাণের ফলে হাওর অধ্যুষিত সুনামগঞ্জ জেলার অদক্ষ ও শিক্ষিত বেকার যুবকদের দক্ষতা উন্নয়নে নতুন দ্বার উন্মোচিত হলো। সুনামগঞ্জ শহরতলির হালুয়ারগাঁওয়ে দুই একর জমির উপর প্রশিক্ষণকেন্দ্রটি নির্মাণ করা হয়েছে। এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে প্রবাসে গিয়ে প্রত্যাশা অনুযায়ী বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারবেন প্রশিক্ষিত শ্রমশক্তি।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেন, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আমাদের জন্য খুবই প্রয়োজন। আমরা মেশিন ও প্রযুক্তির দিক দিয়ে অনেক পিছিয়ে আছি। আমরা যন্ত্রপাতির ব্যবহার জানি না। প্রযুক্তির ব্যবহার খুবই জরুরি। এটির ব্যবহার ছাড়া বাঁচার উপায় নেই। কাজ করতে করতে জাপানিরা কাজের টেবিলে মারা যায় আর বাঙালিদের মৃত্যু হয় বিছানায় শুয়ে শুয়ে। এটাই তাদের সাথে আমাদের পার্থক্য। জাপানে তেল নেই, গ্যাস নেই, সোনাদানা নেই। আমাদের মতো ধান, সবজি, মাছ, পশুপাখি নেই জাপানিদের। তাদের মানুষের শ্রম আছে। মরে হলেও সেই কাজ সম্পন্ন করে ছাড়বে। আমাদের সেদিকে যেতে হবে। আমাদের দুর্ভাগ্য আমরা পড়াশোনায় পিছিয়ে ছিলাম। এখন সরকারের মাথা ঘুরেছে, আমাদেরও মাথা ঘুরাতে হবে।
মন্ত্রী এমএ মান্নান আরও বলেন, আমরা বিদেশে কাজ করে খাই। বিদেশে যারা যান তারা সোনার মানুষ, রেমিটেন্স যোদ্ধা। তারা যদি ভাষা ও দক্ষতা অর্জন করে বিদেশ যান তাদের মর্যাদা বাড়ার পাশাপাশি উপার্জন বাড়বে।
পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এমএ মান্নান আরও বলেন, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করে দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি করার। আমরা আমাদের টিম লিডারের কথা মতো কাজ করছি। ভাটির জনপদের কাজ করার জন্য শেখ হাসিনা আমাকে মন্ত্রী করেছেন। সুনামগঞ্জ জেলার সব উপজেলায় কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেন, ক্ষমতায় থাকার কোনো লোভ আমার নেই। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আমি কাজ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। কারণ, তিনি নিজের জন্য কখনো ভাবেননি, শুধু দেশের মানুষের জন্য চিন্তা করেন। হাওরবাসী ঠিকমতো জীবন-যাপন করতে পারছে কি-না সে বিষয়ে খোঁজ-খবর রাখেন।
মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, পরিবেশ রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। আগামী প্রজন্মকে রক্ষার জন্য আগে পরিবেশ রক্ষা করতে হবে, এটা সবাই জানে। আমরা এমন কোনো প্রকল্প গ্রহণ করবো না, যেগুলো হাওরের মানুষের জন্য সমস্যা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওরের ক্ষতি হয় এমন সব প্রকল্পের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, হাওর এলাকার মানুষ আমরা। আমাদের প্রকৃত বন্ধু শেখ হাসিনা। তিনি হাওরের উন্নয়নে কাজ করার জন্য আমাকে নির্দেশনা দিয়ে চলেছেন যা বাস্তবায়নে আমি কাজ করে চলেছি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হলো বঙ্গবন্ধুর প্রতি, স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেয়া মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াস। এটি আমাদের শেষ নয়, এটি আমাদের শুরু। সারা বাংলাদেশে ১০০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণের কাজ হাতে নিয়েছি। এর মধ্যে সিলেট অঞ্চলে ৮টি নির্মাণ করা হবে। এই ৮টির মধ্যে সুনামগঞ্জে ৪ টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।
মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, যারা বিদেশ থেকে ৫-১০ বছর কাজ করে এসেছেন তাদের দক্ষতার সার্টিফিকেটের ব্যবস্থা করছি। ইনশাল্লাহ তারা আবার বিদেশ গেলে আগের চেয়ে দ্বিগুণ বেতন পাবেন।
তিনি বলেন, জমি বিক্রি করে ছেলেদের বিদেশ না পাঠিয়ে এই জমিতে চাষাবাদ করে সন্তানদের স্বাবলম্বী করুন। যারা বিদেশ থেকে প্রতারিত হয়ে দেশে এসে কান্নাকাটি করে তাদের আমি বলি বিদেশ যাওয়ার আগে জেনে যাওনি কেন? দালালদের খপ্পরে পড়ে অদক্ষ অবস্থায় বিদেশ যেতে বারণ করেন তিনি।
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্ম সংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ আরও বলেন, শেখ হাসিনার আমলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার কাজ দ্রুত এগিয়ে নিতে হাওর অঞ্চলের পিছিয়ে পড়া মানুষদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। নতুন এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে একটি চার তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন, চার তলা আবাসিক হোস্টেল, অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের বাসভবন, পা¤প হাউস, বৈদ্যুতিক সাব স্টেশনসহ অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। জেনারেল ইলেকট্রনিক, আর্কিটেকচারাল ড্রাফটিং উইথ অটো ক্যাড, ক¤িপউটার অপারেশন, গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিয়াল ড্রেস মেকিং এন্ড এমব্রয়ডারি, ইলেকট্রিক্যাল, অটো মোটিভ, ওয়েলডিং এন্ড ফেব্রিকস ও ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নূরুল হুদা মুকুট, অতিরিক্ত সচিব মো শহীদুল আলম, জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাঈদ, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ আব্দুর রব প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক এনডিসি মো. শহীদুল আলম।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com