1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

হাওর এলাকায় দ্রুত উড়াল সেতু নির্মাণ শুরু হবে : এলজিআরডি মন্ত্রী

  • আপডেট সময় রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জের হাওর এলাকার উন্নয়নের জন্য যৌক্তিক প্রকল্প গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, হাওরের পরিবেশ ও প্রতিবেশ রক্ষা করে প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে। না হলে হাওরের পরিবেশ বিপন্ন হবে। সরকার ইতোমধ্যে হাওর এলাকার উন্নয়নের জন্য বেশকিছু প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এসব প্রকল্পের মধ্যে কিছু অনুমোদন হয়েছে, আরও কিছু অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। হাওর এলাকায় উড়াল সেতু নির্মাণের কাজ দ্রুত শুরু করা হবে।
শনিবার দুপুরে ধর্মপাশা উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত নবগঠিত মধ্যনগর উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ‘উন্নয়ন ভাবনা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। সভায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, হাওরাঞ্চলের মানুষের প্রতি সরকার খুবই আন্তরিক। এরই মধ্যে হাওরের জন্য একটি উড়াল সেতু প্রকল্প পাস হয়েছে। আরও প্রকল্প বিবেচনাধীন আছে।
এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওরের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে জোর দিয়েছেন। এ জন্য একাধিক উড়াল সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন। বর্তমানে হাওরে অনেক প্রকল্প চলমান আছে। এছাড়া হাওরাঞ্চল, চরাঞ্চল এলাকায় যৌক্তিকভাবে প্রকল্প নেওয়া হয়েছে, কাজও চলমান আছে। পর্যায়ক্রমে সব কাজ বাস্তবায়ন হবে।
পরে শনিবার দুপুরে মধ্যনগর বাজারে গণসংবর্ধনা ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। এ সময় তিনি বলেন, হাওরাঞ্চলের মানুষের জন্য সরকার আন্তরিক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওরের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করার জন্য উড়াল সেতু নির্মাণের প্রকল্প নিয়েছেন। হতাশ হবেন না, আপনাদের সকল সমস্যার সমাধান হবে। এছাড়াও বর্তমানে হাওরে অনেক প্রকল্প চলমান আছে। গ্রামকে শহর করতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছি। হাওরাঞ্চলের সবগুলো এলাকা আর অবহেলিত থাকবে না।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, অবহেলিত হাওরবাসীকে এগিয়ে নিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সব কাজ বাস্তবায়ন হবে।
মধ্যনগর বাজারে উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত গণসংর্ধনা ও সুধী সমাবেশে সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ তালুকদারের সভাপতিত্বে ও মধ্যনগর থানা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক আহমেদের পরিচালনায় বক্তব্য দেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি, স্থানীয় এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নূরুল হুদা মুকুট, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম শামীম, সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র নাদের বখত, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল, ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মোবারক হোসেন তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক মাহবুব আলম ফারুকী, মধ্যনগর উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদের সহ-সভাপতি কুতুব উদ্দিন তালুকদার, সাধারণ স¤পাদক অমরেশ রায় চৌধুরী, মধ্যনগর থানা যুবলীগের সহ-সভাপতি আসাদুজ্জামান রোকন, সাধারণ স¤পাদক বিদ্যুৎ কান্তি সরকার প্রমুখ।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান তাঁর বক্তব্যে বলেন, অবহেলিত হাওরবাসীকে এগিয়ে নিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছেন। গ্রামকে শহর করতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছি। হাওরাঞ্চলের কোনো এলাকা আর অবহেলিত থাকবে না।
তিনি বলেন, দেশের চারদিকে উন্নয়ন আর উন্নয়ন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশে উন্নয়নের বিকল্প কিছু নেই। তিনি হাওর এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছেন। হাওরের মানুষের যত দুর্ভোগ রয়েছে তা ক্রমান্বয়ে দূর করা হবে। প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে চান।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান আরও বলেন, দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য আওয়ামী লীগ সরকার কাজ করে যাচ্ছে। অনেক প্রতিকূলতা অতিক্রম করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। মধ্যনগর থানাকে উপজেলায় রূপান্তরিত করা হয়েছে। উপজেলা হওয়ার সুফল ভোগ করবেন চারটি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ। মধ্যনগরবাসী উপজেলা পেয়ে আনন্দিত। মানুষের আনন্দে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনন্দিত।
তিনি আরও বলেন, ওই উপজেলার উন্নয়নের জন্য আমি সব কিছু করব। কারণ বাংলাদেশের এমন কোনও জায়গা নেই যেখানে উন্নয়ন হচ্ছে না। যে দিকেই তাকাবেন দেখবেন, উন্নয়ন আর উন্নয়ন। স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি এখনও আমাদের দেশে রয়ে গেছে, তারা আড়াল থেকে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। দেশের উন্নয়ন হোক তারা চায় না।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে সদ্য ঘোষিত মধ্যনগর উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে মধ্যনগর থানা সংলগ্ন এলাকায় ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও স্থানীয় এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com