1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

বিশ্বম্ভরপুরে পর্যটনশিল্পের অপার সম্ভাবনা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

কর্ণ বাবু দাস ::
প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যরে লীলাভূমি সুনামগঞ্জে পর্যটনশিল্পের রয়েছে অপার সম্ভাবনা। অপরিমেয় সৌন্দর্যঘেরা এ জেলা যুগ যুগ ধরে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের টেনেছে। জেলার আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে অপরিমেয় সৌন্দর্য। প্রাকৃতিক, ঐতিহাসিক, সাংস্কৃতিক সব সম্পদেই সমৃদ্ধ এ জেলা।
জেলার টাঙ্গুয়ার হাওর, শহীদ সিরাজ লেক, বারেকটিলা, যাদুকাটা নদী, শিমুল বাগানসহ আরও বিভিন্ন পর্যটন এলাকায় প্রতিদিন প্রচুর সংখ্যক পর্যটক আসছেন। এবার পর্যটনে যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় গড়ে উঠেছে নতুন কয়েকটি পর্যটন স্পট। দেখা দিচ্ছে পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা। উপজেলার হাওর বিলাস, পাহাড় বিলাস, নিকুঞ্জ, বোয়াল চত্বর, জয় বাংলা চত্বর, ওয়াকওয়েসহ বেশ কয়েকটি দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা নজর কেড়েছে পর্যটকদের। এসব স্পটে প্রতিদিন শত শত পর্যটক ভিড় জমাচ্ছেন।
উপজেলার সীমান্তবর্তী সলুকাবাদ ইউনিয়নে সীমান্তঘেঁষা গ্রাম চ্যাংবিল। এখানে ১০শতক জমি উপর সাদা রংয়ের দৃষ্টিনন্দন কাঠের বেড়া দিয়ে পর্যটকদের বসার জন্য তৈরি করা হয়েছে সাদা বেঞ্চ। পর্যটকদের খাবারের সুবিধার্থে রয়েছে দুটি দোকান। খড় দিয়ে দুটি গোলঘর বানিয়ে তৈরি করা হয়েছে ‘পাহাড় বিলাস’।
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদি উর রহিম জাদিদ-এর পরিকল্পনায় দৃষ্টিনন্দন এ পাহাড় বিলাস নির্মাণ করা হয়। এর উদ্বোধন করেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। জেলার অন্যান্য পর্যটন স্পটের মতো পাহাড় বিলাসও মন কেড়েছে সবার। প্রতিদিন শতাধিক পর্যটক পাহাড় বিলাস ঘুরতে আসেন। ফলে জেলার আরও একটি দৃষ্টি নন্দন ও আকর্ষণীয় স্থানে আর পর্যটনে নতুন এক সম্ভাবনার নামে পরিণত হয়েছে ‘পাহাড় বিলাস’।
দৃষ্টি নন্দন পাহাড় বিলাস তৈরি করে প্রশসংসায় ভাসছেন বিশ্বম্ভপুরের ইউএনও। ঘুরতে আসা একজন পর্যটক জানান, শহরের ব্যস্ত কোলাহল ছেড়ে প্রাকৃতিক এই মনোরম পরিবেশে আসলে যে কারো মন ভালো হয়ে যাবে। প্রকৃতিতে হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করবে । এমন সুন্দর পরিবেশ সব স্থানে হয় না। দৃষ্টিনন্দন এই পাহাড় বিলাসে আসলে মানসিক প্রশান্তি পাওয়া যায়।
পর্যটন স্পট হিসেবে ‘পাহাড় বিলাস’ ভাইরাল হতেই একই উপজেলায় আরেকটি পর্যটন স্পট ভ্রমণপিপাসুদের মাঝে সাড়া ফেলেছে। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ সম্মুখে খরচার হাওর পাড়ে ‘হাওর বিলাস’ নামে আরেকটি দৃষ্টিনন্দন ভ্রমণ স্পট তৈরি করা হয়েছে। হাওর পারে এমন সৌর্ন্দয উপভোগ করতে শতশত পর্যটক আসেন। হাওর বিলাস ও পাহাড় বিলাসের সাথে বাড়তি আর্কষণ হিসেবে যোগ হয়েছে বোয়াল চত্বর, পলাশ বাজার ওয়াক ওয়ে , নিকুঞ্জ।
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সম্ভাবনাময় জেলাকে পর্যটনে সমৃদ্ধ করছে নতুন পর্যটন স্পটগুলো। দ্রুততম সময়ে এসব স্পট গড়ে উঠায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ভ্রমণপ্রেমিদের মাঝে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসছেন পর্যটকরা। এরই মধ্যে নতুন এই স্পটগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। প্রতিদিনই শতশত পর্যটক হাওর বিলাস, পাহার বিলাসে ঘুরতে গিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি শেয়ার করেন। আর এসব ছবি দেখে তাদের বন্ধুবান্ধবরাও উৎসাহিত হন।
হাওর বিলাসে ঘুরতে আসা অন্তর কর জানান , জেলায় পাহাড় বিলাস ও হাওর বিলাস নতুন পর্যটন স্পট গড়ে উঠায় সবার মাঝে এক প্রতিযোগিতার সৃষ্টি হয়েছে কার আগে কে যাবে। হাওর পাড়ে সময় কাটানোর সুন্দর একটি সুযোগ তৈরি হয়েছে। হাওরের রূপ কাছ থেকে দেখার জন্য এর থেকে ভালো স্থান পাওয়া যাবে না। পর্যটন স্পট গড়ে উঠায় এলাকায় কর্মসংস্থানেরও সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। পর্যটন স্পটগুলো ঘুরে দেখা যায় পর্যটকদের জন্য খাবার হোটেলসহ বিভিন্ন দোকানপাট গড়ে উঠেছে। স্থানীয় দোকানগুলোতেও আগের চেয়ে কেনাবেচা বেড়েছে। কয়েকজন ফটোগ্রাফার সারাদিন পর্যটন স্পটগুলোতে পর্যটকদের ছবি তুলে টাকা ইনকাম করছেন।
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদি উর রহিম জাদিদ জানান, সুনামগঞ্জ জেলায় পর্যটনশিল্পের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। জেলার হাওরগুলোতে যে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রয়েছে তা ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করে যাচ্ছি। পাহাড় বিলাস ও হাওর বিলাসকে দৃষ্টিনন্দন করা হয়েছে, মানুষজন যাতে এখানে এসে একটু বসতে পারে, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে পারে। এখানে প্রতিদিন শতশত পর্যটক দেখতে আসেন। যেহেতু মানুষজন এই এলাকাতে আসছে তাই এলাকাকেও উন্নত করতে হবে সেই পরিকল্পনা থেকে বোয়াল চত্বর , জয় বাংলা চত্বর, ওয়াকওয়েসহ বিভিন্ন স্থাপনা তৈরি করা হচ্ছে। এসব কাজে মাননীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহোদয় সহযোগিতা করছেন। এগুলো আরও বৃহৎ পরিসরে করার পরিকল্পনা রয়েছে। পর্যটন স্পটে প্রতিদিন শতশত পর্যটক আসছেন এজন্য এলাকাতেও বিভিন্ন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে । নতুন নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com