1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০১ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সুনামগঞ্জ ক্রীড়াঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১

:: কল্লোল তালুকদার ::
এভাবে করোনার কাছে পরাজিত হবে, এভাবে আমাদের ছেড়ে যাবে তা কোনভাবেই মানতে পারছিনা। কমল ফোন করে জানালো, পরে একে একে ফোন দিলাম সবাই ব্যস্ত, কিন্তু মনকে সান্ত¦না দিতে পারছি না। জাকের ভাই আমাদের ছেড়ে চলে যাবে – এটা ভাবতে পারছি না।
আমি নিজেও দীর্ঘদিন অসুস্ত ছিলাম। প্রায় সকল উপসর্গই ছিল এমনকি আমার স্ত্রী ও দুই ছেলে সবাই জ্বর সর্দি কাশিতে আক্রান্ত ছিলাম। গত ১৬ জুলাই কিছু সুস্থ হলে সিলেট পার্ক ভিউয়ের ৯তলায় করোনা ইউনিটে ভাইকে দেখে আসি। দেখা মাত্রই চোখে জল এসে গেছে। তানভির বললো- কল্লোল দাদা এসেছেন। আমি মাস্কটা একটু নিচে নামাতেই দু’হাত তুলে ইশারা দিলেন দোয়া করতে। তখনও তার নাকে মুখে অক্সিজেনের মাস্কটা বাঁধা ছিল। সব সময়ই তানভিরের সাথে যোগাযোগ রেখেছি কিন্তু সকল কিছুকে হার মানিয়ে সৃষ্টিকর্তা তাকে তুলে নিলেন। তার আত্মার শান্তি কামনা করি এবং তার পরিবারকে শোক সহিবার শক্তি যেন পায় সেই দোয়া করি।
আবেদকে হারালাম, কামালকে হারালাম, আহসানুলকে হারালাম এতো বন্ধু হারানোর বেদনা যেন আর সইতে পারছিনা। জাকের ভাই ছিল সকলের ভাই। সবাই তাকে ভাই নামেই চিনতো। সুনামগঞ্জ শহরে একটাই ভাই আমাদের ছেড়ে চলে গেল।
সে খেলতো রাইট আউটে আর আমি মিডমাঠে। কত খেলা একসাথে খেলেছি। কত ঝগড়া করেছি, কত ভালবাসা পেয়েছি, তা বলে বুঝাতে পারবনা। সেই ১৯৯০ সাল থেকে আজ পর্যন্ত কখনো স্নেহের কমতি ছিল না। আমরাও সিনিয়র ফ্রেন্ড হিসাবে আড্ডা দিতাম।
জাকের ভাই ছিল সকল কাজের কাজী। খেলাধুলার সকল শাখায়ই তার পদার্পণ ছিল। ক্রিকেট, হ্যান্ডবল, আ¤পায়ারিং, রেফারিং, কোচিং সবকিছুতেই জাকের ভাই আছে। একজন দক্ষ সংগঠক ছিল।
কিন্তু কিছুতেই নিজেকে বুঝাতে পারছিনা, ঈশ্বর তোমার একি খেলা, কেন অকালে ডুবাও বেলা, যে আছে ঘাটে বসা, তাকে রেখে কেন অসময়ে নাও সহসা। আজ সুনামগঞ্জ ক্রীড়াঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল। যেন একটি তারা হঠাৎ খসে পড়লো।
ডিএফএর সভাপতির দায়িত্ব পালন করতে অনেক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এগিয়ে গিয়েছিল। কিছুদিন আগে ২য় বিভাগ ফুটবল লীগ চালু করেছিল কিন্তু করোনার কারণে তা মাঝপথে আটকে যায়। হয়তো আশা ছিল যে স্বভাবিক হলে খেলা শুরু করবে। আমারও একটা টিম ছিল।
জাকির ভাই কোনদিন সিগারেট, পান বা নেশা জাতীয় কিছুই গ্রহণ করেনি তারপরেও কেন তাঁকে চলে যেতে হলো। জাকির ভাইকে নিয়ে যতই লিখি ফুরাবেনা। সেই ডিএসএর আড্ডা, বিআরটির আড্ডা, খেপ খেলার আড্ডা, মাঠের আড্ডা কতশত স্মৃতি। আজ সবকিছু মিথ্যে করে চলে গেলে। না ফেরার দেশে ভাল থেকো জাকের ভাই। তোমার প্রতি রইলো বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালবাসা।

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com