1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৪:২১ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

যাদুকাটার পানি বিপৎসীমার উপরে

  • আপডেট সময় বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ::
দেশের অভ্যন্তরে ও সীমান্তবর্তী ভারতীয় অঞ্চলগুলোতে বৃষ্টিপাত বাড়ায় প্রধান প্রধান নদ-নদীর পানি বাড়ছে। এরই মধ্যে বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে তাহিরপুরের যাদুকাটা নদীর পানি।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিনে প্রধান প্রধান নদ-নদীর পানি দ্রুত বাড়তে পারে। ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীর পানি সমতল বাড়ছে যা, আগামী শুক্রবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা নদীর পানির সমতল বাড়ছে, অপরদিকে পদ্মানদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে যা, বুধবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীর পানির সমতল বাড়ছে, যা আগামী শুক্রবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
এদিকে বুধবার নাগাদ সুরমা নদী পানিও সুনামগঞ্জ পয়েন্টে বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে।
পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও ভারত আবহাওয়া অধিদপ্তরের গাণিতিক মডেলের তথ্য অনুযায়ী, আগামী শুক্রবার নাগাদ দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, আসাম, মেঘালয় ও ত্রিপুরা প্রদেশের স্থানসমূহে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস আছে। ফলে এই সময়ে দেশের উত্তরাঞ্চলের তিস্তা, ধরলা, দুধকুমার, ব্রহ্মপুত্র, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকা এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় পার্বত্য অববাহিকার প্রধান নদীর পানি সমতল সময় বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে।
পাউবোর পর্যবেক্ষণাধীন বিভিন্ন নদ-নদীর ১০১টি পয়েন্টের মধ্যে মঙ্গলবার পানি সমতল বেড়েছে ৬১টিতে, কমেছে ৩৩টিতে। অপরিবর্তিত আছে ৬টি পয়েন্টের পানির সমতল। আর একটিতে এখনো তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়নি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com