1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

রাণীগঞ্জ বাজার : নবনির্মিত ড্রেন কাজে আসছে না : জলাবদ্ধতায় ভোগান্তি

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৯ মে, ২০২১

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি ::
জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ বাজারে সাড়ে ৪ লাখ টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত ড্রেন কোন কাজেই আসছে না। বাজারের ভেতরের রাস্তায় জমে থাকা ময়লা পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় জলাবদ্ধতায় জনভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে।
রাণীগঞ্জ বাজার এলাকায় জনভোগান্তি লাঘবে রাণীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে সাড়ে ৪ লাখ টাকা ব্যয়ে নতুন ড্রেন নির্মাণ করা হয়। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করেন রাণীগঞ্জ ইউপি সদস্য ইসরাক আলী।
মঙ্গলবার (১৮ মে) সরজমিনে দেখা যায়, রাস্তা থেকে নবনির্মিত ড্রেন প্রায় এক থেকে দেড় ফুট উচু হওয়ায় পানি নিষ্কাশন হচ্ছে না। যে কারণে রাস্তায় বৃষ্টির পানি জমে রয়েছে। এসব ময়লা পানি মাড়িয়ে মানুষ চলাচল করছেন। এছাড়া ড্রেনের অপর পাশের বিভিন্ন দোকানপাটে পানি উপচে উঠছে। এতে ব্যবসায়ীরা পড়েছেন বিপাকে। সেই সাথে রাণীগঞ্জ ফেরি পারাপার হওয়ার জন্য আসা যানবাহনগুলো বিভিন্ন স্থানের কাদা পানিতে দেবে গিয়ে অনাকাক্সিক্ষত দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে।
রাণীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী সুহেল মিয়াসহ অনেকে জানান, রাণীগঞ্জ বাজারের ভেতরের রাস্তায় বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ জলাবদ্ধতার কারণে মানুষ দীর্ঘদিন ধরে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। তবে এবার নতুন ড্রেন হওয়ায় আমরা অনেক খুশি হয়েছিলাম। ভেবেছিলাম জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পাবো। কিন্তু তা হয়নি। যা হয়েছে উল্টো। ড্রেন দিয়ে রাস্তার পানি যাওয়ার কথা। এখন ড্রেন থেকে রাস্তায় আসছে পানি। রাস্তা থেকে ড্রেন অনেক উঁচু হওয়ায় পানি নিষ্কাশন হচ্ছে না। অপরিকল্পিতভাবে ড্রেন নির্মাণ করায় কোন কাজে আসছে না এটি। অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণের ফলে ভোগান্তি আরও বেড়েছে। এতে অযথা সরকারি টাকা গচ্চা গেল। বাড়ল মানুষের সমস্যা।
এ বিষয়ে রাণীগঞ্জ ইউপি সদস্য ইসরাক আলী বলেন, ড্রেন নির্মাণে কোন ত্রুটি হয়নি। তবে রাস্তা নিচু হওয়ায় বাজারে পানি জমেছে।
এ ব্যাপারে জানতে রাণীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান জানান, চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে এ সমস্যার সমাধান করা হবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com