1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

তাহিরপুরে গৃহবধূ খুন

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১

সাজ্জাদ হোসেন শাহ্ ::
তাহিরপুরে দুই সন্তানের জননীকে হত্যা করে ঘরের বাইরে ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত গৃহবধূ আজমিনা বেগম (২৮) উপজেলার বাদাঘাট উত্তর ইউনিয়নের জৈতাপুর গ্রামের শাহনুর মিয়ার স্ত্রী। বুধবার ভোরে বসতঘরের অদূরে থাকা লাকড়ি ঘরের মাচার নিচে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা লাশ উদ্ধার করে তাহিরপুর থানা পুলিশ।
ঘটনার খবর পেয়ে তাহিরপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. বাবুল আখতার, তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ তরফদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় তাদের সঙ্গে ছিলেন থানার এসআই মো. গোলাম হক্কানী, এসআই মাহমুদুল হাসান, এএসআই রাজু কুমার বিশ^াস।
পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আজমিনার স্বামী শাহনুর মিয়া সপ্তাহ খানেক ধরে জামালগঞ্জ উপজেলার একটি হাওরে ধান কাটার কাজে ছিল। গৃহবধূ তার ৫ বছরের ১ ছেলে ও ২ বছরের ১ মেয়েকে সাথে নিয়ে বাড়িতে থাকতেন। মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ২টার দিকে আজমিনার ছেলে-মেয়ের কান্নাকাটি শুনে পাশের ঘর থাকা শ্বশুর ও অন্যরা দৌড়ে ছুটে এসে দেখতে পান আজমিনা ঘরে নেই। পরে শ্বশুর বাড়ির লোকজন রাতে গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে আজমিনার সন্ধান না পেয়ে ঘরে ফিরে আসে। ভোরে আবারো তার খুঁজে বের হলে বসতঘরের অদূরে লাকড়ি রাখার মাচার নিচে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দেয়। সকাল সাড়ে সাতটায় খবর পেয়ে তাহিরপুর থানার বাদাঘাট পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই মো. রাজিবুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন।
আজমিনার স্বামী শাহনুর মিয়া বলেন, আমি গত ৭-৮ দিন ধরে ধান কাটার কাজে জামালগঞ্জের সাচনায় ছিলাম। কে বা কারা এবং কেন আমার স্ত্রীকে এমন করে হত্যা করে লাশ বাইরে ফেলে রাখলো, কিছুই বুঝতে পারছি না।
তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ তরফদার এ প্রতিবেদককে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি হত্যাকান্ড। নিহতের মাথায়, গালে ও গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। পুলিশ হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com