1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

সুনামগঞ্জে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ::
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। সোমবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যুক্তরাজ্যপ্রবাসী মইনুল ইসলামের (৪৭) পক্ষে মামলাটি করা হয়। বিচারক কুদরত ই এলাহী মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন।
বাদী পক্ষের আইনজীবী আক্তারুজ্জামান সেলিম জানান, মামলাটি দায়ের করেছেন সিলেটের মোগলাবাজার থানার রায়খাইল গ্রামের বাসিন্দা মঈনুল ইসলাম। তিনি রায়খাইল গ্রামের মৃত আব্দুস শহিদের ছেলে। তবে মঈনুল ইসলাম যুক্তরাজ্যের নাগরিকও।
সোমবার সকালে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২১(ক)/২৫(৩)২৯(২)/৩৫ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। এ মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। মামলায় অন্যান্য আসামিরা হলেন সিলেট দক্ষিণ সুরমা ইউনিয়নের ও লন্ডন প্রবাসী আব্দুল মালিক, লন্ডন প্রবাসী মো. কয়সর আহমেদ, শায়েস্থা চৌধুরী কুদ্দুস, মিসবাহুজ্জামান সুহেল, কামাল উদ্দিন, রহিম উদ্দিন, মাহিদুর রহমান, আনোয়ার হোসাইন খোকন, আফজল হোসেন, আব্দুস সালাম, আফজল হোসেন, হাবিবুর রহমান, নাসির আহমদ শাহিন, শাহ আখতার হোসাইন টুটুল, আবুল কালাম আজাদ, ইকবাল হোসেন, মো. আবুল হোসেন, হেলাল নাসিমুজ্জামান, তাজবির চৌধুরী শিমুল, নাসিম আহমেদ চৌধুরী, এমদাদ টিপু, ডা. মুজিবুর রহমান মুজিব, ঢাকা রিজেন্সী হোটেল ও রিসোর্টের চেয়ারম্যান মুসলেহ উদ্দিন আহমদ, প্রতিষ্ঠানটির সাবেক চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ মোতাহার ও বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক কবির রেজাকে।
মামলার এজাহারে বাদী মইনুল ইসলাম উল্লেখ করেন, গেল বছরের ১৬ নভেম্বর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তার ইউটিউব চ্যানেলে জুম মিটিংয়ে একটি ভিডিওতে তার বাবা জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ও স্বাধীনতার ঘোষক বলে দাবি করে বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া ২০১৪ সালের ২৫ মার্চ রয়্যাল রিজেন্সি অডিটোরিয়াম, মেনর পার্ক লন্ডনে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনায় মামলার ১ থেকে ২৫ নং আসামি প্রোপাগান্ডা ও প্রচারণা সভার আয়োজন করে সেখানেও তারেক রহমান তার বাবাকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ও স্বাধীনতার ঘোষক বলে দাবি করে। অন্যদিকে ২০১৪ সালের ২৯ মে লন্ডনে অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে জিয়াউর রহমানের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাংবাদিক হত্যায় জড়িত ও একই বছরের ২৪ আগস্ট বর্তমান সরকারকে অবৈধ সরকার ও শেখ হাসিনার পরিবারকে খুনি পরিবার ও একই বছরের ১ সেপ্টেম্বর বিএনপির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লন্ডনে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর্তৃক মঞ্চায়িত ও ২৯ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘খুনি’, একই বছরের ৫ মে যুক্তারাজ্য বিএনপির আয়োজনে বিপ্লব ও সংহতি দিবস অনুষ্ঠানে শেখ মুজিবুর রহমানকে বিশ^াসঘাতক ও পাকবন্ধু; একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর যুক্তরাজ্য বিএনপির আয়োজনে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মিথ্যা প্রোপাগান্ডা করে।
মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর ও চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি সুনামগঞ্জ শহরের তেঘরিয়া হাসনরাজা জাদুঘরের সামনে অপেক্ষারত অবস্থায় তিনি তারেক রহমানের ইউটিউব চ্যানেলে এসব অপরাধ প্রচারের বিষয়টি দেখেছেন। বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করতে সময় অতিবাহিত হওয়ায় মামলা দায়ের করতে বিলম্ব হয়েছে।
মামলার বাদী যুক্তরাজ্য প্রবাসী মইনুল ইসলাম বলেন, তারেক রহমান লন্ডনে বসে দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে যাচ্ছে। সে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে খুনি বলে আখ্যায়িত করেছে এছাড়া সে প্রতিটি সভায় তার বাবা জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ও স্বাধীনতা ঘোষক বলে প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে এবং সেগুলো তার ইউটিউব চ্যানেলসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করছে। যার জন্য আমি দেশের একজন নাগরিক হয়ে তারেক রহমানসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছি।
সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আখতারুজ্জামান সেলিম বলেন, বাদী মইনুল ইসলাম ১নং আসমি তারেক রহমানসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন। যার কারণ হল যে ৭ মার্চ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা অস্বীকার করে উনার পিতা জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা ঘোষক ও বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে উল্লেখ। তিনি আরও বলেন, মামলা দায়েরে পর বিজ্ঞ আদালত এই মামলাটি সংশ্লিষ্ট থানাকে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com