1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সংবাদ সম্মেলন : শাল্লায় ভাইস চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সম্পত্তি দখল চেষ্টার অভিযোগ

  • আপডেট সময় শনিবার, ১৩ মার্চ, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ::
শাল্লা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানসহ তিন ধনাঢ্য ব্যক্তি কর্তৃক সনাতন ধর্মাবলম্বীর সম্পত্তি জাল দলিল সৃজন করে দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে রঘুনাথপুর গ্রামবাসীর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন করুণা সিন্ধু দাস। এ সময় তিনি জানান, শাল্লা উপজেলার অবহেলিত ও দরিদ্রপীড়িত গ্রামের নাম রঘুনাথপুর। এ গ্রামের ৭০০ কেদার ধানি জমি রয়েছে। এছাড়া গ্রামবাসী এ জায়গাটিতে ধান শুকানোর খলা, গো-চারণ ও খেলার মাঠ হিসেবে ব্যবহার করে আসছেন। গ্রামের অভ্যন্তরে পূর্বপুরুষের স্থাপিত দেবস্থান আছে যা সায়রা গাছতলা নামে পরিচিত। এখানে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করে থাকেন গ্রামবাসী। অসহায় এ গ্রামবাসী দুইশত বছর ধরে এসব জায়গা হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানার সাটিয়াজুরী গ্রামের জমিদার ক্ষিতিশ কর গংরা ৭৫৮ নং খতিয়ানে ও ১৭২০নং দাগের ( বর্তমান আর এস দাগ ২৩৫৫, ২৩৫৬) জায়গাটি তাদের ব্যবহার করার জন্য দখল দেন এবং গ্রামবাসী সেইভাবে তাদের স¤পত্তি ভোগ দখল করে আসছেন।
সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়- সম্প্রতি এ বিশাল স¤পত্তির প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়েছে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দিপু রঞ্জন দাস, মহাদেব দাস ও মিঠু রঞ্জন সরকারের। এ দাগে সরকার আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় গৃহহীনদের জন্য ৫টি গৃহ নির্মাণের কাজ চলমান রেখেছেন। এসব ব্যক্তিরা আশ্রয়ণ প্রকল্পের কাজেও বাধা প্রদান করছেন। এমনকি জায়গা ছেড়ে দিতে গ্রামবাসীকে হুমকি প্রদান করে আসছেন।
সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, গত ১ মার্চ গ্রামবাসীর পক্ষে করুণাসিন্ধু দাস বাদী হয়ে আদালতে একটি স্বত্ব-মোকদ্দমা দায়ের করেন। আদালত বিবাদিদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রঘুনাথপুর গ্রামের হরলাল দাস, মধুসূদন সরকার, উপানন্দ দাস প্রমুখ।
অভিযোগের বিষয়ে শাল্লা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দিপু রঞ্জন দাস বলেন, আমি জমিদারের উত্তরাধিকারীদের কাছ থেকে জায়গা ক্রয় করেছি। সরকারকে খাজনাও দিয়ে আসছি। তারা মূলত আমাকে সমাজে হেয় করার জন্য এমন অভিযোগ আনছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com