1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:২০ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

হাওরবাসী আপনার কাছে ঋণী

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

:: শহীদনূর আহমেদ ::
স্তব্ধ, বাকরুদ্ধ, বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে সুনামগঞ্জের সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু আর বেঁচে নেই। গুণী একজন মানুষকে বড় অসময়ে হারালো হাওরবাসী। আমি হারালাম খুব কাছের অভিভাবককে।
মৃত্যু চিরন্তন সত্য। তবে আকস্মিক মৃত্যু মেনে নিতে পারছি না। শহরের পরিচিতজন শুভাকাক্সক্ষীদের চোখে মুখে বিস্ময়। অবিশ্বাস্য, কত সহজে মেনে নিতে হচ্ছে শহরবাসীর ভরসার স্থলের মৃত্যুর খবর।
বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু চাচা আমার কাছে সাহস আর প্রতিবাদের মূর্ত প্রতীক। ২০১৭ সালে যখন হাওরবাসী কঠিন দুর্যোগের মুখোমুখি, হাওর লুটতরাজদের অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে ফসলডুবির ফলে যখন চারদিকে হাহাকার তখন নিদারুণ সংকটে মুক্তির পয়গাম নিয়ে আসেন সুনামগঞ্জ শহরের কিছু সাহসী প্রতিবাদী মানুষ। প্রতিষ্ঠিত হয় ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন’। যার নেতৃত্ব দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু চাচা। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আমিও আছি এই সংগঠনে। অব্যাহত আন্দোলন-সংগ্রামের ফলে পানি উন্নয়ন বোর্ড তার নীতিমালা পাল্টিয়েছে, হাওরবাসীকে এক বছর খাদ্যের সংস্থান করেছে সরকার। মহামান্য রাষ্ট্রপ্রধানও সুনামগঞ্জে এসেছেন। হাওরের দুঃখ দুর্দশার কথা শুনেছেন।
মনে পড়ে ২০১৭ সালে জেলা শিল্পকলা একাডেমির হাসন রাজা মিলনায়তনে মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাথে মতবিনিময় সভায় হাওরবাসীর পক্ষে খসরু চাচার সাহসী বক্তব্য। যে বক্তব্যে উঠে এসেছিল হাওরের প্রাণের দাবি ও কৃষকদের দুঃখ দুর্দশার চিত্র।
হাওর বাঁচাও আন্দোলন গঠনের পর থেকে অদ্যাবধি সংগঠনের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আছছিলেন তিনি। যার দক্ষ নেতৃত্বে সকল অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে রাজপথে সোচ্চার হাওর বাঁচাও আন্দোলনের নেতাকর্মীরা। হাওর বাঁচাও আন্দোলন এখন দেশের ৭ টি হাওর জেলায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সুনামগঞ্জ জেলার প্রতিটি উপজেলা, ইউনিয়নে কমিটি রয়েছে। সুনামগঞ্জের সর্ববৃহৎ সংগঠনের রূপ নিয়েছে হাওর বাঁচাও আন্দোলন। আর এই সংগঠনটিকে বটবৃক্ষকের মতো ছায়া দিয়ে আগলে রেখেছিলেন যেই মানুষটি সেই ভালোবাসার মানুষটি চলে গেলেন না ফেরার দেশে। আর তিনি ট্রাফিক পয়েন্টে দাঁড়াবেন না। প্রতিবাদ জানাবেন না অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে! কী নির্মম বাস্তবতা!
বড় অসময়ে চলে গেলেন প্রিয় খসরু চাচা। হাওরবাসী আপনার কাছে চিরঋণী হয়ে থাকবে। প্রতিবাদ আর সাহসের যে বাতি জ্বালিয়ে দিয়েছিলেন আপনি, তাঁর উজ্জ্বলতা ছড়াবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। কেবল নশ্বর এই পৃথিবীতে থাকবেন না আপনি। আপনার আদর্শ আর কীর্তি থাকবে চির অম্লান। ওপারে ভালো থাকেন হাওরবন্ধু বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com