1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২২ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

স্বপ্নের মেট্রোরেলে ৮ মিনিট চড়ে মুগ্ধ পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন বর্ষ ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের প্রথম মেট্রোরেল আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হবে। এ লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছে প্রকল্পের কাজ। কাজের অগ্রগতি দেখতে গিয়ে স্বপ্নের মেট্রোরেলে আট মিনিট ভ্রমণ করে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি।
বুধবার দুপুরে ঢাকার উত্তরা মেট্রোরেল প্রকল্পের ডিপো এলাকায় যান মন্ত্রী। প্রথমে মেট্রোরেল এক্সিবিশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সেন্টারে প্রবেশ করেন। এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে মেট্রোরেলের এসি কোচ। দুপুর ২টায় মেট্রোরেলের কোচে প্রবেশ করেন মন্ত্রী। স্বপ্নের মেট্রোরেলে ৮ মিনিট অবস্থান করেন মন্ত্রী। মেট্রোরেল কোচের মধ্যে কখনো বসে, কখনো দাঁড়িয়ে যাত্রীরা কীভাবে চড়বেন সেই অভিজ্ঞতা নেন।
মন্ত্রীর সঙ্গে এসময় মেট্রোরেল প্রকল্পটির বাস্তবায়নকারী রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কো¤পানি লিমিটেডে (ডিএমটিসিএল) কো¤পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব এমএএন সিদ্দিক, প্রকল্প পরিচালক মো. আফতাবউদ্দিন তালুকদার, অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোহাম্মদ আবদুর রউফসহ সংশ্লিষ্টরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।
মেট্রোরেলের একটি এসি কারে কতজন যাত্রী ভ্রমণ করতে পারবেন এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে জানতে চান মন্ত্রী। এসময় অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোহাম্মদ আবদুর রউফ মন্ত্রীকে অবহিত করেন, প্রতিটি এসি কারে মোট ৫৪টি করে আসন রয়েছে। তবে মেট্রোরেলে মানুষ সাধারণত দাঁড়িয়ে ভ্রমণ করতে ভালোবাসেন। ফলে বসে ও দাঁড়িয়ে টোটাল কোচে মোট ১ হাজার ৭৫৪ জন ভ্রমণ করতে পারবেন।
কোচে পরীক্ষামূলক এ ভ্রমণ শেষে মন্ত্রী বলেন, দেশ বর্তমান সরকার প্রধানের নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। আমরা উন্নত দেশে মেট্রোরেলে চড়েছি। বাংলাদেশে চড়তে পারবো এটা ছিল স্বপ্নের মতো। মেট্রোরেল প্রকল্প যারা বাস্তবায়ন করছে আমরা সত্যিই সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আমি মেট্রোরেলের কর্মযজ্ঞ দেখে মুগ্ধ। মেট্রোরেল কোচে উঠে আমি ব্যক্তিগতভাবে উচ্ছ্বসিত। এখন একটাই আশা, এটা যেন ভালোভাবে চালু হয়। নগরবাসী যেন দ্রুত এর সেবা পায়। নতুন প্রজন্মের কাছে এটা স্বপ্নের প্রকল্প। ঢাকাবাসীকে মেট্রোরেল স্বস্তি দেবে। আশা করছি চলতি বছরের বিজয় দিবসে আগারগাঁও থেকে উত্তরা পর্যন্ত ১১ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার উন্মুক্ত হবে। এটা তরুণ প্রজন্মের কাছে স্বপ্নের প্রকল্প।
সরেজমিনে দেখা যায়, এক্সিবিউশন সেন্টারে মক ট্রেন রয়েছে। কীভাবে একজন যাত্রী টিকিট সংগ্রহ করা থেকে শুরু করে সেবা নেবে সবকিছুই হাতে কলমে শেখানোর মতো ব্যবস্থা করা হয়েছে। উড়াল মেট্রোরেল কীভাবে চলাচল করছে সব কিছুই দেখানো হচ্ছে। হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত হন মেট্রোরেল প্রকল্পে কর্মরত ৮ জাপানি নাগরিক। তাদের স্মরণে একটা স্মৃতিফলক তৈরি করা হয়েছে সেখানে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com