শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ০২:৩৬ অপরাহ্ন

Notice :

হাওরাঞ্চল আর পিছিয়ে থাকবে না : পরিকল্পনামন্ত্রী

দিরাই প্রতিনিধি ::
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন, গত ১১ বছরে হাওরাঞ্চলে কৃষি, যোগাযোগ শিক্ষাসহ সকল সেক্টরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে তা অস্বীকার করার উপায় নেই। শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়নের সরকার। হাওরাঞ্চলে উন্নয়ন হচ্ছে, আরো উন্নয়ন হবে। উন্নয়নের ক্ষেত্রে হাওরাঞ্চল আর পিছিয়ে থাকবে না। তিনি আরো বলেন, দেশের মানুষ সামরিক শাসকসহ বিভিন্ন সরকারের আমল দেখেছে। কোনো সরকারই বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের মতো উন্নয়ন করতে পারেনি।
শনিবার দুপুরে দিরাই পৌরসভার নতুন বাগবাড়িতে সদ্য প্রতিষ্ঠিত প্রবাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি আরো বলেন, এখন পাঞ্জাবি নেই, পাকিস্তানিও নেই। এই দেশ আমাদের, জনগণই দেশের মালিক, দেশ তার মালিকের কাছেই আছে, তাই ভয়ের কোনো কারণ নেই। এখন সবার ঐক্য দরকার।
তিনি বলেন, সব মানুষ সমান, আমরা এক সঙ্গে সব ধর্মের মানুষ সমান মর্যাদা নিয়ে বসবাস করব, এটা আওয়ামী লীগ বলে। বঙ্গবন্ধুও বলেছিলেন। এখন বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাও বলছেন। তারপরও সব মানুষ একই মনের, একই আচরণের হবে না, এটি বুঝতে হবে।
বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, একটি দল আছে যারা অসাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করে না। তারা দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে চায়। তারা নানাভাবে ষড়যন্ত্র লিপ্ত। এদের থেকে সতর্ক থাকতে হবে।
সরকারের উন্নয়ন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ১১ বছরে দেশকে বদলে দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। সবক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। গ্রামে গ্রামে বিদ্যুতের আলো জ্বলেছে। শিশুরা স্কুলে যাচ্ছে। মানুষের জীবনমানে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। এই পরিবর্তনের নেতৃত্বে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মর্যাদার আসনে পৌঁছেছে।
দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের এলাকায় আগে চৈত্র মাসে অভাব দেখা দিতো। কার্তিক মাসে কলেরাসহ বিভিন্ন রোগ দেখা দিতো, অনেক মানুষ মারা যেতো। আজ আমাদের হাওর এলাকায় অভাব, কলেরা, ডায়রিয়ায় এসব নেই।
তিনি প্রয়াত জাতীয় নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের স্মৃতিচারণ করে বলেন, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত আজীবন এলাকার উন্নয়নে কাজ করে গেছেন। তাঁর সহধর্মিণী জয়া সেনগুপ্তাও এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।
দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, অলস লোক ছাড়া কেউ এখন বেকার নেই। তিনি প্রবাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটেসের সাবেক মেয়রসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমরা সবাই মিলে শিক্ষায় পিছিয়ে থাকা হাওরাঞ্চলের জন্য কাজ করে যাব।
সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল আজিজ সরদার।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি দিরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিরাই সরকারি উচ্চ বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গোলাম মোস্তফা সরদার রুমির পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সফর উদ্দিন, দিরাই পৌরসভার মেয়র মোশাররফ মিয়া, সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন নবী।
উপস্থিত ছিলেন দিরাই সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন সিকদার, দিরাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রঞ্জন কুমার রায়, দিরাই উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোহন চৌধুরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রিপা সিনহা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহবুবুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর চৌধুরী, দিরাই প্রেসক্লাব সভাপতি সামছুল ইসলাম সরদার খেজুর, যুবলীগ নেতা একরার হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী