বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৮ অপরাহ্ন

Notice :

পেঁয়াজের দাম নাগালের বাইরেই

স্টাফ রিপোর্টার ::
পেঁয়াজের দাম এখনো সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। খুচরা বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ২০০ টাকায়। বাজার খরচ বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ ভোক্তারা অতি দামের পেঁয়াজ খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন। বেশিরভাগ পরিবারে অর্ধেকে নেমে এসেছে পেঁয়াজের ব্যবহার। যেসব তরকারি পেঁয়াজ ছাড়াই রান্না করা যায়, তা এই মসলাবাদেই রান্না করছেন গৃহিণীরা। অনেক গৃহকর্তাও দৈনন্দিন বাজার খরচ কমাতে তরকারিতে পেঁয়াজের ব্যবহার কমিয়ে আনার পরামর্শ দিচ্ছেন।
এদিকে, সুনামগঞ্জে টিসিবি’র পেঁয়াজ বিক্রির একদিনের মাথায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্রেতারা। সুনামগঞ্জ জেলা শহরের বিভিন্ন দোকানে গিয়ে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
সোমবার শহরের বিভিন্ন দোকানে গিয়ে দেখা গেছে, গত রোববারের চেয়ে কেজিপ্রতি ১০-২০ টাকা বেশি রাখছেন ব্যবসায়ীরা। মূল শহর ও বাজারের ব্যবসায়ীরা ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন। মূল শহরের বাইরের দোকানদাররা ১৯০ থেকে ২০০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন। গ্রাম এলাকায়ও এই অবস্থা বিরাজ করছে।
ক্রেতারা জানান, গত রোববার সরকারিভাবে টিসিবি পৌরসভা চত্বরে ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করে। টিসিবি’র পেঁয়াজের প্রতি ক্রেতাদেরও আগ্রহ ছিল। টিসিবি’র পেঁয়াজ বাজারে আসায় ব্যবসায়ীরা দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন বলে ক্রেতারা জানান।
শহরের নবীনগর এলাকার বাসিন্দা আসমা বেগম বলেন, রোববার বাজারে ১৬০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনেছি। সোমবার প্রয়োজনে আবার বাজারে এসে জানতে পারি পেঁয়াজের দাম ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা। টিসিবি’র পেঁয়াজ বিক্রির কারণে দাম বাড়ানো হয়েছে বলে জানান তিনি।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম বলেন, এখন থেকে বিভিন্ন উপজেলায় পালাক্রমে সপ্তাহে তিনদিন পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি। তাই বাজারে পেঁয়াজের দাম কমবে। তবে কেউ দাম বাড়াতে চাইলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী