1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

৭ মার্চের ভাষণ শোষিত-বঞ্চিত মানুষের অনুপ্রেরণা : এমপি রতন

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০১৭

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি ::
ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি বলেছেন, ইউনেস্কো বিশ্বের প্রামাণ্য ঐতিহ্যের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণকে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। এটা আমাদের বাঙালি জাতির গৌরব। পৃথিবী যতোদিন থাকবে বঙ্গবন্ধুর নামও ততোদিন থাকবে। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু না থাকলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না।
বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কো’র মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে বিশ্বপ্রামাণ্য ঐতিহ্যের স্বীকৃতি লাভ করায় শনিবার জামালগঞ্জে শোভাযাত্রা পরবর্তী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি রতন আরো বলেন, দুই মাসের মধ্যে জামালগঞ্জ সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়কে কলেজিয়েট হাইস্কুলে রূপান্তর, আগামী মাসে সকল বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকে টিউশন ফি প্রদান করা হবে। স্থাপন করা হবে একটি মহিলা কলেজ। যে ক’টি গ্রাম রয়েছে বিদ্যুৎবিহীন, সেই গ্রামগুলোও বিদ্যুতের আওতায় নিয়ে আসা হবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ শুধু ভাষণই নয়, এটা সারা বিশ্বের শোষিত-বঞ্চিত মানুষের অবলম্বন, অনুপ্রেরণা। এই ভাষণ নিপীড়িত মানুষের অধিকার আদায়ে দিক দর্শন, শক্তি যোগায়।
এমপি রতন আরো বলেন, ৭ মার্চের ভাষণে আমাদের অস্তিত্ব, আমাদের ইতিহাস জড়িয়ে রয়েছে। এই ভাষণের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের মানুষ উজ্জীবিত হয়েছিল।সেই ভাষণের মধ্য দিয়ে শুধু স্বাধীনতাই আনেননি, অর্থনৈতিক মুক্তি এনেছিলেন। কি করতে চান সেটাও তার ভাষণে ছিল। একটা জাতি হিসেবে গড়ে তোলার সব প্রয়োজনটাই ভাষণে ছিল। তিনি একদিকে ইতিহাস তুলে ধরেছেন, অপর দিকে অসহযোগ আন্দোলনে কি কি করতে হবে সেই নির্দেশনাও দিয়েছিলেন।
জামালগঞ্জ সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুল হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শিক্ষক সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জামালগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ মো. হাবিবুর রহমান চৌধুরী।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার ইউসুফ আল-আজাদ, উপজেলা আ.লীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলী, সাধারণ সম্পাদক এম নবী হোসেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ও জেলা কৃষক লীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আসাদ উল্লাহ সরকার, সাবেক কমান্ডার আব্দুর রাজ্জাক মাস্টার, উপজেলা সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিছবাহ উদ্দিন, ফেনারবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু তালুকদার, জামালগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লুৎফুর রহমান, আ.লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী আশরাফুজ্জামান, আ.লীগ নেতা অ্যাড. নাসিরুল হক আফিন্দী প্রমুখ। আলোচনা শেষে সপ্তক সংগীত পরিষদ আয়োজিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com