1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০২:১৮ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

বরের জন্ম নিবন্ধন না থাকা বিয়ে রেজিস্ট্রিতে অসম্মতি : জগন্নাথপুরে কাজী লাঞ্ছিত

  • আপডেট সময় শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি ::
জগন্নাথপুরে এক বিবাহ অনুষ্ঠানে বরের জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্ম নিবন্ধন না থাকায় বিয়ে রেজিস্ট্রি করতে অসম্মতি করায় কাজীকে ঘরে তালাবদ্ধ করে মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গতকাল শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের মজিদপুর গ্রাম এলাকার সায়েক কমিউনিটি সেন্টারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ডুংরিয়া গ্রামের বর সাইফুদ্দিনের সাথে ছাতক উপজেলার শ্রীমতিপুর গ্রামের কনের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিয়ের শুরুতে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক বিয়ের রেজিস্ট্রি করার পূর্বে আক্দ পড়ানো হয়। এ সময় স্থানীয় কলকলিয়া ইউনিয়নের দায়িত্বে থাকা কাজী জালাল উদ্দিন বর ও কনের জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্ম নিবন্ধনের কাগজপত্র দেখতে চান। তখন কনের জন্ম নিবন্ধনের কাগজপত্র দেখালেও বরের জন্ম নিবন্ধনের কাগজপত্র দেখাতে না পারায় বিয়ে রেজিস্ট্রি করতে অস্বীকৃতি জানান কাজী। এতে বরপক্ষের লোকজন উত্তেজিত হয়ে কাজী জালাল উদ্দিনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে একটি ঘরে নিয়ে তালাবদ্ধ করে রাখেন এবং কাজীকে মানসিকভাবে নির্যাতন করা হয়। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানার এসআই আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে কাজীকে উদ্ধার করেন এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় বিয়েটি পন্ড হয়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কাজী জালাল উদ্দিন জানান, সরকারি নির্দেশ মেনে জন্ম নিবন্ধন ছাড়া বিয়ে রেজিস্ট্রি না করায় বরপক্ষের লোকজন আমাকে ঘরে তালাবদ্ধ করে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com