1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ১০ মে ২০২১, ১২:৩২ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

আজিজুস সামাদ ডনের সামনে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হাতছানি

  • আপডেট সময় শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ::
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আসন্ন কেন্দ্রীয় সম্মেলনে জাতীয় নেতাদের ছেলেদের মূল্যায়ন করা হবে বলে জানা গেছে। এই সিদ্ধান্তের ফলে জাতীয় নেতা ও স্বাধীন বাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত আব্দুস সামাদ আজাদের ছেলে সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আজিজুস সামাদ আজাদ ডনের সামনে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব হাতছানি দিচ্ছে। কেন্দ্রীয় সম্মেলনে অন্যান্য জাতীয় নেতাদের ছেলের মতো তাকেও গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়ন করা হবে বলে জানা গেছে। একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছেন ওয়ান ইলেভেনের অভিজ্ঞতা ও পারিপার্শ্বিক নানা অভিজ্ঞতার আলোকে আওয়ামী লীগ পরীক্ষিত জাতীয় নেতাদের প্রজন্মকে দলে সক্রিয় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জানা গেছে, ওয়ান ইলেভেনের সময়ে যখন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অফিস নেতাকর্মী শূন্য ছিল তখন আজিজুস সামাদ ডনসহ কয়েকজন সাহস নিয়ে অফিস সামলিয়েছেন। নিয়মিত দলীয় অফিসে গিয়ে কার্যক্রম চালিয়েছেন। তাছাড়া তৃণমূলে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে তিনি সুনামগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায়ও নিয়মিত সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। গত পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে নিয়মিত কাজ করে তিনি কেন্দ্রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এছাড়াও সুনামগঞ্জের মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গেও রয়েছে তার আন্তরিক সম্পর্ক। সম্প্রতি মুক্তিযোদ্ধারা তাকে একটি সমাবেশে সংবর্ধনা দিয়েছেন। এভাবে দলের প্রতি তার আন্তরিকতা ও ত্যাগের বিষয়টি নানা মাধ্যমে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা অবগত আছেন। ব্যক্তিগতভাবে সততা ও নিষ্ঠার মাধ্যমেও তিনি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামসহ দায়িত্বশীল নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছেন।
তাঁর প্রতি আস্থা রেখেই দলের আসন্ন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতেও তাকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়া হয়েছে।
এদিকে নানা মাধ্যমে আজিজুস সামাদ ডনের আসন্ন কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানের কথা জানতে পেরে জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের অনেক নেতাকর্মীও তার প্রতি দৃষ্টি দিয়েছেন। তারা সম্প্রতি আজিজুস সামাদ আজাদ ডনের সঙ্গে নিজেদের ব্যক্তিগত সম্পর্কও উন্নয়ন করছেন।
এদিকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে আজিজুস সামাদ ডনের গুরুত্বপূর্ণ পদের হাতছানি লক্ষ্য করে সুনামগঞ্জের শীর্ষ নেতারা সেই নেতৃত্ব থেকে ফেরাতে কৌশলে তাকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার পরামর্শ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে। আজিজুস সামাদ আজাদ ডন স্থানীয় নেতাদের এই কৌশল ধরতে পেরে তাদের আগ্রহের বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের অনাগ্রহ ব্যক্ত করেছেন। তিনি তাদের জানিয়েছেন তিনি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করতে চান। কোন মন্ত্রী, এমপি বা প্রশাসক হতে চান না।
জানা গেছে, সারাদেশের ন্যায় সিলেট বিভাগে কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদ প্রত্যাশীরা দলীয় প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষণ করার নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। সিলেটের লন্ডনপ্রবাসী বলয় সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সিলেট বিভাগে পদ পদপ্রত্যাশীদের মধ্যে আছেন বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, মহানগর নেতা আসাদ, সাবেক সিটি মেয়র বদরুদ্দিন আহমদ কামরান, হবিগঞ্জ সদরের এমপি জাহিদ প্রমুখ। এই নেতারা দলের যুগ্ম- সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদের জন্য চেষ্টা করছেন বলে জানা গেছে।
তবে এদের সবাইকে ছাপিয়ে এবারের সম্মেলনে সবচেয়ে আলোচিত নাম আজিজুস সামাদ ডন। তার পিতার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ক্যারিয়ার জাতির জনকের সঙ্গে আমৃত্যু সম্পর্কের কথা বিবেচনায় রেখে তার ছেলেকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমৃতু আব্দুস সামাদ আজাদ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত হিসেবে আওয়ামী লীগে বিবেচিত। এসব বিবেচনায় নিয়েই তার তাঁর পুত্র মেরিন ইঞ্জিনিয়ায়ার আজিজুস সামাদ আজাদকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে মূল্যায়নের জল্পনা-কল্পনা চলছে। রাজনীতির পাশাপাশি আজিজুস সামাদ ডন বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক পরিচিত নাম। তিনি একজন সফল নাট্যকার ও কথা সাহিত্যিক। আসন্ন সম্মেলনে আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত বন্ধু পরিবারের সন্তান আজিজুস সামাদ ডনকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে যুগ্ম-সম্পাদক বা সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মূল্যায়ন করা হবে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।
আজিজুস সামাদ আজাদ ডন বলেন, আমি আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে আমার বাবা আব্দুস সামাদ আজাদ আজীবন বিশ্বস্ততার সঙ্গে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে কাজ করে গেছেন। তিনি দলের দুঃসময়েও নেতাকর্মীদের ধরে রেখে দলকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। আমি তার সন্তান হিসেবে এমপি মন্ত্রীত্ব চাইনা, জননেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতে চাই।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com