1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

গোধারগাঁও বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৩০ আগস্ট, ২০১৬

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) সুনামগঞ্জ ও গোধারগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকেলে বিদ্যালয় মাঠে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ সনাকের সভাপতি নুরুর রব চৌধুরী। অভিভাবক সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, শিশুরাই একটি দেশ, সমাজ ও জাতির ভবিষ্যত কর্ণধার। তাই তারাই বেশি গুরুত্ব পাওয়ার দাবিদার। এই সময়ে তারা যা শিখে বা তাদের যা শেখানো হয় তার উপর ভিত্তি করেই গড়ে উঠে তাদের তথা জাতির ভবিষ্যৎ। অথচ আজকে যে শিক্ষা ও দিকনির্দেশনা পাচ্ছে তাতে তারা আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে পারছে না। জন্মের পর থেকেই শিশুর শিক্ষা শুরু হয়। মা হলো শিশুর প্রথম শিক্ষক। শিশুর শিক্ষার প্রথম পাঠ শুরু হয় মায়ের কাছ থেকে তথা পরিবার থেকে। একটি শিশুকে গড়া মানে একটি জাতিকে গড়া। আর জাতি গড়ার এ মহান দায়িত্ব ন্যস্ত হয় বাবা মা ও পরিবারের উপর।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সুনামগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হযরত আলী বলেন, বর্তমানে সরকার শিক্ষা তথা প্রাথমিক শিক্ষা বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক। ফলে সরকার শিক্ষার উন্নয়নে ইতিমধ্যে অনেক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশে বলেন, বাবা মা তথা অভিভাবকদের আন্তরিক প্রচেষ্টা ছাড়া একটি শিশুর সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। সন্তানের লেখাপড়ার যতেœর পাশাপাশি তার স্বাস্থ্যগত যতœ এবং সাধ্যমত পুষ্টিকর খাবারের প্রয়োজন। তাছাড়া শুধুমাত্র স্কুল কলেজের শিক্ষা দিয়ে সন্তানকে আদর্শ মানুষরূপে তৈরি করা সম্ভব নয়। তার প্রয়োজন আত্মিক এবং চারিত্রিক গঠন। এই গঠন পরিবার থেকে অভিভাবকদেরকেই দায়িত্ব পালন করতে হবে। বিদ্যালয়ের উন্নয়নে তিনি শিক্ষক এসএমসির পাশাপাশি অভিভাবক এবং স্থানীয় জনগণকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
তিনি বিদ্যালয়ের বিরাজমান বিদ্যুৎ বিল, ক্লাসরুম ও শিক্ষক স্বল্পতা, বাউন্ডারি ওয়াল ইত্যাদি সকল সমস্যা সমাধানের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সময়মত উপস্থিতি এবং যথানিয়মে গুণগত পাঠদান করার জন্য বলেন।
মুক্ত আলোচনায় প্রশ্নোত্তর পর্বে অভিভাবকগণ উপবৃত্তি প্রদান, এসএমসি, শিক্ষকের উপস্থিতি ও নির্দিষ্ট সময়ের পূর্বে স্কুল বন্ধ, গুণগত পাঠদান ইত্যাদি বিষয়ে প্রশ্ন করেন। উপস্থিত অতিথিবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও এসএমসির সভাপতি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সনাক সদস্য ধূর্জটি কুমার বসু, সঞ্চিতা চৌধুরী, বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোছা. সিরাজুন্নেছা, এসএমসির সভাপতি জহুর মিয়া, ইউপি সদস্য আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে সনাকের পক্ষ থেকে ২০১৬ সালের ৫ম শ্রেণির সকল সমাপনী পরীক্ষার্থীদের জন্য কলম, পেনসিল রাবার, শার্পনার এবং পেনসিল বক্স প্রদান করে তাদের পড়াশোনায় উৎসাহিত করা হয়। অভিভাবক সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সনাকের শিক্ষা কমিটির আহ্বায়ক যোগেশ্বর দাশ। অনুষ্ঠানে অভিভাবক ছাড়াও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com