1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বুধবার, ২২ জুন ২০২২, ১০:৫৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

আনন্দ-উদ্দীপনায় জন্মাষ্টমী উদযাপিত

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ::
ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য আর আনন্দ – উদ্দীপনায় ভগবান শ্রীকৃষ্ণের পবিত্র জন্মতিথি বা জন্মাষ্টমী উদ্যাপন করেছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খিস্টান ঐক্য পরিষদের আয়োজনে শহরে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। সার্বিক পরিচালনায় ছিল জেলা জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদ। মঙ্গল শোভাযাত্রায় শত শত মানুষ অংশ নেন।
শোভাযাত্রায় জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশিদ-সহ হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের ভক্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শোভাযাত্রাটি কেন্দ্রীয় শ্রীশ্রী কালীবাড়ি মন্দির হতে পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর আগে কালিবাড়ি নাট মন্দির প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। এতে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।
এদিকে বেলা ১২টায় পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের ৫২৮২তম জন্মাষ্টমী মহোৎসব উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন ও মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, সুনামগঞ্জ।
জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনা সভায় বরেণ্য অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শামছুন নাহার বেগম (শাহানা রব্বানী)। সুবিমল চক্রবর্তী চন্দনের সঞ্চালনায় মুখ্য আলোচকের বক্তব্য রাখেন রামকৃষ্ণ আশ্রমের অধ্যক্ষ হৃদয়ানন্দজী মহারাজ লালন।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও তথ্য প্রযুক্তি) আইনুর আক্তার পান্না, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাড. আফতাব উদ্দিন আহমদ, লেখক ও কলামিস্ট অ্যাড. স্বপন কুমার দেব, শিক্ষাবিদ দিলীপ কুমার মজুমদার, শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে, শিক্ষাবিদ যোগেশ্বর দাস, শিক্ষাবিদ ধূর্জটি কুমার বসু, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নৃপেশ তালুকদার নানু, সাধারণ সম্পাদক বিমল বণিক, অ্যাড. পরিতোষ চন্দ্র রায়, অ্যাড. বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী, অ্যাড. গৌরাঙ্গ পদ দাস, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি দিপক ঘোষ, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের সহকারি পরিচালক হুমায়ূন কবির, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি গৌরী ভট্টাচার্য্য, অ্যাড. প্রণব কান্তি দাস নিলু প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ পৌর কাউন্সিলর চঞ্চল কুমার লোহ, অভিজিৎ চৌধুরী, রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, যুবনেতা ঝন্টু তালুকদার প্রমুখ।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ভাদ্র মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টম তিথিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ জন্মগ্রহণ করেন। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, পাশবিক শক্তি যখন ন্যায়-নীতি, সত্য ও সুন্দরকে গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন সেই শক্তিকে দমন করে মানবজাতির কল্যাণ এবং ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠার জন্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব ঘটেছিল। পরমেশ্বর ভগবান শ্রী কৃষ্ণ অত্যাচারীর বিরুদ্ধে দুর্বলের অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং দুষ্টের দমন ও শিষ্টের লালন করতেই এ পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছিলেন। শান্তিহীন পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতেই শ্রী কৃষ্ণের আগমন।
বক্তারা বলেন, ঈশ্বর আছেন সবার হৃদয়ে। বিশ্বের যা রূপ সবই ঈশ্বরের। সবার হৃদয়েই ঈশ্বর বাস করেন। প্রত্যেক ধর্মেই শান্তি ও মানবতার কথা বলা হয়েছে।
সুনামগঞ্জে সব ধর্মের মানুষের সহাবস্থান বিরাজ করছে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে দেশ থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ধর্মের বাণী সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।
এদিকে তাহিরপুরে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও ধর্মসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে রাধা-গোবিন্দ মন্দির থেকে শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে উপজেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে রাধা গোবিন্দ মন্দির প্রাঙ্গণে ধর্মসভায় মিলিত হয়।
সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি সুভাষ পুরকায়স্থ, উপজেলা আওয়ামী লীগ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক স্বপন কুমার দাস, দপ্তর সম্পাদক রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ, সমাজসেবক গোপাল চক্রবর্তী, রতন গাঙ্গুলী, আওয়ামী লীগ নেতা রঞ্জু মুখার্জী, তাহিরপুর বাজার বণিক সমিতি সভাপতি দিলীপ কুমার চন্দ, সমাজসেবক সজল বর্মণ, ইউপি সদস্য প্রদীপ দাস, কবীন্দ্র চন্দ প্রমুখ।
বাদাঘাট ইউনিয়নেও যথাযোগ্য মর্যাদায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মষ্টমী উদ্যাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাদাঘাট সনাতন ধর্মাবলম্বীদের আয়োজনে ও আন্তর্জাতিক ভাবনামৃত সংঘ ইসকন-এর সহযোগিতায় সকালে বাদাঘাট বাজার কালীবাড়ী মন্দির থেকে র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কালীবাড়ি মন্দির প্রাঙ্গণে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। আলোচনা সভায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি নিয়ে বক্তব্য রাখেন বাদাঘাট ইসকন মন্দিরের সভাপতি কৃষ্ণদাস ব্রহ্মচারী।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বাদাঘাট কালীবাড়ি মন্দির পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা প্রীতি রঞ্জন সরকার কানু, ডা. গোবিন্দ তালুকদার, সহ সভাপতি স্বপন তালুকদার, বাদাঘাট লোকনাথ সেবা সংঘের উপদেষ্টা পঙ্কজ সরকার, রঞ্জন দাস, রামমোহন পুরকায়স্থ রঙ্গু, লোকনাথ সেবা সংঘের সভাপতি পিংকু সরকার, সহ সভাপতি তাপস সরকার, কাজল চন্দ, বিকাশ শুক্লবৈদ্য, সাধারণ সম্পাদক গণেশ তালুকদার, অর্থ সম্পাদক রবি শুক্ল বৈদ্য প্রমুখ।
বিশ্বম্ভরপুরে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আধুখালি দক্ষিণ পাড়া জগন্নাথ মন্দির যুব সংঘের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার উপজেলা সদরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিকেলে মন্দিরে আয়োজন করা হয় আলোচনা সভার। এতে সভাপতিত্ব করেন আধুখালি দক্ষিণ পাড়া জগন্নাথ মন্দির যুব সংঘের সভাপতি কুমুদ দেবনাথ। সাধারণ সম্পাদক অখিল দেবনাথের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় শ্রীকৃষ্ণের জীবন-কর্ম নিয়ে আলোচনা করেন সহ-সভাপতি রাশেন্দ্র দেবনাথ, সহ সম্পাদক দয়াময় দেবনাথ, রবীন্দ্র বিশ্বাস, সুশীল বিশ্বাস, করুণা দেবনাথ, অর্জন দেবনাথ, প্রভাত দেবনাথ, বাদল দেবনাথ, সোহেল দেবনাথ, বিকাশ দেবনাথ। সভায় মন্দির কমিটির ব্যক্তিবর্গ সহ বিভিন্ন লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া কৃষ্ণনগর মন্দির কমিটি পূজা উদ্যাপন পরিষদ জন্মাষ্টমী পালন করেছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা সার্বজনীন জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের উদ্যোগে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার শোভাযাত্রা উদ্বোধন করেন জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ। এতে অংশ নেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার অরূপ রায়, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীন, জগন্নাথপুর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীরেন্দ্র কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু শেখর রায় বাচ্চু, পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি শংকর লাল দে, সাধারণ সম্পাদক প্রণব কুমার বণিক, সর্বজনীন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক হীরা মোহন দেব, সদস্য সচিব দেবাশীষ তালুকদার, যুগ্ম আহ্বায়ক প্রজেশ গোপ, শশী কান্ত গোপ, প্রদীপ কুমার দে, কাজল বণিক, সদস্য নিশি কান্ত রায়, প্রদীপ সূত্রধর, বিজন কুমার দেব, সুজিত কুমার রায়, অমিত দেব, এস.কে চৌধুরী শিমু, দ্বীপক কুমার দে, ক্ষিতিশ দাস, সুরাই দাস, সুজিত কুমার দেব, কল্যাণ কান্তি রায় সানি প্রমুখ।
শোভাযাত্রা শেষে বিকেলে জগন্নাথ জিউর কেন্দ্রীয় মন্দিরে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। সার্বজনীন জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের আহ্বায়ক হীরা মোহন দেব-এর সভাপতিত্বে ও বিজন কুমার দেবের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীরেন্দ্র কুমার দে, শিক্ষক প্রফুল্ল কুমার দাশ, আশুতোষ দাশ, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর লাল দেব, সহ-সভাপতি সতীশ গোস্বামী, সাধারণ সম্পাদক প্রণব কুমার বণিক, সাংগঠনিক সম্পাদক অমিত দেব, সার্বজনীন জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের সদস্য সচিব দেবাশীষ তালুকদার, যুগ্ম আহ্বায়ক প্রজেশ গোপ, শশী কান্ত গোপ, প্রদীপ কুমার দেব, ধনেশ চন্দ্র রায়, বিদ্যুৎ কুমার রায়, রথিন্দ্র সূত্রধর, সুবোধ পাল প্রমুখ। সভায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
অপরদিকে রানীগঞ্জ ইউনিয়নের মেঘারকান্দি গোপাল জিউর আখড়ায় জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। মহিলা গীতা সংঘের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় মহিলা গীতা সংঘের সভাপতি বাসন্তী রানী তালুকদারের সভাপতিত্বে শিক্ষক রাধারঞ্জন চৌধুরী, দুর্গাপদ তালুকদার, অমিয় গোপাল পুরকায়স্থ, অরবিন্দু তালুকদার, পল্লী চিকিৎসক বিবেকানন্দ মিত্র আলোচনায় অংশ নেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com