1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের শিশুদের জন্য আবাসিক স্কুল হবে : প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৬

মো. আমিনুল ইসলাম ::
সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে যেসব শিশুরা দূর দূরান্ত থেকে নৌকায় করে ঝুঁকি নিয়ে স্কুলে যায় তাদের জন্য আবাসিক স্কুলের ব্যবস্থার ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসন ও শিক্ষা বিভাগের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে এ বিষয়টি উল্লেখ করেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেয় সুনামগঞ্জ ও কক্সবাজার জেলা। প্রথমে সুনামগঞ্জ ও পরে কক্সবাজার জেলার জেলা প্রশাসক ও শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলেছি। আগে একটা মোবাইল ফোনের দাম ছিলো ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। প্রতি মিনিট ১০টাকা করে কথা বলতে হতো। আজকে ডিজিটাল পদ্ধতি মানুষের জীবনযাত্রা সহজ করে দিয়েছে।’
শিক্ষার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পৃথিবীর অন্যান্য দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের তুলনায় আমাদের দেশের ছাত্রছাত্রীরা অনেক মেধাবী। জাতির পিতা চেয়েছিলেন ছেলে এবং মেয়েরা সমানভাবে শিক্ষিত হয়ে উঠুক। তাই এখন মেয়েরাও ছেলেদের সঙ্গে সমানতালে এগিয়ে।
তিনি বলেন, একমাত্র শিক্ষাই পারে দেশকে দারিদ্রমুক্ত করতে। শিক্ষাক্ষেত্রে আমরা যেনো আন্তর্জাতিকমানের হতে পারি জাতির পিতা সেটাই চেয়েছিলেন। ছেলেদেরকে পড়াশোনায় আরো বেশি মনোযোগী হতে হবে। তারা খেলাধুলা করবে তা ঠিক আছে, শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলা ও ফিটনেসের প্রয়োজন আছে, কিন্তু লেখাপড়া অবশ্যই করতে হবে। আমরা শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করছি। প্রতিটা জেলায় একটি করে সরকারি অথবা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হবে, বাংলাদেশ একটি শিক্ষিত জাতির দেশ হবে’।
তিনি বলেন, সকলের আন্তরিকতায় শিক্ষার উত্তরোত্তর উন্নয়ন হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি মর্যাদা নিয়ে বাঁচার জন্য। জাতির পিতার পরিবারকে হত্যার উদ্দেশ্য ছিল স্বাধীনতার চেতনাকে ধ্বংস করা, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীরাই এ চক্রান্ত করেছিল।’
এ বক্তব্যের আগে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের এবছরের সাফল্যের ব্যাপারে আলোচনা করেন। পরে শিক্ষামন্ত্রী ও সকল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা এইচএসসি’র ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর হাতে তোলে দেন। সকাল ১০টা ৫৫মিনিটে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে এইচএসসির ফলাফল প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।
ফলাফল প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে তিনি এবছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাকে সফল করে তোলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানান।
প্রধানমন্ত্রীর প্রথম ধাপের বক্তব্য শেষ হয় ১১টা ২০ মিনিটে। পরে ১১টা ২১ মিনিটে তিনি সুনামগঞ্জের সঙ্গে মতবিনিময় শুরু করেন। প্রথমেই সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের ভূয়সি প্রশংসা করেন এবং সুনামগঞ্জের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। তিনি সুনামগঞ্জের বিভিন্ন সফলতার কথা তোলে ধরেন।
পরে শেখ রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী রুবাইয়া আলতাফ নুরা, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী জয়ন্ত পাল, সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী আয়েশা ইসলাম ও আলহেরা জামেয়া মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী এমরান শিকদার। বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুস ছত্তার।
সুনামগঞ্জ জেলার সকলের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর সুস্থতা কামনা ও সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সফলতায় অভিনন্দন জানিয়ে সমাপনী বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম।
পরে ১১টা ৩৬মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুনামগঞ্জবাসীর উদ্দেশে বক্তব্য দেন। তিনি সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের শিশুদের জন্য আবাসিক স্কুল করার পরিকল্পনার কথা জানান। তিনি বলেন, ‘সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চল সম্পর্কে আমার অভিজ্ঞতা আছে। সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের শিশুদের জন্য আবাসিক স্কুল হবে। শিশুরা তাতে হাওর পারি না দিয়েই শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এজন্য এলাকা ভাগ করে দিলেই হবে।’ তিনি পরে সুনামগঞ্জের সকল শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানান। সুনামগঞ্জের পক্ষ থেকে যেসব শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছে তাদেরকেও তিনি নাম উল্লেখ করে ধন্যবাদ জানান। ১১টা ৪১ মিনিটে তিনি বক্তব্য শেষ করেন।
পরে কক্সবাজারের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
এ ভিডিও সম্মিলনিতে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামছুন নাহার বেগম (শাহানা রব্বানী), জেলা পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশীদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. কামরুজ্জামান, নারীনেত্রী শিলা রায়, শিক্ষাবিদ দিলীপ কুমার মজুমদার, পরিমল কান্তি দে, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হযরত আলী, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিনসহ বিভিন্ন কলেজ ও মাদ্রাসার অধ্যক্ষবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ, বিভিন্ন সরকারি অফিসের কর্মকর্তাবৃন্দ, আইনজীবী, সাংবাদিক, শিক্ষক ও বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com