1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৯:৩১ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

এইচএসসি : সিলেটে পাঁচ বছরের মধ্যে খারাপ ফল

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৬

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
সিলেট শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসিতে এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে। গত পাঁচ বছরের মধ্যে এবারই সবচেয়ে খারাপ ফল এসেছে এ বোর্ডে। বোর্ডে এবার পাশের হার ৬৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ। গত বছর এই হার ছিল ৭৪ দশমিক ৫৭ শতাংশ। গত বছর ১ হাজার ৩৫৬ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন। এবার পেয়েছেন ১ হাজার ৩৩০ জন। এবার মোট ৬৩ হাজার ৯৫৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছেন ৪৩ হাজার ৮৭০ জন।
বৃহ¯পতিবার দুপুরে বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে ফল প্রকাশ করেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. শামসুল ইসলাম।
ইংরেজি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ে বেশি শিক্ষার্থী ফেল করায় এবার ফল খারাপ হয়েছে বলে মনে করেন বোর্ড কর্মকর্তারা।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শামসুল বলেন, “গতবছর ইংরেজি বিষয়ে ৮৫ দশমিক ৮২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করলেও এবার পাস করেছেন ৭৭ দশমিক ৯৫ শতাংশ। আর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ে গতবছর ৯৮ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করলেও এবার পাস করেছেন ৯৩ শতাংশ। এ দু’টি বিষয় আবশ্যিক হওয়ায় ফলাফলে প্রভাব পড়েছে।”
তবে ফল বেশি খারাপ হয়েছে এমনটা মানতে নারাজ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাসমুল ইসলাম। তার মতে, সার্বিক ফলাফল ভালই হয়েছে।
“দেশের অন্যান্য বোর্ডের ফলাফল বিশ্লেষণ করলে ফল বেশি খারাপ হয়েছে বলা যাবেনা,” বলেন তিনি।
সিলেট বোর্ডের অধীনে চার জেলায় পাসের হার- সিলেটে ৭৩ দশমিক ৩০, হবিগঞ্জে ৬৭ দশমিক ২০, মৌলভীবাজারে ৬০ দশমিক ৬২ ও সুনামগঞ্জে ৬৯ দশমিক ২০ শতাংশ।
পাঁচ বছরে খারাপ ফল
বিগত পাঁচ বছরের মধ্যে এবারই সবচেয়ে খারাপ ফল করেছে সিলেট শিক্ষা বোর্ড। ২০১২ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৮৫ দশমিক ৩৭ শতাংশ। এছাড়া ২০১৩ সালে ৭৯ দশমিক ১৩ শতাংশ, ২০১৪ সালে ৭৯ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং ২০১৫ সালে ৭৪ দশমিক ৫৭ শতাংশ ছিল পাসের হার।
এগিয়ে ছেলেরা
গত বছর মেয়েরা ভাল ফল করলেও এবার ছেলেরা বেশি পাস করেছেন। ২৯ হাজার ৫৫৩ জন ছেলে পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছেন ২০ হাজার ৭৭৯ জন। অন্যদিকে ৩৪ হাজার ৪০৬ জন মেয়ে পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ২৩ হাজার ৯১ জন।
বিজ্ঞান বিভাগের ভাল ফল
বোর্ডে এবার বিজ্ঞান বিভাগ থেকে সবচেয়ে বেশি করেছে ৮৭ দশমিক ২৩ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছেন। এছাড়া ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ৭৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ, মানবিক বিভাগে ৬২ দশমিক ৬১ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছেন।
সিলেট বোর্ডে এবার এক হাজার ৩৩০ জন জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগ থেকেই পেয়েছেন এক হাজার ৭৬ জন। বোর্ডের এবারের একমাত্র সাফল্য- কেউ পাস করেননি এমন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই। পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ২৪৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পাঁচটির শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com