1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:২২ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

সৌদিতে কর্মী পাঠাতে চাহিদাপত্র আসা শুরু হয়েছে

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৬

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
সৌদি আরবের শ্রমবাজার (পুরুষ) স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের পর বাংলাদেশ থেকে পুরুষ কর্মী নিতে দেশটি হতে চাহিদাপত্র আসা শুরু হয়েছে বলে জানিয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। ইতোমধ্যে সৌদি আরব থেকে ১০০-১৫০ জন করে ২টি কো¤পানির কাছ থেকে চাহিদাপত্র এসেছে বলে জানান তিনি।
রাজধানীর ইস্কাটনে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রবাসী কল্যাণ ভবনের সভাকক্ষে জর্ডান ও লেবানন সফরপরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
২০০৯ সাল থেকে দীর্ঘ ৭ বছর পুরুষ কর্মী নেওয়া স্থগিত রেখেছিল দেশটি।
কম খরচে সৌদি আরবে কর্মী পাঠানোর চেষ্টা করা হচ্ছে জানিয়ে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, সৌদিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গে আলোচনা করে স্বল্প অভিবাসন নির্ধারণ করে দেশটিতে কর্মী পাঠানো হবে।
জর্ডান ও লেবানন সফরে আশাব্যঞ্জক সাফল্য এসেছে উল্লেখ করে নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, গত ৬-৯ আগস্ট জর্ডানের শ্রমমন্ত্রী আলী আল গাজায়ীর সঙ্গে আমার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে কৃষি ও নির্মাণখাতসহ সব খাতে পুরুষ কর্মী পাঠানোর বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সেদেশে কী পরিমাণ পুরুষ কর্মী নিয়োগ হবে তার চাহিদার নিরিখে যথাযথ সিদ্ধান্ত নেবে উভয় দেশ। এছাড়া দেশটিতে গৃহকর্মীদের কোনো প্রকার শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন, পরিমিত খাবার, নিয়মিত বেতন পরিশোধের বিষয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জর্ডানের শ্রম মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান তিনি।
লেবানন সফর প্রসঙ্গে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, ১১-১৩ আগস্ট লেবানন সফরকালে সেদেশের শ্রম মন্ত্রী সিজান আজ্জির সঙ্গে আমাদের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হয়েছে। সেদেশের মন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে আরও নারী ও পুরুষ কর্মী নেওয়ার পাশাপাশি তাদের বেতন বৃদ্ধির আশ্বাস দিয়েছেন।
তিনি বলেন, লেবাননে ডাক্তার, নার্স, কন্সট্রাকশনসহ সব সেক্টরে কর্মীর চাহিদা রয়েছে। লেবাননে কর্মী নিয়োগের বিষয়ে অনতিবিলম্বে উভয় দেশের মধ্যে একটি সমঝোতা সই হবে বলে জানান প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী।
মালয়েশিয়া জিটুজি প্লাস চুক্তির আলোকে কর্মী পাঠানোর সর্বশেষ অবস্থা স¤পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, মালয়েশিয়ার ব্যাপারে আমরা এখনও অন্ধকারে। মালয়েশিয়ায় কি করতে চায় সেটা আমরা জানি না। তবে সেখানে কোনো সিন্ডিকেশন করতে দেব না। সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আমরা সেখানে ৭৩৫টি এজেন্সির তালিকা পাঠিয়ে দিয়েছি। এই ৭৩৫ জনই ব্যবসা করবে।
কর্মী যাওয়া কবে থেকে শুরু হবে-এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সেটা মালয়েশিয়ার উপরই নির্ভর করছে। মালয়েশিয়া যখন চাইবে, আমরা কর্মী পাঠাতে রেডি আছি। তবে আমি বরাবরই বলে আসছি মালয়েশিয়ায় এখনো বাজার ওপেন হয়নি। এখনই কাউকে আপনারা কেউ টাকা-পয়সা দেবেন না।
এ ব্যাপারে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব বেগম শামসুন নাহার বলেন, আমাদের টেকনিক্যাল টিম কাজ করে যাচ্ছে। সেখানে কর্মী পাঠানোর পুরো প্রক্রিয়া অনলাইনে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ, আযহারুল হক, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক সেলিম রেজা ও ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com