1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

রাতের শহর : অলি-গলিতে ঘুরছে উদ্দেশ্যহীন থ্রি হুইলার

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০১৬

মো. আমিনুল ইসলাম ::
রাত ২টা ১১মিনিট। বিশ্বস্ত সূত্রের খবরে রাতের শহরে সুনামকণ্ঠ টিম। মোটর বাইকে করে শহরের আলফাত স্কয়ার থেকে যাত্রা শুরু। উদ্দেশ্য শহরের বিভিন্ন এলাকা। দিনের আলোতে চেনা শহরের রূপ এক। আর ‘গভির রাতে এ শহর যেনো রহস্যের ছড়াছড়ি’। এমন সব তথ্য সংগ্রহে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন এ প্রতিবেদক। সঙ্গে ছিলেন বার্তা বিভাগের আরেক সংবাদকর্মী নূরে আলম। দির্ঘ দিন ধরেই রাতের শহর নিয়ে বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের নানা অভিযোগ জমেছিলো প্রতিবেদকের কাছে। এর মধ্যে ছিলো ভাসমান পতিতা, মাদকসেবীদের উৎপাত, চুরি, ছিনতাইসহ আরো কিছু অভিযোগ। তবে তার চেয়েও আলাদা কিছু ধরা পরে সুনামকণ্ঠ’র ক্যামেরায়। আর সেটি হচ্ছে রাতের শহরের অলি-গলিতে উদ্দেশ্যবিহিন ঘুরাফেরা করতে থাকা কিছু সিএনজি চালিত অটোরিকশা। তিন চাকার এ মোটরযানগুলোকে দূর থেকে পুলিশের ‘মোবাইল টিমের’ টহল গাড়ি মনে হলেও মূলত এসব সিএনজি অটোরিকশায় পুলিশের বদলে উঠতি বয়সি কিছু যুবককে দেখা গেছে। যারা এ পাড়া থেকে অন্য পাড়ায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। তাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য কী সেটা বুঝে উঠতে না পারলেও শহরের ব্যস্ততম সড়কগুলোর বিভিন্ন পয়েন্টের পাহাড়াদারদের কাছ থেকে জানা গেলো প্রায়ই গভির রাতে ঘুরে বেড়ায় এসব সিএনজি অটেরিকশা।
বুধবার রাত ২টা ২৭ মিনিটে সুনামকণ্ঠ টিমের অবস্থান শহরের বিহারি পয়েন্ট এলাকায়। এসময় একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশাকে ময়নার পয়েন্ট থেকে বিহারি পয়েন্টের উদ্দেশ্যে ধীর গতিতে এগিয়ে আসতে দেখা গেলো। কিন্তু কিছু পথ অগ্রসর হয়ে ল্যাম্পপোস্ট থেকে দূরে সেটি সড়কের ডান পাশে একটি বাসার সামনে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে রইলো। প্রায় ৩০ সেকেন্ডের মতো দাঁড়িয়ে থাকার পর সিগারেট হাতে এক যুবককে সিএনজি অটোরিকশা থেকে নামতে দেখা গেলো। সে সড়কের ঠিক মাঝখানে দাঁড়িয়ে ছিলো। মাঝেমধ্যেই সিগারেটে দু’একটা টান। কিছু সময় পর সে সিএনজিতে উঠে বসলে থ্রী হুইলারটি ধীর গতিতে কাজির পয়েন্টের দিকে এগিয়ে যায়। এসময় সিএনজির পেছনের সিটে ২জন যুবককে দেখা গেছে।
এর কিছুক্ষণ পরেই সিএনজি চালিত অটোরিকশায় করে পুলিশের একটি মোবাইল টিম সড়কটিতে টহল দিতে দেখা যায়।
এবার সুনামকণ্ঠ টিম সদর হাসপাতাল হয়ে সরকারি কলেজ এলাকায়। ঘড়িতে সময় রাত ২টা ৩৯মিনিট। কলেজটির ছাত্রী নিবাসের সড়কের উপর ৪জন যুবককে বসে থাকতে দেখা গেলো। মোটর সাইকেলের হেডলাইটের আলো পরতেই তারা সিগারেট টানতে টানতে উঠে দাঁড়ালো। প্রথমে পুলিশ ভেবে তারা নিজেদেরকে আড়াল করার প্রস্তুতি নিলেও পরে প্রতিবেদককে কলেজ গেটের দিকে সোজা অগ্রসর হতে দেখে তারা আবারো সেখানে আড্ডায় মেতে ওঠে। তাদের গায়ে ছিলো জিন্স প্যান্ট ও টি-শার্ট।
কলেজ গেটের সামনে থেকে মোটর সাইকেল ঘুরিয়ে সুনামকণ্ঠ টিম হাসননগর রোড, ভুবির পয়েন্ট, ময়নার পয়েন্ট হয়ে সরকারি কলেজের পুরাতন ছাত্রাবাসের সামনে। ঘড়িতে সময় রাত ২টা ৫১ মিনিট। আগের সেই সিএনজি অটোরিকশাকে আবারো দেখা গেলো। সঙ্গে আরো একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা। এবার দুটি থ্রী হুইলার ধীর গতিতে হোসেন বখ্ত চত্বর এলাকা থেকে হাসননগরের উদ্দেশ্যে যেতে দেখা গেলো। প্রথমটিতে ২জন এবং পরেরটিতে আরো দুইজন যুবককে দেখা গেলো। তারা আগেরমতোই ধূমপান করছিলো।
সুনামকণ্ঠ টিম হোসেন বখ্ত চত্বর, মরাটিলা রোড হয়ে বাঁধনপাড়া এলাকার সরকারি মহিলা কলেজ রোডে। সেখানে কিছু সময় অবস্থান করে বাঁধনপাড়া পয়েন্ট থেকে নতুনপাড়ার দিকে এগিয়ে যান এ প্রতিবেদক। ঘড়িতে তখন রাত ৩টা ১৪ মিনিট। এসময় সরকারি মহিলা কলেজ ছাত্রী নিবাসের পেছনের মাঠসংলগ্ন সড়কের উপর একজন যুবককে দেখা গেলো। সে মোটর সাইকেলের হেডলাইটের আলো পরতেই সড়কটি থেকে সরে গেলো। সেখানে কিছু সময় মোটর সাইকেলটি থামিয়ে অপেক্ষা করতে থাকে সুনামকণ্ঠ টিম। কিন্তু খোঁজাখুঁজির পরও তাকে আর পাওয়া যায়নি। উল্লেখ্য যে, এ স্থানটিতে সপ্তাহের অধিকাংশ রাতেই পুলিশের একটি পেট্রোল টিম অবস্থান করে। কিন্তু বুধবার রাতের ঐ সময়ে সেখানে পুলিশের পেট্রোল টিমের অবস্থান ছিলো না।
পরে শহরের নতুনপাড়া এলাকা, জামাইপাড়া, কালীবাড়ি, স্টেডিয়াম, নতুন শিল্পকলা ভবন এলাকা হয়ে প্রতিবেদকের অবস্থান ডিএসরোডে। কালীবাড়ি এলাকার বুলচান্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে তিনজন যুবককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। প্রায়ই এ সড়কে গভীর রাতে উঠতি বয়সি কিছু ছেলেদেরকে জটলা পাকিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
ঘড়িতে সময় রাত ৩টা ৩০ মিনিট। সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পৌরসভা ভবন ও রাজগোবিন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তীসড়কে দেখা গেলো ৩জন ভাসমান পতিতাকে। তারা ল্যাম্পপোস্ট এর আলো থেকে নিজেদেরকে আড়াল করে দাঁড়িয়ে ছিলো।
এরপর সুনামকণ্ঠ টিমের অবস্থান লঞ্চঘাট এলাকায়। সেখানে পুলিশের একটি মোবাইল টিমের দেখা মিললো। পুলিশ সদস্যরা হাল্কা চা-নাশতা সেরে নিচ্ছিলেন। সেখানে দুইটি খাবার হোটেলে দেখা গেলো আরো কয়েকজনকে। তাদের অধিকাংশই সাদা পোশাকের বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর সদস্য।
এসব এলাকা ছাড়াও শহরের ষোলঘর পয়েন্ট এলাকায় রাত ৩টা ৪৫ মিনিটে অবস্থান করেন এ প্রতিবেদক। সেখানে কয়েক মিনিট অপেক্ষার পর মোহাম্মদপুর পয়েন্টের উদ্দেশ্যে যাত্রা করলে ষোলঘর কলোনী এলাকায় আরো ২টি সিএনজি অটোরিকশাকে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘুরতে দেখা যায়। এরমধ্যে একটি অটোরিকশা ছিলো যাত্রীশূন্য এবং অন্যটিতে ড্রাইভারসহ ২জন আরোহি ছিলেন।
আবহাওয়া প্রতিকূল থাকায় সুনামকণ্ঠ টিম বনানীপাড়া এলাকা থেকেই আবারো শহরের দিকে ফিরে আসে।
পরে শহরের হোসেন বখ্ত চত্বর এলাকায় আরো একটি সিএনজি অটোরিকশাকে ঘুরতে দেখা যায়। এসময় ঐ অটোরিকশাটি সুনামকণ্ঠ টিমের ক্যামেরায় ধরা পরে।
রাতের শহরের অলি-গলিতে রহস্যজনকভাবে ঘুরতে থাকা এসব অটোরিকশার ব্যাপারে সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এসব অটোরিকশার ব্যাপারে তদন্ত করে শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করবো, কোনভাবেই রাতের বেলা শহরে এসব সিএনজি অটোরিকশা ঘুরতে দেয়া যাবে না, শহরবাসীর নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে পুলিশের পক্ষ থেকে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারেই দেখা হবে’।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com