1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০২:৩৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

একযুগ পর দখলদারদের উচ্ছেদ করলো পৌর কর্তৃপক্ষ

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০১৬

বিশেষ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মালিকানাধীন ৫ শতক ভূমিতে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ। গতকাল বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র হোসেন আহমেদ রাসেলের নেতৃত্বে পৌর পরিষদের সকল কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এক্সেভেটর দিয়ে ৭টি দোকান গুড়িয়ে দেন। সংশ্লিষ্টদের মতে, গত একযুগ ধরে একটি চক্র এই ভূমি দখলের মাধ্যমে অবৈধ স্থাপনা তৈরি করে আর্থিকভাবে ব্যবহার করে আসছিল। এ কারণে পৌরসভা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হয়। সুনামগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর এবং যোগাযোগ ও ভৌত কাঠামো সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আহমদ নূর স্বাক্ষরিত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই উচ্ছেদ অভিযানের কথা জানানো হয়।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে আরও জানা যায়, একযুগ ধরে উকিলপাড়া আলীমাবাগ জামে মসজিদের বিপরীত পাশের প্রায় ৫ শতক মূল্যবান ভূমি শাহবাজ চৌধুরী রানা নামের জনৈক ব্যক্তি অবৈধ দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করছিল। ২০০৬ সাল থেকে বাণিজ্যিকভাবে দোকান কোঠা বানিয়ে ব্যবহার করছিল চক্র। পৌর কর্তৃপক্ষ নিজস্ব মূল্যবান এই ভূমি উদ্ধার করতে একাধিকবার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়।
জানা গেছে, সাবেক প্রয়াত চেয়ারম্যান মমিনুল মউজদীন একাধিকবার ওই ভূমি উদ্ধারে চেষ্টা চালান। কিন্তু দখলদারদের বাধায় তিনি ফিরে আসেন। চেষ্টা করেও ওই চক্রের কাছ থেকে ভূমি উদ্ধার করতে পারেননি তিনি। জানা গেছে, দখলদাররা অপদখল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আদালতে পৌরসভার বিরুদ্ধে তাদের মালিকানার পক্ষে বেশ কয়েক বছর আগে একটি মামলা দায়ের করে। সম্প্রতি আদালত ওই মামলাটি খারিজ করে দিলে পৌর কর্তৃপক্ষ নিজেদের মূল্যবান ভূমি উদ্ধারে উদ্যোগী হয়। পৌর পরিষদ সম্প্রতি সিদ্ধান্ত নিয়ে এই ভূমি উচ্ছেদে গতকাল বৃহস্পতিবার অভিযান চালায়। অভিযান চালানোর সময় মালিকানা দাবিদাররা বাধা দিলেও পৌর কর্তৃপক্ষের সামনে টিকতে পারেনি। স্থাপনাগুলো গুড়িয়ে দিয়ে ফের নিজেদের দখল প্রতিষ্ঠা করে পৌর কর্তৃপক্ষ।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, উদ্ধারকৃত এই ভূমিতে শীঘ্রই একটি বহুতল পৌর মার্কেট নির্মাণ করা হবে। যা থেকে পৌরসভা আর্থিকভাবে লাভবানই নয় সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি করবে। এতে শহরের সৌন্দর্য্য বর্ধনসহ বাণিজ্যিক সম্প্রসারণ হবে বলেও সংশ্লিষ্টরা জানান।
এদিকে এই উচ্ছেদ অভিযানের পর নাগরিকরা নানাভাবে বর্তমান পৌর মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের প্রশংসা করেন। সাংস্কৃতিক সংগঠক ও শিল্পী অলক বাপ্পা সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুকে এই সিদ্ধান্তকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেন, সততাই শক্তি। নেক-ইকবাল-মউজদীনের পরে আয়ূব বখত জগলুল যোগ্য প্রতিনিধি মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমরা আপনার জন্য গর্ব করি। শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে উচ্ছেদ অভিযান চালানোয় এভাবে সারাদিন অনলাইন এবং অফলাইনে নাগরিকরা এই উচ্ছেদ অভিযানের প্রশংসা করে বর্তমান মেয়র আয়ূব বখত জগলুল ও তার পরিষদকে অভিনন্দন জানান। পাশাপাশি দ্রুত এই উদ্ধার হওয়া ভূমিতে স্থাপনা তৈরি করার জন্য তারা মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। একাধিক নাগরিক জানিয়েছেন, অতীতে যারা নির্ধারিত লক্ষ্যের কথা বলে জায়গা বরাদ্দ নিয়েছিলেন তারা এখন সেই লক্ষ্য থেকে সরে বাণিজ্যিকভাবে জায়গা ব্যবহার করছেন। উদ্দেশ্য থেকে সরে আসায় এসব মানুষদের ইজারা বাতিলেরও দাবি জানান নাগরিকরা। শফিকুল ইসলাম নামের আরেকজন লিখেন, ‘জনাব আয়ূব বখ্ত আপনাকে হাজার সালাম, অনেক বছরের বেদখল জায়গা আজ উদ্ধার করে পৌরবাসীকে আবারো ঋণী করে ফেললেন। আবারো প্রমাণ করলেন পৌরসভা আপনার কাছেই সুরক্ষিত এবং নিরাপদ।’
এদিকে শাহবাজ চৌধুরী রানার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
পৌর মেয়র আয়ূব বখ্ত জগলুল বলেন, ভুয়া মামলা করে একটি ভূমিখেকো চক্র পৌরসভার জায়গা অবৈধ দখল করে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করছিল। মূল্যবান এই ভূমি অবৈধ দখলে রাখতে তারা আদালতে ভুয়া মামলাও করেছিল। কিন্তু আদালত ভুয়া মামলাটি খারিজ করার পর আমরা পৌর পরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়ে দ্রুত দখল হয়ে যাওয়া ভূমি থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করে নিজেদের মালিকানা প্রতিষ্ঠা করি। পৌরসভাকে দৃষ্টিনন্দন ও আরো লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপ দিতে অন্যান্য দখলদারদের বিরুদ্ধেও অভিযান চলবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com