1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

পেশার বাইরেও বিবেকি দায়িত্বে পুলিশ কর্মকর্তা

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬

মো. আমিনুল ইসলাম ::
ঈদুল ফিতর। মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীও উৎসব। আর এ দিনটিকে নিয়ে যতো যল্পনা কল্পনা থাকে মানুষের। উচ্চবিত্তরা বিলাশি আর মধ্যবিত্তরা সাজায় আনন্দঘন উৎসবের স্বপ্ন। আর যারা একেবারেই নুন আনতে পানতা ফুরানোর অবস্থা সে সব নিম্নবিত্তরা কোনরকমে দিনটিতে তাদেরও অংশগ্রহণ আছে বলে জানান দিতে চেষ্টা করে। হয়তো নিজের পোশাক না কিনে পরিবারের শিশুদের কথাই ভাবে তারা। এমন অসহায়দের ঈদের আনন্দ বলতে তেমন কিছু থাকেনা বললেই চলে। উচ্চবিত্তদের চুলোয় মুখরোচক খাবারের একের পর এক আয়োজন থাকলেও তাদের ঘরে ঈদের দিনের খাবার মেলানোটা অনেকটাই কষ্টসাধ্যও বটে। এসব অসহায়দের ঈদের দিনটির কথা চিন্তা করেই এবার নিজের পেশাদারি দায়িত্বের বাইরে বিবেকের তাগিদে আরো একটি দায়িত্বে দেখাগেলো কোন পুলিশ কর্মকর্তাকে। আর তিনি সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ চৌধুরী।

ব্যাস্ততম শহরের নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশি দায়িত্বে দিনের সকল ব্যাস্ততাকে পাশ কাটিয়ে তিনি খুজে বেরিয়েছেন কিছু অসহায় মানুষদের। পরিবারের ঈদের দিনের খাবারের আয়োজনের সাথে কিনে নিয়েছেন গরিব ও অসহায়দের জন্য একই ধরনের খাবার। প্রচার বিমুখতার কারণে বিষয়টি নিয়ে সাজ সাজ কোন আয়োজন ছাড়াই রাতের আধারে নিজের কর্মস্থলে ডেকে নিয়েছেন ঐসব পরিবারের একজন করে প্রতিনিধিকে। হাতে তুলে দিয়েছেন ব্যাগভর্তি খাবার তৈরীর উপকরণ। আর বিষয়টি জানার পর তার এমন আচরণে অনেকটাই মুগ্ধ হয়েছেন খোদ জেলা পুলিশের কর্মকর্তারাই।

সোমবার রাতে সদর মডেল থানায় প্রায় ১৫টি গরিব অসহায় পরিবারের প্রতিনিধির হাতে ঈদের খাবার তৈরীর উপকরণ তুলে দেন ঐ পুৃলিশ কর্মকর্তা। পাশাপাশি আরো ১০জন প্রতিবন্ধীকে নগদ টাকা সহায়তা প্রদান করেন।
এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সদর মডেল থানার এসআই মমিনুল ইসলাম, সাইফুর রহমান, মাহবুব আলম ও এএসআই ইমতিয়াজ সরকার।

জানা যায়, বিতরনকৃত ঈদ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে সুগন্ধি চাল, চিনি, আটা, পেয়াজ, রসুন, সেমাই, লবন, দুধু, সব ধরণের মসলা, তেল ইত্যাদি।

এ ব্যাপারে সদর মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন‘ আমি আমার ব্যাক্তিগত পক্ষ থেকে অসহায় কয়েকজনকে সাহায্য করেছি, আমরা যারা একটু ভালো অবস্থায় আছি তারা প্রত্যেকে যদি গরিব অসহায় মানুষগুলোর দিকে নিজ নিজ পর্যায় থেকে যেটুকু সম্ভব সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিই তাহলে ঈদের আনন্দটা ধনি- গরিব সকলে ভাগাভাগি করেই নিতে পারি, এটা আমার ইচ্ছে ছিলো তাই সৃষ্টিকর্তাও আমাকে তাদের সেবা করার সুযোগটা দিয়েছেন, আমাদের এবং তাদেরকে সৃষ্টিকর্তা ভালো রাখবেন এ প্রার্থনাই করি’।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com