1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

শতভাগ স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণে কাজ করতে হবে : জেলা প্রশাসক

  • আপডেট সময় সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ::
ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এন্টারপ্রাইজেস (আইডিই) বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে স্যানিটেশন মার্কেটিং সিস্টেম (স্যানমার্কএস) প্রকল্প-এর উদ্বোধনী ও অবহিতকরণ সভা অনুুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম।
তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘সুনামগঞ্জ হাওরবেষ্টিত জনপদ। এ হাওরাঞ্চলে স্যানিটেশন একটা চ্যালেঞ্জ হিসেবেই ধরা যায়। তাই এলাকা অনুযায়ী চাই গবেষণা। এখানকার প্রত্যেক পরিবারের শতভাগ স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণে আন্তরিকতার সাথে কাজ করা প্রয়োজন। কাজের পাশাপাশি লোকজনকে এ ব্যাপারে আরো বেশি সচেতন করে তোলাও প্রয়োজন। এ বিষয়ে তাদের মানসিকতাও গড়ে তোলার প্রয়োজন আছে। হাত ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তোলতে হবে, উন্নত ও মানসম্মত স্যানিটেশন সামগ্রী সরবরাহ ও প্রচার এর বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। সুস্থ থাকতে হলে শতভাগ স্যানিটেশন নিশ্চিত করাই হোক টার্গেট’।
তিনি আরো বলেন, ‘২০০৩ সাল থেকে বাংলাদেশ সরকার জাতীয় পর্যায়ে স্যানিটেশন প্রচারণার কাজ শুরু করে যাতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এ কাজের বিভিন্ন পর্যায়ে তাদেরকে সহযোগিতা করে স্থানীয় সরকার, এনজিও, দাতাগোষ্ঠী, প্রাইভেট সেক্টর এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা। তাদের এই অবদানের মাধ্যমে আজকে বাংলাদেশ ঘোষণা দিতে পারে যে খোলা জায়গায় মলমূত্র ত্যাগের অভ্যাস শূন্যের দিকে চলে এসেছে। স্যানমার্কএস প্রকল্প ল্যাট্রিন উপকরণ উৎপাদনকারী ও সেবাদানকারীদের দক্ষতা উন্নয়ন, সচেতনতা মূলক কার্যক্রম, সহযোগীদের মধ্যে যোগসূত্রতা স্থাপন ও নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে গ্রামীণ স্যানিটেশন উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে আমরা এ প্রত্যাশা করি। এ ব্যাপারে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে কাজ করার ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।’
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশিদ, সিভিল সার্জন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আব্দুল হাকিম, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী মো. আবুল কালাম, জেলা মৎস্য বিষয়ক কর্মকর্তা সুলতান আহমেদ, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হযরত আলী, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা বাদল চন্দ্র বর্মণ।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আইডিই বাংলাদেশের স্যানমার্ক সিস্টেম প্রজেক্ট অফিসার মুহা. কায়সার পারভেজ।
সভায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিসেফ সিলেট ডিভিশনের অফিসার ইন চার্জ এ. এ. কামরুল আলম, আইডিই অপারেশনস্ টিমলিডার এনামুল হক, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মোহাম্মদ সোহেলসহ আইডিইএর সুনামগঞ্জ টিম ও সুনামগঞ্জ জেলার সরকারি কর্মকর্তাগণ, জেলা পর্যায়ের এনজিও প্রতিনিধিগণ এবং সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ল্যাট্রিন ব্যবসায়ী, স্যানিটেশন কাজে জড়িত এনজিও প্রতিনিধিগণ।
উল্লেখ্য, আইডিই-বাংলাদেশ একটি আর্ন্তজাতিক অলাভজনক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা। ১৯৮২ সালে ট্রেডল সেচ পাম্প নিয়ে বাংলাদেশে কাজ শুরু করে আইডিই-বাংলাদেশ। গত ৩০ বছর যাবৎ আইডিই-বাংলাদেশ কৃষি, পুষ্টি, ও খাদ্য নিরাপত্তার জন্য বাজার ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন, স্যানিটেশন প্রযুক্তি সম্প্রসারণ এবং নতুন প্রযুক্তি ও উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে কাজ করে আসছে।
এস.ডি.সি ও ইউনিসেফ এর অর্থায়নে এবং জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের কারিগরি সহায়তায় স্যানিটেশন মার্কেটিং সিষ্টেমস্ প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশের ৬টি জেলায় বগুড়া, রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল, খুলনা ও সুনামগঞ্জে আনুমানিক ৭০০ স্থানীয় স্যানিটেশন ব্যবসায়ী’র উন্নত প্রযুক্তি স্থাপনের দক্ষতা উন্নয়নের মাধ্যমে লাখ খানেক পরিবারে উন্নত স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা বিক্রয় নিশ্চিতের জন্য নভেম্বর ২০১৫ হতে এপ্রিল ২০১৯ পর্যন্ত পাবলিক ও প্রাইভেট সেক্টরদের সাথে নিয়ে কাজ করবে, তবে সুনামগঞ্জে এই কার্যক্রম মে ২০১৬ থেকে শুরু হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com